বিপিএলে শফিউলের পঞ্চাশ

0
904

একেএস বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ২০১৭ আসরের ৩০তম ম্যাচে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে নিজের নামের পাশে অনন্য এক অর্জন যুক্ত করলেন খুলনা টাইটান্সের পেসার শফিউল ইসলাম। ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায় রান পাহাড় করার পর বোলিংয়ে এসে ইনিংসের তৃতীয় ও ব্যক্তিগত প্রথম ওভারে দুই উইকেট নিয়ে বিপিএলের ইতিহাসে চতুর্থ বোলার হিসেবে পঞ্চাশ উইকেট শিকারের কীর্তি গড়েছেন তিনি।

উইকেট শিকারের পর সতীর্থদের সাথে শফিউলের উল্লাস।
উইকেট শিকারের পর সতীর্থদের সাথে শফিউলের উল্লাস।

আবু জায়েদ রাহীর পরিবর্তে আক্রমণে ডাক পেয়ে নিজের স্পেলের প্রথম ওভারের প্রথম বলেই ৭ বলে ১১ রান করা মুমিনুল হককে সরাসরি বোল্ড আউট করে সাজঘরের পথ ধরান শফিউল ইসলাম। এরপরই শুরু হয় কাঙ্ক্ষিত মাইলফলক স্পর্শের অপেক্ষা। তবে এ যাত্রায় বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি তাকে।

Advertisment

মুমিনুলকে ফেরানোর পর ইনিংসের একই ওভারের তিন নম্বর বলে রনি তালুকদার এক রান নিলে স্ট্রাইকে আসেন লুক রাইট। চতুর্থ  বল ডট দেওয়ার পর পঞ্চম বলে শফিউলের ফাঁদে পা দিয়ে লং অনের মাথার উপর দিয়ে ছক্কা হাঁকাতে গেলে আর্চারের তালুবন্দী হয়ে মাঠ ছাড়েন রাইট। আর এতেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য পৌঁছে যান ডানহাতি এই পেসার।

বিপিএলে শফিউলের আগে পঞ্চাশ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন আরো তিনজন ক্রিকেটার। যার মধ্যে একমাত্র সাকিব আল হাসানই হচ্ছেন দেশি ক্রিকেটার। বাকি দুজন হচ্ছেন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার কেভন কুপার ও আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবী। সাকিব ও কুপার পঞ্চাশ উইকেট শিকারের ক্লাবে আরো আগে প্রবেশ করলেও চলমান আসরে মোহাম্মদ নবী ও শফিউল ইসলাম এই ক্লাবে নাম লিখিয়েছেন।

উল্লেখ্য বিপিএলে সর্বাধিক উইকেট শিকারির তালিকায় শীর্ষ চারে রয়েছেন এই চার ক্রিকেটারই। যার মধ্যে সাকিব আল হাসানের ঝুলিতে রয়েছে সর্বাধিক ৭২ উইকেট। তাঁর থেকে ১২ উইকেট কম নিয়ে তালিকার দ্বিতীয়স্থানে রয়েছেন কুপার। আর সমান ৫০ উইকেট নিয়ে এরপরেই অবস্থান এবারের আসরে এই মাইলফলক স্পর্শ করা দুই ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবী ও শফিউল ইসলামের।

প্রসঙ্গত, বিপিএলে ৫০ উইকেট শিকারির ক্লাবে নাম লেখাতে শফিউল ইসলাম সময় নিয়েছেন ৪৭ ম্যাচ ও ৪৫ ইনিংস। বিপিএলে ডানহাতি এই বোলারের সেরা অর্জন ১৭ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট।

আরও পড়ুনঃ লুইস ঝড়ে সহজ জয় ঢাকা ডায়নামাইটসের