Scores

বিপিএল ২০১৯: সেরা একাদশ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেষ হয়ে গেল বিপিএলের আরও একটি আসর। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) আসরের ফাইনালে ঢাকা ডায়নামাইটসকে ১৭ রানে হারিয়ে নিজেদের দ্বিতীয় শিরোপা ঘরে তুলেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

 

বিপিএল ২০১৯ সেরা একাদশ

শিরোপা জেতা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কিংবা রানার্স-আপ ঢাকা ডায়নামাইটসের খেলোয়াড়রা আসর জুড়ে ছিলেন উজ্জ্বল। তবে কম যাননি অন্য দলের ক্রিকেটাররাও। কুমিল্লা ও ঢাকার অনেক ক্রিকেটার যেমনি দলীয় সাফল্যের মাঝখানে থেকেও ব্যক্তিগতভাবে ভালো করতে পারেননি, তেমনি ফাইনাল কিংবা শেষ চারে উঠতে না পারা দলের অনেক ক্রিকেটারও ব্যক্তিগত নৈপুণ্যের দিক থেকে ছিলেন উজ্জ্বল। নিজ নিজ জায়গায় বা ভূমিকায় ভালো পারফর্ম করা সেই ক্রিকেটারদের তালিকায় তাই রয়েছে বৈচিত্র্য।

Also Read - ওয়ানডে মিস করায় সম্মানের রেকর্ড হাতছাড়া সাকিবের

এরই ধারাবাহিকতায় বাছাই করা হয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের সেরা একাদশ। ষষ্ঠ বিপিএলে প্রতি একাদশে চারজন করে বিদেশি ক্রিকেটার খেলার সুযোগ পেয়েছেন। বাছাইকৃত এই একাদশেও বিদেশি ক্রিকেটার রয়েছেন মোট চারজন। একাদশের তিনজন ক্রিকেটার ঢাকা ডায়নামাইটস, তিনজন ক্রিকেটার রংপুর রাইডার্স, তিনজন ক্রিকেটার চিটাগং ভাইকিংস এবং একজন করে ক্রিকেটার রয়েছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও রাজশাহী কিংসের। কার্যকারিতা বিচারে রয়েছেন দ্বাদশ ক্রিকেটারও। এই একাদশ বাছাইয়ে ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সই বেশি গুরুত্ব পেয়েছে, একইসাথে বিবেচনা করা হয়েছে দলীয় সাফল্যে অবদানও। পাঠকদের জন্য বিডিক্রিকটাইমের বাছাই করা সেই একাদশ তুলে ধরা হল।

বিপিএল ২০১৯: সেরা একাদশ

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বাঁহাতি ওপেনার ও আইকন ক্রিকেটার পুরো আসর জুড়ে ছিলেন নিষ্প্রভ। ফাইনালের আগে দুটি অর্ধ-শতক হাঁকালেও পারফরম্যান্স ছিল না নামের মত উজ্জ্বল। তবে ফাইনালে ৬১ বলে ১৪১ রানের মহাকাব্যিক এক ইনিংস খেলে দলকে এনে দেন শিরোপা। এই ইনিংসে নিজেও উঠে আসেন শীর্ষ রান সংগ্রাহকদের তালিকার দুইয়ে। ১৪ ম্যাচে ৩৮.৯১ গড়ে ৪৬৭ রান করা তামিম থাকছেন একাদশের ওপেনার হিসেবে।

  • সুনীল নারাইন (ঢাকা ডায়নামাইটস)

ব্যাট হাতে ঢাকা ডায়নামাইটসকে ভালো শুরু এনে দিতে রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। আদর্শ অলরাউন্ডার হিসেবে উজ্জ্বল ছিলেন বল হাতেও। ১৫ ম্যাচে ২৭৯ রান ও বল হাতে ১৮ উইকেট শিকার নারাইনকে ওপেনার হিসেবে এই একাদশে জায়গা দেওয়ার পাশাপাশি ভারী করছে অলরাউন্ডারদের পাল্লাও।

