Scores

বিপিএলের সেরা পাঁচ উইকেটরক্ষক

মাঠের বাকি দশজন ক্রিকেটারের শুধু ক্যাচ আউট আর রান আউটের সুযোগ থাকলেও উইকেটরক্ষকের হাতে থাকে তিনটি সুযোগ। তার তৃতীয়টি হলো ব্যাটসম্যানকে স্টাম্পিং আউট করার সুযোগ। বিপিএলের গত পাঁচ আসর মিলিয়ে সেরা পাঁচ উইকেটরক্ষকের মধ্য চারজনই দেশি ক্রিকেটার। চলুন একনজরে দেখে নেয়া যাক তাঁদের পরিসংখ্যান-

 

১. মুশফিকুর রহিম

 

বিপিএলের ইতিহাসে গ্লাভস হাতে সবচেয়ে বেশি ডিসমিসালের মালিক মুশফিক।

 

বিপিএলের সেরা উইকেটরক্ষকের তালিকার প্রথমেই আছেন দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। বিপিএলের গত পাঁচটি আসরে তিনি ভিন্ন-ভিন্ন পাঁচটি ফ্যাঞ্চাইজির প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দুরন্ত রাজশাহী, সিলেট রয়্যালস, রাজশাহী কিংস, বরিশাল বুলস ও সিলেট সুপার স্টারস। উক্ত দলগুলোর জার্সিতে ৫৬ টি ইনিংসে কিপিং করে ৪৪ টি ডিসমিসাল মুশফিকের দখলে। যার মধ্যে ৩৬ টি ক্যাচ আউট ও ৮ টি স্ট্যাম্পিং আউট। উল্লেখ্য, মুশফিক এবারের আসরে চিটাগাং ভাইকিংসে খেলবেন।

Also Read - আস্থা পুনরুদ্ধার করতে চান রুবেল


২. কুমার সাঙ্গাকারা

বিপিএলের সেরা পাঁচ উইকেটরক্ষকের তালিকায় একমাত্র বিদেশী ক্রিকেটার হিসেবে আছেন এই সাবেক শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার। ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে ২৭ ইনিংসে তাঁর সংগ্রহে ৩৭টি ডিসমিসাল। তিনি ক্যাচ নিয়েছেন ২৫টি ও স্ট্যাম্পিং করেছেন ১২টি।

এ তালিকায় মুশফিকের ঠিক পরের অবস্থানেই রয়েছেন সাঙ্গাকারা।

৩. লিটন কুমার দাস

বর্তমান সময়ে জাতীয় দলে কিছু দারুণ ইনিংস খেলে বেশ আলোচিত ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস। বিপিএলের উইকেটের পেছনেও বেশ সফল তিনি। ২০১৩ সালের আসর থেকে বিপিএল খেলছেন লিটন।  কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের হয়ে কিপিং করা ৩১ ইনিংসে ৩১টি ডিসমিসাল লিটনের ঝুলিতে। যার মধ্য ১৮টি ক্যাচ ও ১৩টি স্টাম্পিং। এইবার সিলেট সিক্সের হয়ে খেলবেন লিটন কুমার দাস।

৪. এনামুল হক বিজয়

এই তালিকার চার নম্বর স্থানে আছেন এনামুল হক বিজয়। বিপিএলের সবগুলো আসরেই খেলেছেন এনামুল হক বিজয়। ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরস ও চিটাগাং ভাইকিংসের হয়ে মাঠে নেমে ৪৮ ইনিংসে ২৯ টি ডিসমিসালের মালিক বিজয়। ২০টি ক্যাচ ও টি  স্টাম্পিং রয়েছে বিজয়ের ঝুলিতে। বিপিএলের ষষ্ঠ আসরে তাঁর নতুন ঠিকানা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

বিজয়কে 'এ' দলে নেবার কারণ
বিপিএলের ইতিহাসে শীর্ষে পাঁচ সফল উইকেটরক্ষকের একজন এনামুল হক বিজয়।

৫. নুরুল হাসান সোহান

২০১৩ সাল থেকে বিপিএলে অংশগ্রহণ করা সোহান সর্বশেষ চারটি আসরে খেলেছেন চারটি ফ্যাঞ্চাইজির হয়ে। চিটাগাং কিংস, রাজশাহী কিংস, সিলেট সিক্সারস ও সিলেট সুপার স্টারসে। ২৭ টি ইনিংসে ১২ ক্যাচ ও ১১ স্ট্যাম্পিং মিলিয়ে তার মোট ডিসমিসাল ২৩ টি। এইবার প্রথমবারের মতো ঢাকা ডায়নামাইটসে খেলবেন সোহান।

পাইলট-মুশির আগে সোহান
শীর্ষ পাঁচে রয়েছেন নুরুল হাসান সোহানও। ছবি: বিডিক্রিকটাইম

এছাড়া ৫টি ভিন্ন ফ্যাঞ্চাইজিতে খেলা জহুরুল হকেরও ডিসমিসালও ২৩টি তবে তিনি কিপিং করেছেন ৩২ ইনিংসে। এই আসরে খুলনা টাইটান্সে খেলবেন জহুরুল হক।

লিখেছেন তাহসিনা জামান অয়নী

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ভালো শুরুর পর সাজঘরে বিজয়

বিজয়-তাইজুলকে দলে নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা

শ্রীলঙ্কা সফরের দলে বিজয়-তাইজুল, নেই রাহী

বিজয়-নাইমের ব্যাটে বাংলাদেশের প্রতিরোধ

‘এ’ দলে ডাক পেলেন ইমরুল-বিজয়রা