বোল্ট-ঝড়ের পর ক্রাইস্টচার্চে ব্যাকফুটে শ্রীলঙ্কা

0
867

স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও সফরকারী শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে দ্বিতীয় দিনের খেলায় ব্যাকফুটে চলে গেছে লঙ্কানরা। ট্রেন্ট বোল্টের বোলিং তোপে লঙ্কানরা নিজেদের প্রথম ইনিংস শেষ করে কিউইদের চেয়ে ৭৪ রানে পিছিয়ে থেকে। ১৭৮ রান করেও লিড পাওয়া নিউজিল্যান্ড সেই সুবিধা কাজে লাগিয়ে ২ উইকেটে ২৩১ রান জড়ো করে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে।

বোল্ট-ঝড়ের পর ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে ব্যাকফুটে শ্রীলঙ্কা

দ্বিতীয় ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের লিড বর্তমানে ৩০৫ রান।

Advertisment

এর আগে ৪ উইকেটে ৮৮ রান নিয়ে প্রথম দিনের খেলা শেষ করা শ্রীলঙ্কা হোঁচট খায় দিনের শুরুতেই। বোল্টের ঝড়ে স্কোর বোর্ডে আর ১৬ রান যোগ করতেই সবগুলো উইকেট হারায় দীনেশ চান্দিমালের দল। এক স্পেলের মাত্র ১৫ বলের ব্যবধানে এবং ৪ রানের খরচায় বোল্ট তুলে নেন শ্রীলঙ্কার ইনিংসের বাকি ৬টি উইকেট।

এমন দৃশ্য দেখেও যেন কিছু করার ছিল না অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের। ৩৩ রানে অপরাজিত এই ব্যাটসম্যান চোখের সামনে দেখেছেন সতীর্থদের আত্মাহুতি। আর ইনিংস শেষে তিনিই ছিলেন দলের সর্বোচ্চ স্কোরার।

আগেরদিন দলকে ম্যাচে জিইয়ে রাখা টিম সাউদি এদিন আর কোনো উইকেট পাননি। তার তিন উইকেটের পাশাপাশি শ্রীলঙ্কাকে অল্প রানে আটকাতে ভূমিকা রেখেছে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের একটি শিকার।

৭৪ রানের লিড নিয়ে খেলতে নেমে নিউজিল্যান্ডকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার জিত রাভাল ও টম লাথাম। উদ্বোধনী জুটিতেই দুজনে দলের পাশে যুক্ত করেন ১২১ রান- যা এখন পর্যন্ত ম্যাচে সর্বোচ্চ রানের পার্টনারশিপ। ৮টি চারের সহায়তায় ১৬২ বলে ৭৪ রান করে রাভাল বিদায় নিলেও খেই হারায়নি কিউইরা। লাথামের যোগ্য সঙ্গী হয়ে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও ব্যাট করে যান দেখেশুনে।

তবে অর্ধ-শতক না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে ফিরতে হয় নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ককে। দলীয় ১৮৯ ও ব্যক্তিগত ৪৮ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন তিনি। তার বিদায়ের পর রস টেলরকে নিয়ে ভালোভাবেই দিন পার করেছেন ৮টি চারের মাধ্যমে ২১৩ বলে ৭৪ রানে অপরাজিত লাথাম। টেলর অপরাজিত আছেন ২৫ রানে; ওয়ানডে মেজাজে ৫টি চারের সহায়তায় এই রান করেছেন মাত্র ২৭ বলে।

শ্রীলঙ্কার পক্ষে উইকেট দুটি শিকার করেছেন দিলরুয়ান পেরেরা ও লাহিরু কুমারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (দ্বিতীয় দিন শেষে)

নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংস- ১৭৮
সাউদি ৬৮, ওয়াটলিং ৪৬
লাকমল ৫৪/৫, কুমারা ৪৯/৩

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস- ১০৪
ম্যাথিউস ৩৩*, সিলভা ২১
বোল্ট ৩০/৬, সাউদি ৩৫/৩

নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংস- ২৩১/২ (৭৯ ওভার)
লাথাম ৭৪*, রাভাল ৭৪, উইলিয়ামসন ৪৮, টেলর ২৫*
পেরেরা ৫৭/১, কুমারা ৬০/১

নিউজিল্যান্ডের লিড ৩০৫ রান।

আরও পড়ুন: কোহলিকে অবসর নিতে বললেন জনসন!