বিপিএলে মাঠে বসে ধূমপান!

0
1020

গত ৪ নভেম্বর মাঠে গড়িয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের পঞ্চম আসর। প্রথমবারের মতো সিলেটের আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে বিপিএলের সূচনা হয়। আর শুরু থেকেই নানা কারণে আলোচনায় বিপিএল। ৫ জন বিদেশী, সম্প্রচার কোয়ালিটি, উপস্থাপনা, এসবের সাথে আলোচনায় ছিল নানা রকমের বিশৃঙ্খলা। তবে সবকিছুকে ছাপিয়ে গেছে মাঠে বসে ধূমপান করার ঘটনা।

Advertisment

সিলেটে বিপিএলের ম্যাচ চলার সময় সাইডস্ক্রিনের পাশে বসে ধূমপান করতে দেখা যায় বিসিবির সম্প্রচার পার্টনার মঈনুল হক চৌধুরীকে। আইসিসি ও বিসিবির ম্যাচ চলাকালীন নিয়মকে পাত্তা না দিয়ে সিলেট পর্বের প্রায় প্রতিটি ম্যাচে মাঠে বসেই ধূমপান করেন মঈনুল হক চৌধুরী।

তবে মঈনুল হক চৌধুরীর জন্য এমন বিতর্কিত কর্মকাণ্ড নতুন কিছু নয়। ২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি এশিয়া কাপের ফাইনালে মাঠেই মারামারি করতে দেখা যায় মঈনুল হককে। এমন বিতর্কিত ঘটনার জন্ম দেবার পর আবারও চলতি বিপিএলে নেতিবাচকভাবে আলোচনায় তিনি। বিপিএলের পঞ্চম আসরের সম্প্রচার সহযোগী প্রতিষ্ঠান টিএসএম। আর এই প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী মঈনুল হক চৌধুরী।

মাঠে নিরাপত্তা ঠিক রাখতে নানা রকমের কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। কিন্তু আয়োজন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিই যখন মাঠে প্রকাশ্যে ধূমপান করেন, তখন নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই পারে! আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী মাঠে কোনো রকমের সিগারেট বহন করা যাবে না অন্যদিকে সিগারেট জ্বালানোর জন্য আগুন ছিল তাঁর সাথে। যা পুরোটাই নিয়ম বহির্ভূত। এর আগে ২০১৪ সালের মারামারির ঘটনায় তার কোনো প্রকারের সাজা হয় নি।

তবে, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ইতোমধ্যে বিপিএলের বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে মঈনুল হক চৌধুরীকে সতর্ক করে চিঠি দিয়েছে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ৮ টি ম্যাচ সিলেটের আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। ৪ নভেম্বর থেকে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত চলে সিলেট পর্বের খেলা। এরপর ঢাকায় চলে আসে অংশগ্রহণকারী ৭ দল। ১১ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে ঢাকায় প্রথম পর্বের খেলা। এরপর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামেও হবে বিপিএলের ম্যাচ। তারপর আবার ঢাকা অনুষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্টের শেষ ম্যাচগুলো।


[আরোঃ ধীর ব্যাটিংকেই দুষছেন মুশফিক]