Scores

বিগ ব্যাশকেও বিদায় বললেন ম্যাককালাম

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছেড়ে টি-২০ লিগে মনোযোগ দেওয়া যেন ক্রিকেটারদের ‘ট্রেন্ড’ এ পরিণত হয়েছে। এবি ডি ভিলিয়ার্স ও ব্রেন্ডন ম্যাককালাম এমন ঘটনার সর্বশেষ উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

বিগ ব্যাশকেও বিদায় বললেন ম্যাককালাম

সম্প্রতি রংপুর রাইডার্সের জার্সি গায়ে বিপিএল মাতিয়ে গিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স। যদিও প্লে-অফে খেলার আগেই তিনি দলের সঙ্গ ছেড়েছেন। এবার একই পথে হাঁটলেন ম্যাককালামও। তবে ম্যাককালাম আসরের মাঝপথে নয়, আসর শেষ করেই জানিয়েছেন বিদায়। বলা ভালো, ‘চিরবিদায়’!

ডি ভিলিয়ার্স যখন বিপিএলে ব্যস্ত ছিলেন ম্যাককালাম তখন সময় কাটাচ্ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার জনপ্রিয় ঘরোয়া টি-২০ টুর্নামেন্ট বিগ ব্যাশে। সম্প্রতি ম্যাককালাম জানিয়ে দিয়েছেন, বিগ ব্যাশের মত জমজমাট আসরে তাকে আর খেলতে দেখা যাবে না।

Also Read - আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে বোল্টের রাজসিক উত্থান


বিগ ব্যাশে ম্যাককালামের দল ব্রিসবেন হিটস। চলমান আসরে দলটির অবস্থান তলানির দিকেই। অর্ধেকেরও বেশি ম্যাচে হেরে বসা দলটি আসরে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলবে আগামী শুক্রবার, মেলবোর্ন স্টার্সের বিপক্ষে। আর ঐ ম্যাচটিই হতে যাচ্ছে বিগ ব্যাশের ইতিহাসে ম্যাককালামের শেষ ম্যাচ।

ম্যাককালাম জানিয়েছেন, ২০১৯ সালেও টি-২০ ক্রিকেটে দাপিয়ে বেড়াবেন তিনি। তবে এই বছরের পরই মনোযোগ দেবেন কোচিংয়ে, অর্থাৎ বিদায় জানাবেন খেলোয়াড়ি জীবনকে। আর তাই বিগ ব্যাশে মাঠ মাতাতে দেখা যাবে না তাকে।

তিনি বলেন, ২০১৯ সালে আমি বিশ্বজুড়ে বেশ কয়েকটি টি-২০ ক্রিকেট আসরে খেলবএর পরপরই কোচিংয়ে মনোযোগী হবোএর মাধ্যমে টি-২০ ফরম্যাটে খেলার দীর্ঘ অভিজ্ঞতা, দক্ষতা ও নেতৃত্বের বিষয়টি আমি অন্যদের সাথে ভাগাভাগি করতে চাই।’

৩৭ বছর বয়সী ম্যাককালাম ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম মারকুটে ব্যাটসম্যান হিসেবে বিখ্যাত। আইপিএলের মত বড় আসরে তিনি নিয়মিত ক্রিকেটার হলেও এবার নিলামে তিনি থেকে গেছেন অবিক্রীত। এ কারণেই হয়ত তিনি নিজেই তার ক্যারিয়ারের শেষ দেখে ফেলেছেন। চলতি বছর আর কিছু টি-২০ আসর মাতানোর পরই ব্যাট ও প্যাডজোড়া তুলে রাখবেন নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলের সাবেক এই ক্রিকেটার।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ভারতের দুর্দান্ত জয়, ধাওয়ান-স্মিথের আক্ষেপ

ওয়ার্নারদের ঝড়ে উড়ে গেল ভারত

ঝড়ো শতকে স্টয়নিসের রেকর্ডের ফুলঝুরি

অবসর ভাঙছেন পন্টিং-ওয়ার্ন-গিলক্রিস্টরা!

চড়া দামে বিক্রি হল ওয়ার্নের ব্যাগি গ্রিন