রংপুর রাইডার্সের জার্সি গায়ে খেলেছেন মাত্র ৬টি ম্যাচে, কিন্তু এই ৬ ম্যাচের ৬ ইনিংসেই মাতিয়ে গেছেন ষোলোআনা। ৬১.৭৫ গড়ে করেছেন ২৪৭ রান, দুটি ইনিংসেই ছিলেন অপরাজিত। মারকুটে এই ব্যাটসম্যানের কোনো ফিফটি না থাকলেও ব্যাট হাতে ছিলেন স্বতঃস্ফূর্ত ও সাবলীল। তবে রয়েছে একটি সেঞ্চুরি। চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে অপরাজিত ছিলেন ঠিক ১০০ রান করে।

বিপিএল ২০১৯: সেরা একাদশ

  • ইয়াসির আলী (চিটাগং ভাইকিংস)

চিটাগং ভাইকিংসের তরুণ এই ক্রিকেটার আলো ছড়িয়েছেন ষষ্ঠ বিপিএলে। ১১ ইনিংসে তার রান ৩০৭, গড় ২৭.৯০। চিটাগং ভাইকিংসের ব্যাটিং অর্ডারকে দারুণভাবে সামলেছেন, দারুণ সঙ্গ দিয়েছেন মুশফিকুর রহিমকে। হাঁকিয়েছেন তিনটি অর্ধ-শতক। তরুণ এই বাংলাদেশি ক্রিকেটার এই একাদশের ব্যাটিং অর্ডারের অন্যতম সদস্য।

  • রাইলি রুশো (রংপুর রাইডার্স)

দক্ষিণ আফ্রিকান এই ক্রিকেটার ষষ্ঠ বিপিএলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ১৩ ইনিংস খেলে ৬৯.৭৫ গড়ে তার মোট রান ৫৫৮। হাঁকিয়েছেন একটি শতক ও পাঁচ-পাঁচটি অর্ধ-শতক। রংপুর রাইডার্সের ব্যাটিং অর্ডারকে নেতৃত্ব দিয়েছেন- এমনটি বললেও ভুল হবে না। বিপিএলের সেরা একাদশের ব্যাটিং লাইনআপেও তাকে ধরা যেতে পারে সবচেয়ে কার্যকরী সদস্য।

চিটাগং ভাইকিংসের আইকন ক্রিকেটার ও অধিনায়ক উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান হিসেবে রয়েছেন আসরের সেরা একাদশে। ব্যাট হাতে ১৩ ইনিংসে ৪২৬ রান করেছেন, গড় ৩৫.৫০। হাঁকিয়েছেন তিনটি অর্ধ-শতক। একাদশে উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনিই সেরা পছন্দ হওয়ার দাবিদার।

বিপিএল ২০১৯: সেরা একাদশ

ব্যাট হাতে ৩০১ রান এবং বল হাতে রেকর্ড ২৩টি উইকেট শিকার সাকিব আল হাসানকে একাদশে রাখছে গুরুত্বপূর্ণ অলরাউন্ডার হিসেবে। শেষ চারের চতুর্থ দল হয়েও স্নায়ুযুদ্ধে টানা দুটি ম্যাচ জিতে ফাইনাল নিশ্চিত করা ঢাকা ডায়নামাইটসের আইকন ক্রিকেটার ও অধিনায়ক পাচ্ছেন একাদশের অধিনায়কের মর্যাদাও। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে এবার আসরের সেরা খেলোয়াড়ও নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

  • রবি ফ্রাইলিঙ্ক (চিটাগং ভাইকিংস)

তার পারফরম্যান্সে ভর করে আসরের শুরুতে উড়ছিল চিটাগং ভাইকিংস। তবে যেই না ফ্রাইলিঙ্ক চোটে পড়লেন, কমে গেল দলের পারফরম্যান্সের ধারও। ৫৭.০০ গড়ে ১১৪ রানের পাশাপাশি ১২টি উইকেট শিকার তো বটেই, দলকে দারুণ সব জয় এনে দেওয়ার কারণেও দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডার ফ্রাইলিঙ্ক একাদশে জায়গা পাওয়ার যোগ্যতা রাখেন।

