Scores

বিশ্বকাপ টিম প্রিভিউ: নিউজিল্যান্ড

গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ এবারো দারুণ ফর্ম ও অভিজ্ঞ দল নিয়েই ইংল্যান্ডে পা রেখেছে। তবে বিশ্লেষকদের মুখে সম্ভাব্য শিরোপাজয়ীর তালিকায় কিউইদের নাম খুব একটা শোনা যাচ্ছে না। কেন উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে আকমণাত্মক ক্রিকেট খেলা এই দলটি বিশ্বকাপের অন্যতম দাবিদার। আগামী ১ জুন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে কিউইদের বিশ্বকাপ মিশন।

সিরিজ জয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতির দেখা পেয়েছে নিউজিল্যান্ড।

২০১৫ সালে প্রতিবেশি অস্ট্রেলিয়ার সাথে যৌথভাবে বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিল। সেই আসরে ব্রেন্ডন ম্যাককালামের নেতৃত্বে পুরো টুর্নামেন্টে দলটি মাত্র ১টি ম্যাচই হেরেছিল এবং সেটা ফাইনালে। এবারের বিশ্বকাপেও দারুণ ফর্ম নিয়ে মাঠে নামবে র‍্যাঙ্কিংয়ের ৪ নম্বরে অবস্থান করা দলটি।

Also Read - প্রোটিয়া অধিনায়ক দিলেন 'হেরেও খুশি থাকা'র মন্ত্র


নিউজিল্যান্ড দলের বড় শক্তি হলো তাদের পেস আক্রমণ। টিম সাউদি ও ট্রেন্ট বোল্টের মতো দুইজন অভিজ্ঞ ও বিশ্বমানের পেসারই অন্য দলের সাথে নিউজিল্যান্ডের পার্থক্য গড়ে দিতে পারে। তাদের সঙ্গ দিতে আছেন ম্যাট হেনরি, দারুণ গতিতে টানা বল করতে পারা লকি ফার্গুসনের মতো পেসাররা।

ব্যাটিংয়েও কম যান কিউইরা। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনই তাদের ব্যাটিং স্তম্ভের নেতৃত্বে। এছাড়া অভিজ্ঞ ওপেনার মার্টিন গাপটিলের সাথে তরুণ হেনরি নিকোলস জুটিও বেশ জমে উঠেছে। রস টেলর দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। এবার চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া টেলরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে দারুণ কিছু করতে পারে নিউজিল্যান্ড।

কলিন ডি গ্রান্ডহোম ও জিমি নিশামের মতো পেস অলরাউন্ডাররা কিউই ব্যাটিং ও বোলিং দুই বিভাগকেই শক্তিশালী করেছে। স্পিনিং অলরাউন্ডার মিচেল স্যান্টনারও হতে পারেন তুরুপের তাস। লেগ স্পিনার ইশ সোধির ১০ ওভারও খুব গুরুত্বপূর্ণ।

নিউজিল্যান্ড দলের একমাত্র অনিভিষিক্ত ক্রিকেটার টম ব্লান্ডেল। টম লাথামের ব্যাকআপ হিসেবেই তাকে দলে নেয়া হয়েছে। অবশ্য বিশ্বকাপের আগে লাথামের ইনজুরি নিউজিল্যান্ডের দুশ্চিন্তার কারণ। চোটের জন্য বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচও খেলতে পারছেন না তিনি।

নিউজিল্যান্ড স্কোয়াড: কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), রস টেলর, টম ব্লান্ডেল, ট্রেন্ট বোল্ট, কলিন ডি গ্রান্ডহোম, লকি ফার্গুসন, মার্টিন গাপটিল, ম্যাট হেনরি, টম লাথাম, কলিন মানরো, জিমি নিশাম, হেনরি নিকোলস, মিচেল স্যান্টনার, ইশ সোধি, টিম সাউদি।

নিউজিল্যান্ডের ম্যাচের সময়সূচি:
১ জুন- নিউজিল্যান্ড বনাম শ্রীলঙ্কা- বেলা ৩:৩০
৫ জুন- নিউজিল্যান্ড বনাম বাংলাদেশ- সন্ধ্যা ৬:৩০
৮ জুন- নিউজিল্যান্ড বনাম আফগানিস্তান- সন্ধ্যা ৬:৩০
১৩ জুন- নিউজিল্যান্ড বনাম ভারত- বেলা ৩:৩০
১৯ জুন- নিউজিল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা- বেলা ৩:৩০
২২ জুন- নিউজিল্যান্ড বনাম উইন্ডিজ- সন্ধ্যা ৬:৩০
২৬ জুন- নিউজিল্যান্ড বনাম পাকিস্তান- বেলা ৩:৩০
২৯ জুন- নিউজিল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়া- সন্ধ্যা ৬:৩০
৩ জুলাই- নিউজিল্যান্ড বনাম ইংল্যান্ড- বেলা ৩:৩০।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

আবারো পর্যালোচনা করা হবে ফাইনালের সেই ওভারথ্রো

ইন্টারনেটে রেকর্ড গড়লো বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর

নেতৃত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হচ্ছে ডু প্লেসিকে!

বিশ্বকাপের পারফরম্যান্সের রিপোর্ট এখনও পায়নি বিসিবি

বিশ্বকাপে বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত ম্যাচ নিয়ে সাকিবের ভাষ্য