ব্যর্থ তামিম-রাব্বি, জয়-হৃদয়ের ব্যাটে জয়ের পথে বাংলাদেশ

0
699

সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে আয়ারল্যান্ড উলভসের দেওয়া ১৮৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করছে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। শুরুতেই দুইটি উইকেট হারিয়ে চাপে পড়লেও তা সামলে নিয়ে জয়ের পথে আছেন স্বাগতিকরা। অর্ধশতকের পথে আছেন জয় ও হৃদয়।

Advertisment

শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের পক্ষে ইনিংস উদ্বোধন করতে নামেন তানজিদ হাসান তামিম ও মাহমুদুল হাসান জয়। বয়সভিত্তিক দলে দুর্দান্ত পারফর্ম করা তামিম ভালো করতে পারেননি। ১৩ বলে ২ রান করেন পিটার চেজের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন তিনি।

ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বিকেও শিকার করেন পিটার। রাব্বি ফেরেন ৫ বলে ২ রান করে। ১০ রানেই ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। সেখান থেকে দলকে বের করে আনেন জয় ও তৌহিদ হৃদয়। দেখেশুনে ধীরগতিতে খেলতে থাকেন জয়। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত জয়ের ব্যাট থেকে এসেছে ৪৬ রান। হৃদয় অপরাজিত আছেন ৪১ রানে। বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৮ ওভারে ২ উইকেটের বিনিময়ে ৯৮ রান।

তার আগে টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। শুরু থেকেই সফরকারীদের চাপে রাখেন স্বাগতিক বোলাররা। দলীয় ১৪ রানে স্টেফেন ডহেনিকে শিকার করে আইরিশদের প্রথম উইকেট শিকার করেন মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ। আকবর আলির তালুবন্দী হয়ে স্টেফেন করেন ১৭ বলে ১১ রান।

সুমন খান টানা ২ ওভারে ৩টি উইকেট শিকার করেন আইরিশ টপ অর্ডার ধ্বসিয়ে দেন। ১১তম ওভারে দলীয় ৪০ রানে জেরেমি ললরকে প্রথম শিকার করেন সুমন। জেরেমি ফেরেন ২৬ বলে ১৬ রান করে। একই ওভারে হ্যারি ট্যাকটরকেও আউট করেন সুমন। রানের খাতা খোলার আগেই আউট হন হ্যারি। জেরেমি ও হ্যারি দুইজনই আকবরের তালুবন্দী হন।

নিজের পরের ওভারে এসেই কার্টিস ক্যাম্ফারকে শিকার করেন সুমন। তিনি ফেরেন ৬ বলে ৫ রান করে। ৫৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে আয়ারল্যান্ড উলভস। এই বিপদ সামাল দিতে চেষ্টা করেন মার্ক অ্যাডাইর ও লরকান টাকার।

৪০ রান করা মার্ককে শিকার করেন রকিবুল হাসান। ৪৯টি বল খেলেন তিনি। মার্ক আউট হলে ভেঙে যায় পঞ্চম উইকেটের ৪৬ রানের জুটি। লরকানকেও সাজঘরের পথ দেখান রকিবুল। এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে এসেছে ২৪ রান। গ্যারেথ ডিলানিকে শিকার করে সফরকারীদের সপ্তম উইকেটের পতন ঘটান মুগ্ধ। ১১২ রানে ৭ উইকেট হারায় আইরিশরা।

অষ্টম উইকেটে ৫৭ রানের জুটি গড়ে আয়ারল্যান্ড উলভসের বিপর্যয় সামাল দেন রুহান প্রিটোরিয়াস ও গ্রাহাম হিউম। অধিনায়ক সাইফ হাসান রুহানকে আউট করেন ভয়ঙ্কর হতে থাকা এই জুটি ভেঙে বাংলাদেশকে ম্যাচে ফেরান। রুহান করেন ৪৫ বলে ৩৫ রান। পরের ওভারে বেন হোয়াইটকেও শিকার করেন সাইফ।

আয়ারল্যান্ড উলভস অলআউট হয়েছে ১৮২ রানে। ২৯ রানে অপরাজিত থাকেন গ্রাহাম। বাংলাদেশের পক্ষে সুমন ৪টি, মুগ্ধ, রকিবুল ও সাইফ ২টি করে উইকেট শিকার করেছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

টস : বাংলাদেশ

আয়ারল্যান্ড উলভস ১৮২/১০ (৪৬.২ ওভার)
মার্ক ৪০, রুহান ৩৫, গ্রাহাম ২৯*, লরকান ২৪, জেরেমি ১৬;
সুমন ৪/৩১, রকিবুল ২/৩৬, মুগ্ধ ১/৯।

বাংলাদেশ ৯৮/২ (২৮ ওভার)
জয় ৪৬*, হৃদয় ৪১*, তামিম ২, রাব্বি ২;
পিটার ২/১১।