ব্যাটিংয়ে লিটন-নাঈম; বল হাতে ঝলক রাজ্জাক-আল আমিনের

0
785

জাতীয় ক্রিকেট লিগের চতুর্থ দিনে টায়ার ১ এ ব্যাট হাতে সেঞ্চুরি করেছেন রংপুরের লিটন কুমার দাস ও ১২৪ রান করে অপরাজিত রয়েছেন নাঈম ইসলাম। অন্যদিকে খুলনায় রাজশাহী বিভাগের বিপক্ষে বল হাতে চার উইকেট করে পেয়েছেন আব্দুর রাজ্জাক ও আল আমিন হোসেন।

ব্যাট হাতে খুলনার হয়ে ৯৭ করে অপরাজিত থাকেন নুরুল।

চট্টগ্রামে ঢাকা বিভাগের করা পাহাড়সম রানের বিপক্ষে তৃতীয় দিনের শুরুটা ভালো করেন লিটন ও নাঈম। প্রথম রাউন্ড না খেললেও দ্বিতীয় রাউন্ডে ব্যাট হাতে ঝলক দেখান ওপেনার লিটন। চট্টগ্রামে সেঞ্চুরির দেখা পান তিনি। নাঈমকে সঙ্গে নিয়ে তৃতীয় উইকেট জুটিতে ১৫৪ রান যোগ করেন তিনি। তাঁদের জুটি ভাঙে দলীয় ১৯৮ রানে। সুমনের বলে ব্যক্তিগত ১২৪ রান করে আউট হন লিটন।

Advertisment

অধিনায়ক নাসিরও ক্রিজে টিকতে পারলেন না বেশিক্ষণ। দলীয় ২৩৮ রানে আউট হন আরিফুলও। ২৩৮ রানে ৫ম উইকেটের পতন হলে হাল ধরেন নাঈম ও তানভীর হায়দার। ব্যক্তিগত ২২৯ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন নাঈম। দুই ব্যাটসম্যান মিলে গড়েন ৯৬ রানের জুটি। ব্যক্তিগত ১২৪ করে নাঈম ও ৫২ রান করে তানভীর তৃতীয় দিন শেষ করে রংপুর।

অন্যদিকে খুলনায় টায়ার ১ এর আরেক ম্যাচে খুলনাকে টার্গেট দিয়েছে রাজশাহী। তৃতীয় তিনে ব্যাট হাতে ফিফটি করেন নুরুল হাসান। ২৫০ রানে ৯ উইকেটের পতন ঘটলে শেষ উইকেটে জুটি গড়েন নুরুল ও আল আমিন হোসেন মিলে। সেঞ্চুরির দিকেও এগোচ্ছিলেন নুরুল। কিন্তু তাকে থেকে যেতে হয় অপরাজিত ৯৭ রান করে।

ফলে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি রাজশাহীর। দলীয় ২৮ রানে তিন উইকেট নেই তাঁদের। প্রতিরোধ গড়ে তোলেন মুশফিক ও শান্ত মিলে। দুই ব্যাটসম্যান মিলে ৮৪ রানের জুটি গড়েন। ফিফটি পান শান্ত। ব্যক্তিগত ৫৭ রান করে আউট হন শান্ত। তার বিদায়ের পর আউট হন মুশফিকও। ব্যক্তিগত ৪৪ রান করে রাজ্জাকের বলে আউট হন তিনি।

রাজ্জাক ও আল আমিনের বলে দিশেহারা হয়ে পড়ে রাজশাহীর ব্যাটসম্যানরা। সানজামুল কিছুটা চেষ্টা করলেও ১৭০ রানে ইনিংস থামে রাজশাহীর। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় খুলনা। দলীয় চার রানেই ওপেনার এনামুল আউট হন। রাজশাহীকে উইকেট এনে দেন শফিউল। চতুর্থ দিনে এ ম্যাচ জিততে খুলনার প্রয়োজন আরও ১০৮ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

টায়ার ১: খুলনা বনাম রাজশাহী

রাজশাহী (১ম ইনিংস) ২৬১ (জুনায়েদ ৫১, ফরহাদ ৪৫, ফরহাদ ৪১: মিরাজ ৪-৩৮)

খুলনা (১ম ইনিংস) ৩০৯ (নুরুল ৯৭*, ইমরুল ৯৩: শফিউল ৩-৫৫)

রাজশাহী (২য় ইনিংস) ১৭০ (শান্ত ৫৭, মুশফিক ৪৪: আল আমিন ৪-১৭)

খুলনা (২য় ইনিংস) ১৫-১ (ইমরুল ১১, এনামুল ৪: শফিউল ১-১১)

টায়ার ১: রংপুর বনাম ঢাকা বিভাগ

ঢাকা ৫৫৬-৮ (সাইফ ২২০, রনি ৬৫: সঞ্জিত ৩-৮৯

রংপুর ৩৩৪-৫ (নাঈম ১২৪*, লিটন ১২২: সুমন ২-৭০