বিশ্বকাপে বড় চমক দিতে পারে আফগানিস্তান

0
1910

অভ্যন্তরীণ অস্থিরতা ও নানান মানুষের কটু কথার পরও আত্মবিশ্বাস নিয়েই আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে আফগানিস্তান। মানসম্পন্ন  স্পিনার ও পাওয়ার হিটার নিয়ে আফগানরা বড় দলগুলোকে চমক দেওয়ার সামর্থ্য রাখে।

বিশ্বকাপে বড় চমক দিতে পারে আফগানিস্তান
আফগানিস্তান ক্রিকেট দল

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচ দুইটির একটিতে হার ও একটিতে জয় পেয়েছে আফগানিস্তান। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে লড়াই না করেই হারার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দাপুটে জয় তুলে নিয়েছে আফগানরা। গ্রুপ পর্বে তারা পাচ্ছে ভারত, পাকিস্তান, স্কটল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, আফগানিস্তান ও ‘এ’ গ্রুপের রানারআপকে।

Advertisment

২০১০ সালে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলে আফগানিস্তান। তারপর থেকে প্রতি আসরেই জায়গা করে নিয়েছে তারা। এ পর্যন্ত বিশ্বকাপে মোট ১৪টি ম্যাচ খেলে আফগানদের জয় পাঁচটি ম্যাচে এবং হার নয়টি ম্যাচে।

বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক কয়েকমাস আগে আফগানিস্তানের অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি নিয়ে অনেকেই মন্তব্য করেছিলেন, আফগানদের বিশ্বকাপ খেলা শঙ্কায় আছে। তবে সব শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে বিশ্বকাপে ভালো খেলার বার্তা দিয়েছে রেখেছে মোহাম্মদ নবীর দল। এখানেই আছে বিতর্ক। রশিদ খানকে অধিনায়ক করে দল ঘোষণা করা হলেও, নির্বাচকদের সাথে মতের মিল না হওয়ায় রশিদ পদত্যাগ করেন এবং নেতৃত্বের দায়িত্ব পান নবী।

টি-টোয়েন্টি সংস্করণে আফগানরা বরাবরই নিজেদের ভালো দল হিসেবে প্রমাণ করেছে। এর পেছনে অন্যতম কারণ হলো, তাদের একাধিক ক্রিকেটার বিশ্বের বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলেন। তাদের অভিজ্ঞতার ফলেই আফগানিস্তান অনেকটা এগিয়ে থাকে। আইসিসি টি-টোয়েন্টি দলের র‍্যাঙ্কিংয়ে তারা অবস্থান করছে অষ্টম স্থানে।

বিশ্বকাপে বড় চমক দিতে পারে আফগানিস্তান
মোহাম্মদ শাহজাদ ও হযরতউল্লাহ জাজাই

ব্যাটিংয়ে আফগানদের সবচেয়ে বড় শক্তি উদ্বোধনী জুটি। হযরতউল্লাহ জাজাই ও মোহাম্মদ শাহজাদের জুটি যেকোনো দলকেই চ্যালেঞ্জ জানাতে পারে। এই দুই ব্যাটসম্যানই পাওয়ার হিটার এবং দ্রুতগতিতে রান সংগ্রহ করতে সক্ষম। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে তারা তা প্রমাণও করেছেন। টপ অর্ডারে রহমানউল্লাহ গুরবাজ ও নাজিবুল্লাহও দ্রুত রান তুলতে সক্ষম। ফিনিশারের ভূমিকায় মোহাম্মদ নবী তো ভরসার প্রতীক। তাছাড়া দলের প্রয়োজন ব্যাট হাতেও উজাড় করে দিতে পারেন রশিদ।

রশিদ, নবী ও মুজিব উর রহমানকে নিয়ে গঠিত শক্তিশালী স্পিন আক্রমণ আছে আফগানিস্তানের। পেস বোলিংয়ে বিশ্বকাপে নায়ক হতে পারেন নাভীন উল হক। বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটেও খেলার অভিজ্ঞতা আছে নাভীনের। সবমিলিয়ে বেশ ভারসাম্যপূর্ণ দল নিয়েই বিশ্বকাপে লড়বে আফগানিস্তান।

একনজরে আফগানিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াড : মোহাম্মদ নবী (অধিনায়ক), রহমানউল্লাহ গুরবাজ (উইকেটরক্ষক), হযরতউল্লাহ জাজাই, উসমান গনি, মোহাম্মদ শাহজাদ (উইকেটরক্ষক), হাশমতউল্লাহ শহীদী, আসগর আফগান, গুলবাদিন নাইব, নাজিবউল্লাহ জাদরান, করিম জানাত, রশিদ খান, মুজিব উর রহমান, হামিদ হাসান, ফরিদ আহমাদ মালিক ও নাভিন উল হক।

রিজার্ভ খেলোয়াড় : শরফউদ্দিন আশরাফ, সামিউল্লাহ শিনওয়ারি, দওলত জাদরান ও ফজল হক ফারুকি।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।