Scores

বিপিএলে মুগ্ধ আফ্রিদি

শহীদ আফ্রিদি… নামটি শুনলেই চোখে ভেসে ওঠে সজোরে ব্যাট চালিয়ে মারা বিশাল বিশাল সব ছক্কা আর দুহাত প্রসারিত করে করা তার স্বতন্ত্র উদযাপন ভঙ্গি। গোটা ক্রিকেট বিশ্বেই শহীদ আফ্রিদি সুপরিচিত একটি নাম। দুর্দান্ত পাওয়ার হিটিং ক্ষমতার সাথে তার বৈচিত্রময় লেগ স্পিন দিয়ে পাকিস্তানের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাতিয়েছেন পুরো ক্যারিয়ার জুড়েই। টি-টোয়েন্টিতে তিনি ছিলেন যেন রীতিমত হটকেক। খেলে বেড়িয়েছেন গোটা ক্রিকেট বিশ্বের প্রায় সবকটি দেশের টি-টোয়েন্টি লীগে।

afridi
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের জার্সি গায়ে বিপিএল মাতাচ্ছেন আফ্রিদি

 

বয়স পেরিয়েছে ৪০ এর কোঠা, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন বেশ কিছুদিন হলো। তবে ক্রিকেটটা এখনো পুরোপুরি ছাড়েননি তিনি। এবারের বিপিএলেও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের হয়ে খেলছেন টুর্ণামেন্টের শুরু থেকে। টুর্নামেন্টটিকে নিয়ে জানিয়েছেন তিনি তার মুগ্ধতার কথা।

Also Read - স্বপ্ন পূরণ করতে চান তামিম, ইমরুলেরও অভিন্ন লক্ষ্য


এবারের বিপিএলের আয়োজন নিয়ে জানতে চাইলে প্রথমেই তিনি আয়োজকদের অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, “প্রথমেই আমি বিপিএলের আয়োজকদের অভিনন্দন জানাতে চাই। কাঠামোগত দিক থেকে দারুণ একটি ইভেন্ট ছিল এটি। সামনের বছরের জন্যও তাদের প্রতি আমার শুভকামনা।”

টুর্ণামেন্টে নিজের দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের ফাইনাল অব্দি যাত্রা নিয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন- “এটি আসলে দলের আত্মবিশ্বাসের কারণেই সম্ভব হয়েছে। দলের সবাই ব্যক্তিগত ও দলীয় উভয়ভাবেই ভাল করেছে। ” টুর্ণামেন্টের শুরুতেই দলের মূল অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে হারিয়েছিল কুমিল্লা। সেটি কতটা প্রভাব ফেলেছিল জানতে চাইলে তিনি জানান- “স্মিথ যেকোন ফরম্যাটের জন্যই দারুণ এক খেলোয়াড়। কিন্তু দলের বাকি সবাই ইতিবাচক ছিল। সবাই নিজেদের দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করেছে, বিশেষ করে তরুণ খেলোয়াড়রা। সবাই এই বিপিএলের গুরুত্ব বুঝতে পেরেছে এবং তারা ভাল করেছে।”

 

তরুণদের পারফর্মেন্সে খুশি আফ্রিদি

 

তামিমের সাথে পিসিএলের দল পেশোয়ার জালমিতে খেলার পূর্ব অভিজ্ঞতা ছিল তার। সেটি তাকে এই দলে মানিয়ে নিতে কতটা সাহায্য করেছে – এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন- “প্রফেশনাল ক্রিকেটার হিসেবে আমরা যথেষ্ট ক্রিকেট একসাথে খেলেছি। কোন সন্দেহ ছাড়াই তামিম আমার খুব পছন্দের খেলোয়াড়। সে (এই বিপিএলে) ভালও করেছে। আমি মনে করি তার (তামিমের) পারফর্মেন্স (দলের সাফল্যে) বিশাল ব্যবধান তৈরি করেছে। স্মিথ চলে যাওয়ার পর আমাদের এমনই একজনকে দরকার ছিল।”

 

বাংলাদেশী কোচ সালাউদ্দিনের সাথে কাজ করার প্রসঙ্গে তিনি বলেন- “তিনি যথেষ্ট ভাল করেছেন। তিনি ঠান্ডা মাথার রকজন কোচ। তিনি চাপ নেন না। তিনি সবাইকে আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছেন আর এটাই একজন কোচের আসল কাজ।” 

 

আসন্ন ফাইনালের ব্যাপারে মন্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন- “ফাইনালে কোয়ালিফাই করাটা অনেক বড় একটি অর্জন। আমরা যেভাবে (এই টুর্ণামেন্টে) খেলে এসেছি, সেভাবে খেলতে পারলে আমরা ভাল করবো এবং জিতবো। সন্দেহ নেই ঢাকা ডায়নামাইটস অনেক ভাল দল। কিন্তু তারা কিছু কিছু ম্যাচে ভুগেছে এবং সবচেয়ে আশার কথা হলো, আমরা তাদের সাথে শেষ দুটি ম্যাচ জিতেছি।”

আগামীকাল মাঠে গড়াচ্ছে ফাইনাল। এখন দেখার বিষয়, আফ্রিদির এই ফাইনাল জয়ের আশা পূরণ হয় কিনা।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

রেকর্ড গড়ে সেঞ্চুরি লুইসের

স্মিথে মুগ্ধ ইমরুল কায়েস