বিশ্বকাপে লিটনের সঙ্গে ওপেনিংয়ে জুটি বাঁধবেন কে?

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য গত ১৪ সেপ্টেম্বর দল ঘোষণা করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এরপর থেকে আলোচনায় আছে- বিশ্বকাপ ২০২২ এ ওপেনিংয়ে লিটন দাসের সঙ্গে জুটি বাধবেন কে?

বিশ্বকাপে লিটনের সঙ্গে ওপেনিংয়ে জুটি বাঁধবেন কে?

নিশাত জাহান লিরা
ডেস্ক রিপোর্টার

প্রকাশিত হয়েছে -

আপডেট হয়েছে -

খেলার সারসংক্ষেপ

  • ইনজুরির কারণে এশিয়া কাপে ছিলেন না লিটন।
  • এই বছর দারুণ ফর্মে থাকা এই উইকেটকিপার-ব্যাটার ফিরেছেন নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তানের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজ ও বিশ্বকাপের মূল স্কোয়াডে
  • গত ১৪ সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণা করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এরপর থেকে দলে যে শুধু সাবেক অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের জায়গা না পাওয়া নিয়ে আলোচনা হয়েছে ব্যাপারটি এমন নয়। আলোচনা আছে আরেকটি বিষয় নিয়ে- বিশ্বকাপ ২০২২ এ ওপেনিংয়ে লিটন দাসের সঙ্গে জুটি বাঁধবেন কে?
    লিটন দাস
    বাংলাদেশের ওপেনিং নিয়ে যে সমস্যা সেটি বিবেচনায় লিটনের সঙ্গী কে হবেন সেটি নিয়ে কথা উঠতেই পারে। কারণ দেশসেরা ব্যাটার তামিম ইকবাল জাতীয় দলে কুড়ি ওভারের ফরম্যাট থেকে অবসর নেওয়ার পর এক লিটন ছাড়া ওপেনিংয়ে থিতু হতে পারছেন কেউই। সহজ কথায় কেউই পারফরম্যান্স করে ওপেনিংয়ে নিজের জায়গা করে নিতে পারছেন না।

    মুনিম শাহারিয়ার, এনামুল হক বিজয় থেকে শুরু করে মোহাম্মদ নাঈম শেখ- কেউই টি-টোয়েন্টিতে উদ্বোধনী জুটিতে দেশের হয়ে ভালো করতে পারছেন না।

    এদিকে এশিয়া কাপে না থাকলেও এবারের অস্ট্রেলিয়ায় টুর্নামেন্ট বা বিশ্বকাপে নাজমুল হোসেন শান্তকে ১৫ জনের মূল দলে নিয়েছে বিসিবি। তবে শান্তও যে আস্থা রাখতে পারবেন বাংলাদেশের ওপেনিংয়ে সেটি বলা মুশকিল। কারণ এই বাঁহাতি ওপেনার এখন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ৯ টি। ওই ৯ ম্যাচের ৯ ইনিংসে ব্যাট করে ১৮.৫০ গড়ে তার মোট রান মাত্র ১৪৮। যেখানে নেই কোনো অর্ধশতকের ইনিংসও।

    তবে চোট কাটিয়ে নুরুল হাসান সোহান ও ইয়াসির আলী রাব্বি বিশ্বকাপ দলে ফেরায় মিডল-অর্ডারে বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে শক্তি বাড়িয়েছে। এ কারণে বোর্ডের কাছে ওপেনিংয়ে লিটনের সঙ্গে দুইজনকে পরখ করে দেখার সুযোগ থাকবে।

    বিশেষ করে বিশ্বকাপের আগে যেহেতু ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ, সেখানে লিটনের সঙ্গে ওপেনিংয়ে শান্ত কিংবা মেহেদী হাসান মিরাজকেও ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ থাকছে বিসিবির কাছে। কারণ বিশ্বকাপের এই ১৫ জনের স্কোয়াডই মূলত নিউজিল্যান্ডপাকিস্তানের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজে খেলবে।

    উল্লেখ্য, এশিয়া কাপে টাইগারদের সবশেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ওপেনিংয়ে নেমেছিলেন মিরাজ। তাতে শুরুটা ভালোই করেন এই স্পিনিং-অলরাউন্ডার। এ ছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেটেও ওপেনিংয়ে ভালো করার অভিজ্ঞতা আছে মিরাজের। তাই লিটনের পাশাপাশি ওপেনিংয়ে 'এক্স ফ্যাক্টর' হলেও হতে পারেন মিরাজ। তবে শান্তকে যেহেতু দলে নেওয়া হয়েছে সেক্ষেত্রে বোর্ড তার ওপর আস্থা রেখে শুরুর একাদশে বা ওপেনিংয়ে খেলাবে কিনা সেটাই দেখার বিষয়।

    আর অক্টোবর-নভেম্বরের বিশ্বকাপে ওপেনিংয়ে সৌম্য সরকার না থাকাটাই স্বাভাবিক। কারণ তাকে যে রাখা হয়েছে বিশ্বকাপের মূল স্কোয়াডের পরিবর্তে রিজার্ভ তালিকায়। তাই বিশ্বকাপে ওপনিংয়ে লিটনের সঙ্গী কে হবেন সেটা সময়ই বলে দেবে।

    সম্পর্কিত খবর