Scores

বিশ্বকাপ দলে ডাক না পেয়ে আলোচিত যারা

ইতোমধ্যেই বিশ্বকাপের জন্য ১৫ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে অংশ নিতে যাওয়া ১০ টি দল। স্কোয়াডে ডাক পাওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও অনেকেই বাদ পড়েছেন। সবাইকে দলে নেয়াও নিশ্চয়ই অসম্ভব। তবে অনেক ক্রিকেটারের দলে জায়গা না পাওয়া নিয়ে হয়েছে তুমুল আলোচনা।

বিশ্বকাপ দলে নেই তাসকিন, চমক আবু জায়েদ

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে ডাক পাননি ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদ আর বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস। তাসকিন আহমেদের জায়গা হষ্য়ঠনি চোটের কারণে। নির্বাচকরা মনে করেন ম্যাচের জন্য ফিট নন তাসকিন আহমেদ। অন্যদিকে ইমরুল কায়েসের বাদ পড়ার জন্য তার দূর্ভাগ্যকে দায়ী করছেন অনেকে। ওপেনার তামিম ইকবাল বাঁহাতি হওয়ায় তার সঙ্গী হিসেবে খোঁজা হচ্ছে ডানহাতি। তাই সুবিধা পেয়েছেন লিটন দাস আর সৌম্য সরকার। এছাড়া ইমরুল কায়েস ছন্দে থাকলেও লিটন দাস ও সৌম্য সরকার তার চেয়ে দ্রুত রান তুলতে পারবেন- এমন চিন্তা করেই হয়তো তাদের দলে নেওয়া হয়েছে। যদিও নিজেদের ধারাবাহিকতা হারিয়ে সামর্থ্যকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন লিটন দাস আর সৌম্য সরকার।

Also Read - প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে প্রমীলা ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে জাহানারা


অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দলে ডাক পেয়েছেন স্টিভ স্মিথ আর ডেভিড ওয়ার্নার। তবে জায়গা পাননি পিটার হ্যান্ডসকম আর জশ হ্যাজলউড। ব্যাটসম্যান পিটার হ্যান্ডসকম ভারতের বিপক্ষে সম্প্রতি হাঁকিয়েছিলেন শতক। পেসার জশ হ্যাজলউড চোটের কারণে অনেক দিন ওয়ানডে খেলেননি। একারণে তার দিকে ঝুঁকেননি নির্বাচকরা। নির্বাচকরা জানিয়েছিলেন ১৫ জনের নাম ঠিক করতে গিয়ে কিছু কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে তাদের।

ভারতের বিশ্বকাপ দলে ডাক পাননি রিশাভ পান্ট। ২১ বছর বয়সী রিশাভ পান্টকে অনেকেই ভেবেছিলেন বিশ্বকাপে ভারতের বিকল্প উইকেটরক্ষক হিসেবে। দলে ডাক পেয়েছেন ৩৩ বছর বয়সী দীনেশ কার্তিক। নির্বাচকরা জানিয়েছেন কার্তিকের অভিজ্ঞতা আর চাপ সামলানোর ক্ষমতার কারণেই তাকে দলে নেওয়া হয়েছে। তরুণ রিশাভ পান্টের সামনে নিজেকে প্রমাণ করার আরো সুযোগ রয়েছে বলে মনে করেন তারা।

পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দলে আমির ‘অটো চয়েজ’ নন!

পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দলে ডাক পাননি পেসার মোহাম্মদ আমির। অবশ্য এখনো সুযোগ আছে তার সামনে। ইংল্যান্ডের মাটিতে ইংলযান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দলে আছেন তিনি। সেখানে তাক লাগিয়ে দিতে পারলে খুলতে পারে তার ভাগ্য। এছাড়া জুনায়েদ খানের চোটের সমস্যা থাকায় বাদ পড়াদের মধ্যে মোহাম্মদ আমিরের সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দলে ডাক পাননি আকিলা ধনঞ্জয়া, নিরোশান ডিকভেলা ও দীনেশ চান্দিমাল। তাদের বাদ পড়া অবাক করেছে অনেককেই। নির্বাচকরা মনে করেন অ্যাকশন পরিবর্তনের পর ধার কমে গিয়েছে ধনঞ্জয়ার। তারা স্পিনার হিসেবে দলে নিয়েছে ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে।

বিশ্বকাপের আগে তুমুল আলোচনা হয়েছিল পেসার জোফরা আর্চারকে নিয়ে। বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাননি বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া পেসার। ডাক পাননি বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া আরেক পেসার ক্রিস জর্ডান। অবশ্য পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দলে রাখা হয়েছে দুজনকেই। সেখানে দারুণ কিছু করলে মিলতে পারে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ।

জফরা আর্চার

উইন্ডিজের বিশ্বকাপ দলে জায়গা হয়নি কিরন পোলার্ড আর সুনিল নারাইনের। বাদ পড়েছেন মারলন স্যামুয়েলসও। ২০১৬ সালে সর্বশেষ ওয়ানডে খেলা সুনিল নারাইন ভুগছেন আঙুলের চোটে। ২০১৫ বিশ্বকাপের পর মাত্র এক ওয়ানডে খেলা আন্দ্রে রাসেল সুযোগ পেয়েছেন ঠিকই। উইন্ডিজ নির্বাচকরা মনে করেন দল সাজাতে গিয়ে কিছু কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে তাদের। তবে তাদের মতে  বর্তমান ফর্ম, ইংল্যান্ডের কন্ডিশন, অভিজ্ঞতা, ফিটনেস- সব বিবেচনা করে একটি শক্ত দল সাজিয়েছে তারা।

দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোয়াডে সুযোগ পাননি পেস বোলিং অলরাউন্ডার ক্রিস মরিস। বর্তমানে আইপিএলে দিল্লী ক্যাপিটালসের হয়ে খেলছেন তিনি। বিশ্বকাপের স্কোয়াডে তাকে জায়গা দেননি নির্বাচকরা। পেস আক্রমণে রাখা হয়েছে ডেল স্টেইন, লুঙ্গি এনজিডি, কাগিসো রাবাদা আর এনরিচ নর্টজেকে। এছাড়া নিউজিল্যান্ডের বিশ্বকাপ দলে ডাক পাননি স্পিনার টড অ্যাসল। আফগানিস্তানের দলে সুযোগ পাননি পেসার শাপুর জাদরান। নির্বাচকরা জানিয়েছেন গত ছয় মাসের পারফরম্যান্স আর ফিটনেস বিবেচনা করে নেওয়া হয়েছে ক্রিকেটারদের।

অবশ্য ২৩ মে পর্যন্ত আইসিসির অনুমতি ছাড়াই দলে যোগ-বিয়োগ করতে পাবে সবাই। তাই এখনো কারো আশাই একদম শেষ নয়।বিশ্বকাপের আগে অনুষ্ঠিত ম্যাচগুলোতে তাক লাগানো পারফম্যান্স করে বিশ্বকাপ দলে জায়গা নেওয়া সম্ভব-এমন কথা বলেছেন সব দলের নির্বাচকরাই।


আরো পড়ুন  : মুশফিকের শটে চোট পেয়েছেন রোডস


 


Related Articles

সম্ভাবনাময় বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের সামনে বাংলাদেশ

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় পরাজয়

উইন্ডিজের বিশ্বকাপ রিজার্ভ লিস্টে পোলার্ড ও ব্রাভো

লেস্টারে পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল

বাংলাদেশ থেকে সাবধান পাকিস্তানকে রমিজ রাজা