Scores

বিসিএলের নতুন চ্যাম্পিয়ন উত্তরাঞ্চল

বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) পঞ্চম আসরে এসে প্রথমবারের মতো শিরোপা ঘরে তুলেছে বিসিবি উত্তরাঞ্চল। টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ২২ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম আসরে প্রথম চ্যাম্পিয়ন হল উত্তরাঞ্চল। ১৬ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ হয়েছে দু’বারের চ্যাম্পিয়ন প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চল।

পঞ্চম রাউন্ড শেষেই শিরোপার সুবাস পাচ্ছিল দলটি, বাকি দলগুলোর থেকে অনেকটাই এগিয়ে থাকা উত্তরাঞ্চলের ষষ্ঠ তথা শেষ রাউন্ডে কেবল হার এড়ানোটাই প্রয়োজন ছিল। ইমলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে তারা কেবল হারই এড়ায়নি, ড্র করেছে দাপুটে পারফরম্যান্সে। অপর ম্যাচে শিরোপার আরেক দাবিদার প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চল শেষ রাউন্ডে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে ড্র করায় এই ম্যাচে হারলেও কোনো ক্ষতি হতো না উত্তরাঞ্চলের।

১৯ পয়েন্ট ঝুলিতে নিয়ে শেষ রাউন্ডে পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল উত্তরাঞ্চল। মধ্যাঞ্চলের সঙ্গে ড্র করে রানার্সআপ হওয়া দক্ষিণাঞ্চল শেষ করেছে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে। দক্ষিণাঞ্চল ম্যাচটা জিতলে অবশ্য তাদের সামনে সুযোগ ছিল। তবে উত্তরাঞ্চলের দাপুটে পারফরম্যান্সে তৃতীয় দিনেই সম্ভাবনাটা শেষ হয়ে গিয়েছিল তাদের। কারণ ওই দিনই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল, পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে হারছে না উত্তরাঞ্চল। বরং তাদের জেতার সম্ভাবনাই উজ্জ্বল ছিল বেশি। শেষতক সেই ম্যাচ নিষ্পত্তি হয়েছে ড্রতে।

Also Read - বিজয়-স্যামি-জর্ডানরা 'তৃতীয় শ্রেণির ক্রিকেটার'


তৃতীয় দিন শেষে উত্তরাঞ্চলের লিড ছিল ৩৯৬ রান। শেষ দিনে কোনো ঝুঁকি নিতে চায়নি দলটি। তাই সকালে আরও ১১ ওভার ব্যাটিং করেছে তারা। এতে লাভ হয়েছে নাজমুল হোসেন শান্তর। ৯১ রান নিয়ে দিন শুরু করা এই বাঁহাতি তুলে নিয়েছেন দারুণ এক সেঞ্চুরি। ১২২ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। শান্তর দৃঢ়তাপূর্ণ ব্যাটিংয়ের পর ৮ উইকেটে ২৯৫ রান তুলে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে উত্তরাঞ্চল, সবমিলে তাদের লিড দাড়ায় ৪৫২ রান।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে ৪৫৩ রানের প্রায় অসম্ভব লক্ষ্য সামনে রেখে জয়ের পথে ছুটেনি পূর্বাঞ্চল। তারা ব্যাটিং করেছে ধীর লয়ে। ৩৬ ওভার ব্যাটিং করে ৩ উইকেটে ১২৮ রান তোলার পরই ম্যাচে ড্র মেনে নিয়েছে দুই পক্ষ। এরপরই শিরোপার উৎসবে মেতেছে উত্তরাঞ্চল। সবমিলে তাদের সংগ্রহ ২২ পয়েন্ট। তৃতীয় হওয়া পূর্বাঞ্চল লিগ শেষ করেছে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে।


