Scores

ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দিনে দ্যুতি ছড়ালেন আফিফ

আইসিসি অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে গ্রুপ ‘সি’ এর লড়াইয়ে নিজেদের শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কুইন্সটাউন ইভেন্টস সেন্টার মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্তের পর চার দিয়ে ইনিংস শুরু করে দারুণ কিছু করার আভাষ দিচ্ছিলেন পিনাক ঘোষ। তবে দ্বিতীয় ওভারে লেগ স্টাম্পের বাইরে পিচ করা বলে আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের ফলে সেই স্বপ্ন ভেস্তে যাওয়ার সাথে দলীয় ৬ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

আফিফ হোসেনের অর্ধশতক উদযাপন।
আফিফ হোসেনের অর্ধশতক উদযাপন।

এরপর ক্রিজে এসে থিতু হতে পারেননি অধিনায়ক সাইফ হাসানও। স্লিপে একবার ক্যাচ দিয়ে জীবন ফিরে পেলেও স্থায়িত্ব পায়নি তার ইনিংস। এর চার বল পর এক রকমের আত্মহত্যা করেই নিজের উইকেট বিলিয়ে দেন তিনি। ২.৩ ওভারে ৭ রানে ২ উইকেট হারিয়ে যখন চাপে বাংলাদেশ তখন সাইফের পথে হাঁটেন নাইম শেখও। অফস্টাম্পের বাইরের বলে খোঁচা দিয়ে ইথান ব্যাম্বারের তৃতীয় শিকারে পরিণত হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

ম্যাচের পাঁচ ওভার না হতেই দলের রান দাঁড়ায় ৩ উইকেটে ৮! এমতাবস্থায় আগের ম্যাচে বাংলাদেশকে লড়াকু পুঁজির ভিত গড়ে দেওয়া দুই ব্যাটসম্যান তৌহিদ হৃদয় ও আফিফ হোসেন ধ্রুব যোগ দেন ক্রিজে। দলের বিপর্যয়ে দেখে-শুনে খেলে রান বের করতে চেষ্টার সর্বোচ্চটা করতে থাকেন এই দুই ব্যাটসম্যান। এমতাবস্থায় আবারও আম্পায়ারের ভুল শিকারের খেসারত দিতে হয় বাংলাদেশকে।

Also Read - ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ


ইথানের নবম ওভারের তৃতীয় বলটি স্পষ্টভাবে ব্যাটে লেগে হৃদয়ের প্যাডে আঘাত হানলেও আঙ্গুল উঁচু করে আউটের সিদ্ধান্ত নেন আম্পায়ার। ২৭ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশের হয়ে এরপরে লড়ে যান আফিফ ও বিপ্লব। পঞ্চম উইকেট জুটিতে মূল্যবান ৯৪ রান যোগ করেন তারা। [খেলাটির বল বাই বল লাইভ আপডেট পেতে ক্লিক করুন এখানে]

আফিফ ৬০ বল মোকাবেলায় আসরে টানা  দ্বিতীয় অর্ধশতক তুলে নিয়ে দলের রানের চাকা সচল রেখে খেলতে থাকেন। ইনিংসের ৩২তম ওভারে এসে বিপ্লবকে ফেরান উড। আর এতে আবারও শুরু হয় যত বিপত্তির। একই ওভারে ৬৩ রান করে আফিফ আউট হলে ছয় বলের ব্যবধানে তিন উইকেট হারিয়ে নিমিষেই স্কোরবোর্ডে ১২১/৪ থেকে ১২৩/৭ রানে পরিণত হয় বাংলাদেশ।

এরপর ইনিংসের শেষ দিকে নমব উইকেট জুটিতে হাসান মাহমুদ ও মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনের ৩১ রানের জুটিতে ৪৯.২ ওভারে অল-আউট হওয়ার আগে ১৭৫ রানের  রানের পুঁজি পায় বাংলাদেশ। মাহিদুলের ব্যাট থেকে আসে ২০ রান ও হাসান মাহমুদ খেলেন ২ চার ও ১ ছয়ে ২৩ রানের ইনিংস।

ইংলিশ বোলারদের মধ্যে পেসার ব্যাম্বার ও স্পিনার উডস প্রত্যেকেই দুটি করে উইকেট লাভ করেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৯ রানের মধ্যে দুই ওপেনারের উইকেট হারানোর পর দলীয় ৪৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে ইংল্যান্ড। তবে দলের চাপ কমিয়ে সাবলীল গতিতে ব্যাট চালিয়ে রানের চাকা সচল রেখে শতক তুলে নেন ইংলিশ অধিনায়ক হ্যারি্ব্রুকক। তার ৮৪ বলের দুর্দান্ত ১০২ রানের ইনিংসের সাথে উডসের ৫৭ বলের অপরাজিত ৪৮ রানের ইনিংসে ভর করে ২৯.৩ ওভারেই জয় নিশ্চিত করে দলটি। শতক হাঁকানোর পথে ১৩টি চার ও ৩টি ছক্কা হাঁকান ইংলিশ দলপতি।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে হাসান মাহমুদ, কাজী অনিক ও নাঈম হাসান প্রত্যেকেই একটি করে উইকেট লাভ করেন।

এই পরাজয়ের ফলে গ্রুপ রানার্স আপ হিসেবে পরবর্তী রাউন্ডে উর্ত্তীণ হচ্ছে বাংলাদেশ তা এক প্রকার নিশ্চিতই হয়ে গেছে, কেননা আজকের জয়ে নেট রান রেটে বাংলাদেশের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে গেছে ইংল্যান্ড।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-
বাংলাদেশ অ.১৯ঃ ১৭৫/১০ (৪৯.২ ওভার)
আফিফ ৬৩ (৮৫), বিপ্লব ৩১ (৬৩), হাসান ২৩ (৩৫), অঙ্কন ২০ (৫০); ব্যাম্বার ১৯/৩, উডস ২৬/৩

ইংল্যান্ড অ.১৯ দলঃ ১৭৭/৩ (২৯.৩ ওভার)
ব্রুক ১০২*, উডস ৪৮*; অনিক ১৯/১


আরও পড়ুনঃ বিসিবি ও চিটাগং ভাইকিংসকে সিকান্দার রাজার ‘ধন্যবাদ’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


Related Articles

বিশ্বকাপকে মাথায় রেখে বাংলাদেশ যুবাদের যত ব্যস্ততা

অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জিতলো ভারত

ব্যাটিং ব্যর্থতার দিনে আলো ছড়ালেন আফিফ-শাকিল

বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

পঞ্চমস্থান নির্ধারণী ম্যাচে প্রোটিয়াদের মুখোমুখি বাংলাদেশ