বিশ্বকাপ ফাইনালে ‘২৫ হাজার’ দর্শক চায় বিসিসিআই

আর কয়েকদিন পরই শুরু হবে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। করোনা মহামারী শুরুর পর বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে দর্শকদের প্রবেশাধিকার না থাকলেও বিশ্বকাপ মাঠে বসেই উপভোগ করতে পারবেন দর্শকরা।

বিশ্বকাপ ফাইনালে '২৫ হাজার' দর্শক চায় বিসিসিআই

Advertisment

তবে করোনার সংক্রমণ যথাসম্ভব ঠেকাতে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোতে দর্শক ধারণক্ষমতার ৫০ শতাংশ আসনের টিকিট বিক্রি করা হবে। তা সম্ভব হচ্ছে মূলত সংযুক্ত আরব আমিরাতে ব্যাপক হারে টিকা প্রদানের কারণে। তবে বিশ্বকাপ ফাইনালে ৫০ শতাংশ দর্শকের পরিকল্পনায় মন ভরছে না বিসিসিআইয়ের। তারা চায় শতভাগ দর্শক।

আরও পড়ুন : সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েও আক্ষেপ নিয়ে ফিরলেন তামিম

বিশ্বকাপের আয়োজক মূলত বিসিসিআই, যা অনুষ্ঠিত হবে আরব আমিরাত ও ওমানে। প্রথম রাউন্ডের কিছু ম্যাচ ওমানে অনুষ্ঠিত হবে। যদিও মূল আয়োজক আরব আমিরাতই। সেখানেই ১৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল।

এর ফাইনাল ম্যাচে বিসিসিআই ২৫ হাজার দর্শককে মাঠে বসে খেলা দেখার সুযোগ করে দিতে চায়। সেজন্য আমিরাত সরকারের অনুমতিও চেয়েছে সৌরভ গাঙ্গুলির বোর্ড। উল্লেখ্য, ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে দুবাইয়ে।

বিশ্বকাপ ফাইনালে '২৫ হাজার' দর্শক চায় বিসিসিআই

আরব আমিরাতের একেক ভেন্যুতে দর্শকদের প্রবেশাধিকারে জন্য একেক নিয়ম প্রযোজ্য। দুবাইয়ে শুধু পূর্ণ টিকা গ্রহণের সনদ দেখালেই খেলা দেখা যায়। আবুধাবি ও শারজায় সাথে নিতে হয় করোনা নেগেটিভ সনদ।

ফাইনাল দুবাইয়ে বলেই শতভাগ দর্শক মাঠে রাখার ইচ্ছা পোষণ করেছে বিসিসিআই। দুবাইয়ে একসাথে মোট ২৫ হাজার দর্শক একত্রে বসে খেলা দেখতে পারেন। বিশ্বকাপের আয়োজন স্বত্ব বিসিসিআইয়ের কাছে থাকলেও এই ইচ্ছা পূরণে অবশ্য সবুজ সংকেত লাগবে আরব আমিরাতের।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।