  • মাশরাফি বিন মুর্তজা (রংপুর রাইডার্স)

ক্যারিয়ারের শেষদিকে এসেও যে পারফরম্যান্সে এতটুকু চিড় ধরেনি, ষষ্ঠ বিপিএল যেন সেটি প্রমাণ করার মঞ্চ ছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার কাছে। রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক শিরোপা হারানোর অনুতাপে পুড়লেও তার বোলিং নৈপুণ্য স্বস্তি দিয়েছে সমর্থকদের। ১৪ ম্যাচে ২২ উইকেট শিকার করে মাশরাফিই ছিলেন সদ্য সমাপ্ত বিপিএলের তৃতীয় সেরা বোলার।

পরিসংখ্যান বিচার করলে এই আসরে মুস্তাফিজের পারফরম্যান্স সম্পর্কে অনুমান করা সম্ভব হবে না। ১২ ম্যাচে মাত্র ১২ উইকেট শিকার করেছেন। কিন্তু তার আঁটসাঁট বোলিং এবং ডেথ ওভারের বিচক্ষণতা ছড়িয়েছে মুগ্ধতা। টি-২০ ক্রিকেটেও ৬.৪৯ ইকোনোমি রেট নিয়ে আসর শেষ করা সম্ভব, তাও ৪৬.২ ওভার বল করে- মুস্তাফিজ বলেই হয়ত সম্ভব!

বিপিএল ২০১৯: সেরা একাদশ

নিউজিল্যান্ড সিরিজের আগে এই গতি তারকা প্রস্তুতির দারুণ এক মঞ্চ হিসেবে কাজে লাগিয়েছেন বিপিএলকে। ১৫ ম্যাচ খেলে শিকার করেছেন ২২ উইকেট। দলের বেশ কয়েকটি জয়ের রেখেছেন বড় ভূমিকা। মাশরাফি ও মুস্তাফিজের সাথে একাদশে ফাস্ট বোলার হিসেবে তাই জায়গা পাচ্ছেন রুবেলও।

  • দ্বাদশ ক্রিকেটার: মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স)

ব্যাট হাতে টুকটাক অবদান রেখেছেন, তবে উজ্জ্বল ছিলেন বেশি বল হাতেই। শিরোপাজয়ী দলের এই অলরাউন্ডার একাদশে সুযোগ পাচ্ছেন দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে।

একনজরে বিডিক্রিকটাইমের বাছাই করা ষষ্ঠ বিপিএলের সেরা একাদশ

তামিম ইকবাল (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স), সুনীল নারাইন (ঢাকা ডায়নামাইটস), এবি ডি ভিলিয়ার্স (রংপুর রাইডার্স), ইয়াসির আলী (চিটাগং ভাইকিংস), রাইলি রুশো (রংপুর রাইডার্স), মুশফিকুর রহিম- উইকেটরক্ষক (চিটাগং ভাইকিংস), সাকিব আল হাসান- অধিনায়ক (ঢাকা ডায়নামাইটস), রবি ফ্রাইলিঙ্ক (চিটাগং ভাইকিংস), মাশরাফি বিন মুর্তজা (রংপুর রাইডার্স), মুস্তাফিজুর রহমান (রাজশাহী কিংস), রুবেল হোসেন (ঢাকা ডায়নামাইটস)।

Related Articles

“আমরা রুবেলের পেসটা মিস করছি”

অ্যাকশন পরীক্ষার জন্য ভারত যাচ্ছেন আলিস

ভিন্ন ঘটনায় রিয়াদ ও বোল্টকে আইসিসির শাস্তি

প্রিমিয়ার লিগের ওয়ানডের আগে টি-২০ টুর্নামেন্ট

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মুশফিক-মিঠুনের ইনজুরি