Scores

বিশ্বকাপে টাইগার ব্যাটসম্যানদের সেরা ৫ ইনিংস

বিশ্বকাপে ১ম বাংলাদেশি হিসেবে শতক হাঁকিয়েছিলেন মাহমুদল্লাহ রিয়াদ। টাইগারদের সেরা ৫ ইনিংসের মধ্যে ২টাই তার। এই তালিকায় এখনো নাম আছে ২০০৭ বিশ্বকাপে মোহাম্মদ আশরাফুলের খেলা একটি ইনিংস। বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর শুরুর আগে একনজরে দেখে নেয়া যাক বিশ্বকাপে টাইগারদের সেরা ৫ ইনিংস।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ- ১২৮* রানঃ বিশ্বকাপে বাংলাদেশিদের ব্যাট থেকে আসা সর্বোচ্চ ইনিংস এটিই। ২০১৫ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে এই শতক করেন রিয়াদ। এর আগের ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও শতক হাঁকিয়েছিলেন তিনি। এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের ১২৩ বলে অপরাজিত ১২৮ রানের ইনিংসটিতে ছিল ১২টি চার ও ৩টি ছয়ের মার। অবশ্য হামিল্টনে রিয়াদের শতকের দিনে ম্যাচটি হেরে গিয়েছিল বাংলাদেশ।

Also Read - বিশ্বকাপ টিম প্রিভিউ: বাংলাদেশ


মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ- ১০৩ রানঃ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রিয়াদের ধীরগতির ১০৩ রানের ইনিংসটি ছিল মহাকাব্যিক। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের চিরস্মরণীয় একটি ইনিংস। ২০১৫ সালের ৯ মার্চ প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে বিশ্বকাপে শতকের দেখা পান রিয়াদ। অ্যাডিলেডে দলের বিপদের সময়ে হাল ধরে ৭ চার ও ২ ছয়ে করেন ১৩৮ বলে ১০৩ রান। এই ম্যাচে বাংলাদেশ ১৫ রানের জয়ে প্রথমবারের মতো বিশাকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে পা রাখতে সক্ষম হয়।

তামিম ইকবাল- ৯৫ রানঃ প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে শতকের রেকর্ডটা তামিমের ছোঁয়া হয়নি মাত্র ৫ রানের আক্ষেপে। রিয়াদ সেঞ্চুরি করার ঠিক চারদিন আগে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৯৫ রানের ইনিংস খেলেন তামিম ইকবাল। সেই ম্যাচেই প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে তিনশতাধিক রান তাড়া করে জয় পায় বাংলাদেশ। এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের ১০০ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৯ চার ও ১ ছয়ে।

মুশফিকুর রহিম- ৮৯ রানঃ রিয়াদ প্রথম সেঞ্চুরি করার দিনেই তার সাথে জুটি বেঁধে ব্যক্তিগত ৮৯ রানে সাজঘরে ফেরেন মুশফিক। তার এই ইনিংসটি বিশ্বকাপে বাংলাদেশিদের মধ্যে চতুর্থ সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস। মুশফিকের ৭৭ বলে ৮৯ ইনিংসের সুবাদেই রচিত হয়েছিল বাংলার ক্রিকেটের নতুন ইতিহাস। তার ঝলমলে এই ইনিংসটিতে ছিল ৮টি চার ও ১টি ছয়।

মোহাম্মদ আশরাফুল- ৮৭ রানঃ ২০০৭ বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে চমক দিয়েছিল বাংলাদেশ। সুপার এইটে শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকাকেও হারিয়ে দেয় টাইগাররা। সেই ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় আশরাফুল করেন ৮৭ রান। তার ৮৩ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১২টি চারে।

তামিম ও মুশফিক এবার চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছেন। রিয়াদের নেবেন তৃতীয় বিশ্বকাপ খেলার স্বাদ। ২০০৩, ২০০৭ ও ২০১১ টানা তিনটি বিশ্বকাপ খেলা আশরাফুল নেই গত দুই আসরের স্কোয়াডে।

একনজরে বিশ্বকাপে টাইগারদের সেরা ৫ ইনিংসঃ

১. মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ- ১২৮* রান
২. মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ- ১০৩ রান
৩. তামিম ইকবাল- ৯৫ রান
৪. মুশফিকুর রহিম- ৮৯ রান
৫. মোহাম্মদ আশরাফুল- ৮৭ রান।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


Related Articles

সাকিব-তামিমের পাশে বসলেন মুশফিক

এত বড় রান তাড়ায় অভ্যস্ত নন তামিম!

এখনো সেমিফাইনালে যাওয়ার সুযোগ দেখছেন তামিম

৩৮০ রান অনেক বেশি!

লিটন আমাকে চাপে পড়তে দেয়নি: সাকিব