Scores

বিশ্বকাপ না জিতলে খেলা ছেড়ে দিতেন বাটলার!

শেষ বলে কিউইদের প্রয়োজন ২ রান। অবশ্য ১ রানের বেশি নিতে না দিলেই হল। বাউন্ডারির হিসেবে বিশ্বকাপ জিতে যাবে নিউজিল্যান্ড।

বিশ্বকাপ না জিতলে খেলা ছেড়ে দিতেন বাটলার!

এমন শ্বাসরুদ্ধকর সমীকরণকে সামনে রেখে জস বাটলার ভাবছিলেন- এবার শিরোপা হাতছাড়া হয়ে গেলে ক্রিকেট খেলাই ছেড়ে দিবেন! ইংলিশ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জানিয়েছেন, মার্টিন গাপটিলকে রান আউট করে জয় ছিনিয়ে আনার আগে কতটা চিন্তিত ছিলেন তিনি।

Also Read - দলের সঙ্গে যোগ দিলেন রুবেল হোসেন


এর আগে প্রতিযোগিতামূলক আটটি ফাইনালে হেরেছিলেন বাটলার। নবম ফাইনালের সামনে দাঁড়িয়ে জয় পেয়েছেন হারতে হারতে। ইতিহাসের সবচেয়ে নাটকীয় ম্যাচে হারলে অবসরই হয়ত নিয়ে বসতেন।

তিনি বলেন, ‘আমি এই ভেবে ভয় পাচ্ছিলাম যে- যদি আমরা হেরে যাই, আমি আর কোনোদিন ক্রিকেট খেলব কি না!’

ইংল্যান্ড ছিল বিশ্বকাপের স্বাগতিক। ফাইনাল ম্যাচের ভেন্যু লর্ডস, যাকে আবার বলা হয় ক্রিকেট তীর্থ। এই সুযোগ হাতছাড়া যেন না হয় তাই ভাবছিলেন বাটলার।

তিনি বলেন, ‘লর্ডসে বিশ্বকাপ ফাইনাল! এটা জীবনে একবারই আসার মত একটি ঘটনা। নিয়তি নিয়ে ভাবছিলাম। আর ভাবছিলাম- যদি জিততে না পারি, লম্বা একটি সময় আমি ক্রিকেট ব্যাট হাতে নেওয়ার শক্তি পাব না।’

নিজে জিতলেও কিউইদের কষ্ট অনুধাবন করতে পারছেন ইংলিশ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। তবু দিনশেষে তার স্বস্তি- এবার অন্তত ফিরতে হয়নি শূন্য হাতে, ‘এর আগে আমি আটটি ফাইনাল ম্যাচ খেলেছি, সাতটিতেই হেরেছি। প্রতিপক্ষ দল শিরোপা উঁচিয়ে ধরছে- এটা দেখা কতটা কষ্টের আমি জানতাম। এই কষ্ট আবার পেতে চাচ্ছিলাম না।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বিশ্বকাপে মুশফিকের ভুল নিয়ে কথা বললেন ডমিঙ্গো

আবারো পর্যালোচনা করা হবে ফাইনালের সেই ওভারথ্রো

ইন্টারনেটে রেকর্ড গড়লো বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর

নেতৃত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হচ্ছে ডু প্লেসিকে!

বিশ্বকাপের পারফরম্যান্সের রিপোর্ট এখনও পায়নি বিসিবি