Scores

ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় হারলো সাইফরা

ভারতকে ১৯২ রানে আটকে দিয়েও জিততে পারলো না বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২৩ দল। স্বাগতিকদের কাছে প্রথম একদিনের ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছে ৩৪ রানের ব্যবধানে।

৮-রানের-আক্ষেপে-মাঠ-ছাড়লেন-জাকির
জাকির হাসান। ফাইল ছবি

 

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উকেটে ১৯২ রান সংগ্রহ করে ভারত। ভারতের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৯ রান করেন আরয়ান জুয়াল। এর জবাবে ৮ বল বাকি থাকতেই ১৫৮ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস।

জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই সাব্বিরের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফিরেন তিনি। এরপর ২ চারের সাহায্যে ১২ রান করে আউট হন সাইফ। দুই ওপেনারের উইকেট হারিয়ে দল যখন বিপদে তখন বিদায় নেন ইয়াসিরও। ২৬ বলে ৬ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

Also Read - আইপিএল থেকে মালিঙ্গাদের উপর চাপ দেয়া হচ্ছে!


টপ-অর্ডারের এ তিন ব্যাটসম্যানের দ্রুত বিদায়ে চাপে পড়ে সফরকারীরা। সেই চাপ কয়েকগুণ বেড়ে যায় আল-আমিন জুনিয়র (৪) ও জাকের আলি (৩) ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে আউট হলে। তাদের বিদায়ে দলীয় ৪৬ রানে পঞ্চম উইকেট হারায় সফরকারীরা।

এরপর ষষ্ঠ উইকেটে দলের বিপর্যয় এড়ানোর প্রত্যয়ে জুটি গড়েন জাকির ও আরিফুল। অর্ধশতকের মাইলফলক থেকে জাকির যখন ২ রান দূরে তখন মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন তিনি। আউট না হলেও দূর্ভাগ্যজনকভাবে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

জাকিরের মাঠ ছাড়ার পর আরিফুলের সাথে ক্রিজে যোগ দেন মেহেদী হাসান। সমান ১ চার ও ছক্কায় দ্রুতগতিতে ২০ রান করে আউট হন তিনি। এরপর ক্রিজে এসে থিতু হতে পারেননি আবু হায়দার। রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরের পথ ধরেন তিনি। দলের হাল ধরে বেশ কিছুক্ষণ লড়াই চালানোর পর বাকি ব্যাটসম্যানদের পথ অনুসরণ করেন আরিফুল।

৩৮ রান করে তিনি বিদায় নিলে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় বাংলাদেশ। শেষদিকে রবিউল হকের ২১ রান কেবল পরাজয়ের সমীকরণই কমিয়েছে সফরকারীদের।

এর আগে বল করতে নেমে শুরু থেকেই নিয়ন্ত্রিত বোলিং করতে থাকে টাইগার বোলাররা। স্কোরবোর্ডে কোনো রান যোগ করার আগেই উইকেট হারানো ভারত ঘুরে দাঁড়ায় দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে। মাধব কৌশিক ও বি আর শারাথ গড়ে তুলেন প্রতিরোধ। ৬৬ রানের জুটি গড়ে তারা যখন ভয়ঙ্কর রূপ ধারণের পথে তখন সফরকারীদের ব্রেকথ্রু এনে দেন পেসার শফিকুল ইসলাম। দ্বিতীয় স্পেলে বল করতে এসে ফেরান ৪২ রান করা শারাথকে।

ভারতের বিপক্ষে বল হাতে দ্যুতি ছড়ালেন মেহেদী-রনি-সাইফ
ভারতের বিপক্ষে বল হাতে দ্যুতি ছড়ালেন মেহেদী-রনি-সাইফ।

তার আউটের রেশ না কাটতেই দলকে সাফল্য এনে দেন মেহেদী। মেডেন ওভার দিয়ে বোলিং স্পেল শুরু করা এ স্পিনার এরপর চালান রীতিমত তাণ্ডব। বল হাতে তার বোলিং তাণ্ডবে একে একে সাজঘরে ফিরেন প্রিয়াম গার্গ (৪), রিতিক রয় চৌধুরী (১৮)। স্কোরবোর্ডে ৯৯ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা।

এমন পরিস্থিতিতে দলের হাল ধরেন জুয়াল। মেহেদীর ১০ ওভারের কোটা শেষ হওয়ার পর আক্রমণে আসেন সাইফ। তার বুদ্ধিদীপ্ত সিদ্ধান্তের সাথে বোলিংয়ে পান সফলতাও। ৭ ওভারের স্পেলে ২৩ রান খরচায় নেন ২ উইকেট। তবে শেষদিকে সবকিছু ছাপিয়ে যান জুয়াল।

এক প্রান্ত থেকে উইকেট হারাতে থাকলেও দলের রানের চাকা সচল রেখে এগিয়ে যান তিনি। শেষ পর্যন্ত তার ৬৯ রানের কল্যাণে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ১৯২ রানের পুঁজি পায় স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশি বোলারদের মধ্যে ২৯ রানের বিনিময়ে মেহেদী সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন। তাছাড়া সাইফ ও রনি লাভ করেন দুটি করে উইকেট। আর নিজেদের নামের পাশে একটি করে উইকেট জমা করেন শফিউল ও রবিউল।
সংক্ষিপ্ত স্কোর-

ভারত অনূর্ধ্ব ২৩ দল
: ১৯২-৯ (৫০ ওভার)।
জুয়াল ৬৯, শারাথ ৪২; মেহেদী ১০-২-২৯-৩, সাইফ ৭-০-২৩-২, রনি ১০-০-৩৭-২, শফিকুল ৯-১-২৬-১, রবিউল ৯-০-৩৮-১।

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২৩ দল
: ১৫৮/৯ (৪৮.৪ ওভার)
জাকির ৪৮*, আরিফুল ৩৮, রবিউল ২১, মেহেদী ২০; ভুপেন্দ্র ৭.৪-০-৩১-২।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ধনঞ্জয়ার নেতৃত্বে বাংলাদেশে আসবে লঙ্কানরা

এনওসি পাবেন না আরাফাত সানিরা!

সমালোচনাকারীদের জবাব দিতে ব্যর্থ সৌম্য

ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি দলে একাধিক চমক

ফিল্ডিংয়ের ‘বেসিক’ জানেন না জাতীয় দলের অনেকেই!