আরও দেখুন- স্টোকস-ইশান্তদের সামনে কঠিন দিন


এদিকে, দক্ষিণাঞ্চল-মধ্যাঞ্চল ম্যাচটির ভাগ্যে ড্র লিখে দিয়েছে দুই দলের প্রথম ইনিংস। তুষার ইমরান আর শাহরিয়ার নাফীসের ডাবল সেঞ্চুরির সঙ্গে মোহাম্মদ মিঠুনের সেঞ্চুরিতে ভর করে দক্ষিণাঞ্চল তাদের প্রথম ইনিংসে তুলেছিল ৭৪৯ রান। এর জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে সাদমান ইসলামের (১১৩) সেঞ্চুরিতে মধ্যাঞ্চল তাদের প্রথম ইনিংসে তুলেছে ৪১৫ রান। দুই দলের একটি করে ইনিংস শেষ হতেই নির্ধারিত সময়ের প্রায় পুরোটাই লেগে গেছে! এরপর দ্বিতীয় দফায় ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ২ ওভার ব্যাটিং করেছে দক্ষিণাঞ্চল।

এর আগে ৩ উইকেটে ১৮৪ রান নিয়ে শেষ দিনের খেলা শুরু করে মধ্যাঞ্চল। দক্ষিণাঞ্চলের আশা ছিল তাদের দ্রুত অলআউট করে দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে পাঠানো এবং জয় তুলে নেয়া। কিন্তু সাদমান আর তাইবুর রহমানের ব্যাট সেটা হতে দেয়নি। সাদমান তুলে নিয়েছেন প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। তাইবুর অবশ্য ফিরেছেন ষষ্ঠ সেঞ্চুরিবঞ্চিত হওয়ার হতাশা নিয়ে। ৯০ রান করে আউট হয়েছেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
দক্ষিণাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চল

দক্ষিণাঞ্চল প্রথম ইনিংস ৭৪৯/৮।
মধ্যাঞ্চল প্রথম ইনিংস ৪১৫/১০ ১৪৩.৫ ওভারে
সাদমান ইসলাম ১১৩, সাইফ হাসান ৫০, মার্শাল আইয়ুব ৩৭, তৈয়বুর রহমান ৯০।
আল-আমিন হোসেন ২/৪৭ নাজমুল ইসলাম ৪/১০০।

দক্ষিণাঞ্চল দ্বিতীয় ইনিংস ৩৩/০, ২ ওভারে
তুষার ইমরান ২৮*, নাহিদুল ইসলাম ৪*
আবু হায়দার ০/৯।

ফল : ম্যাচ ড্র।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : শাহরিয়ার নাফীস (দক্ষিণাঞ্চল)।

উত্তরাঞ্চল ও পূর্বাঞ্চল
উত্তরাঞ্চল প্রথম ইনিংস ৩৭৪।
পূর্বাঞ্চল প্রথম ইনিংস ২১৬।

উত্তরাঞ্চল দ্বিতীয় ইনিংস ২৯৫/৮ ৭৯ ওভারে
জুনায়েদ সিদ্দিকী ৪০, নাজমুল হোসেন শান্ত ১২২*, নাসির হোসেন ৬৩।
মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ৩/৬৬, আবু জায়েদ ২/৪৫।
পূর্বাঞ্চল দ্বিতীয় ইনিংস ১২৮/৩ ৩৬ ওভারে
ইরফান শুক্কুর ২৫, তাসামুল হক ৪৪*, রাহাতুল ফেরদৌস ২১।
শফিউল ইসলাম ২/৩৭, ফরহাদ রেজা ১/১২।

ফল : ম্যাচ ড্র ।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : ফরহাদ হোসেন (উত্তরাঞ্চল)।
চ্যাম্পিয়ন : উত্তরাঞ্চল।

  • মাকসুদুল হক, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম।
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

অধিনায়কত্ব ছাড়ার কারণ জানালেন মাশরাফি

ঘাটতি পোষাতে ৬ সপ্তাহের ক্যাম্প বাংলাদেশ দলের

বাশারের চিন্তা ‘নতুন আর তরুণ’ ক্রিকেটারদের নিয়ে

পাকিস্তানের ভয়ংকর স্মৃতির রোমন্থনে সাঙ্গাকারা

ফুটবলার বাবার অনুপ্রেরণাতেই ক্রিকেটার হওয়া তামিম-নাফিসের