বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় বলবেন গেইল

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের পর আন্তর্জাতিক ওয়ানডে থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন উইন্ডিজ ওপেনার ক্রিস গেইল। রোববার ক্রিস গেইলের অবসরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে উইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড।

 

Advertisment
বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় বলবেন গেইল।
বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় বলবেন গেইল।

 


টুইটারে উইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড জানায়, “উইন্ডিজ ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসের ২০১৯ বিশ্বকাপের পর আন্তর্জাতিক ওয়ানডে থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন।”

১৯৯৯ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় ক্রিস গেইলের। এখন পর্যন্ত  তিনি খেলেছেন ২৮৪ টি ওয়ানডে ম্যাচ। এর মধ্যে বিশ্ব একাদশের হয়ে মাঠে নেমেছেন তিন ম্যাচে।

ওয়ানডে ক্রিকেটে দশ হাজার রানের মাইলফলকটাও স্পর্শ করতে পারেন বিশ্বকাপে। ২৭৯ ইনিংসে ব্যাটিং করা ক্রিস গেইল ৩৭.১২ গড়ে করেছেন ৯৭২৭ রান। ২৩ টি শতক ও ৪৯ টি অর্ধশতকের মালিক তিনি।  ব্যাট হাতে একটি দ্বিশতকও রয়েছে তার। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ২১৫ রানের ইনিংসটি তার ক্যারিয়ারসেরা।

উইন্ডিজের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ওয়ানডেতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। উইন্ডিজের জার্সিতে ওয়ানডেতে তার রান ৯৬৭২। তার সামনে আছেন শুধুমাত্র ব্রায়ান লারা। লারার সংগ্রহে রয়েছে ১০৩৪৮ রান।

বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের জন্য পরিচিত এ ক্যারিবিয়ান দানব। ব্যাট হাতে যেন চার আর ছক্কার পসরা সাজান তিনি। বোলারদের জন্য এক আতঙ্কের নাম ক্রিস গেইল। এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ওয়ানডেতে ছক্কা হাঁকিয়েছেন ২৭৫ টি। আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ছক্কা হাঁকানো ব্যাটসম্যান তিনি। ৩৫১ ছক্কা হাঁকিয়ে শীর্ষে শহীদ আফ্রিদি।

বল হাতে ক্রিস গেইল শিকার করেছেন ১৬৫ উইকেট। এক ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকারের কীর্তিও রয়েছে একটি।

সর্বশেষ ২০১৮ সালে ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে খেলেছিলেন ক্রিস গেইল।


আরো পড়ুন : “আমরা রুবেলের পেসটা মিস করছি”