ব্যাটিং করতে অনেক কষ্ট হচ্ছিল, বুঝতে দেইনি : তামিম

চোট নিয়ে খেলতে খেলতে অনেক বেলা হল। এবার গুরুত্বপূর্ণ খেলা রেখে তামিম ইকবালকে বেছে নিতে হচ্ছে বিশ্রামের একমাত্র পথ। হাঁটুর চোটে ভোগা ওয়ানডে অধিনায়ক জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ শেষে জানালেন, বর্তমান চোট সারাতে বিশ্রাম কেন এত গুরুত্বপূর্ণ।

মাশরাফিকে ছাড়িয়ে সবচেয়ে বেশি শূন্যের রেকর্ড গড়লেন তামিম -

Advertisment

সামনে টি-টোয়েন্টি সিরিজ থাকলেও তামিম দেশে ফিরছেন ওয়ানডে শেষ করে। একমাত্র টেস্টে খেলতে পারেননি। ওয়ানডে খেলেছেন পায়ে টেপ বেঁধে। রীতিমত সংগ্রাম করে ব্যাটিং করেছেন, আবার শেষ ওয়ানডেতে হাঁকিয়েছেন একটি শতকও।

তামিমের ব্যাটিং দেখে মনেই হয়নি ব্যাট করতে এত দক্ষযজ্ঞ করতে হচ্ছে। সিরিজ শেষে তিনি জানালেন, ৮ সপ্তাহের বিশ্রামে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই ফিট হয়ে উঠতে পারবেন। তবে বিশ্রাম না নিলে ৬ থেকে ৮ মাসের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে পড়ার ঝুঁকিতে পড়তে হবে!

তামিম বলেন, ‘ইনজুরি এমন একটা জিনিস, আমি খেলা চালিয়ে যেতে পারব। কিন্তু একবার চোট বেড়ে গেলে তখন হয়তো ৬-৮ মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে। মনে হয় না এই ঝুঁকি নেয়ার দরকার আছে। তাই আমি যদি ৮-১০ সপ্তাহ রিহ্যাব করি তাহলে বিশ্বকাপের আগে ফিট হয়ে উঠতে পারব।’

তামিমের হাঁটুর এই চোট পুরনো হলেও নতুন করে বাঁধিয়েছেন গত মাসে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) খেলার সময়। এই চোটের কারণে প্রিমিয়ার লিগের সুপার লিগেও অংশ নিতে পারেননি তিনি। এরপর দলের সাথে জিম্বাবুয়ে পাড়ি জমালেও খেলতে পারেননি টেস্টে। ওয়ানডেতে মানিয়ে নিয়ে খেললেও কষ্ট হচ্ছিল, জানালেন নিজের মুখেই।

‘আমি হয়ত বুঝতে দেইনি। কিন্তু আমার অনেক কষ্ট হচ্ছিল। পায়ে অনেক টেপ লাগানো ছিল।’– বলেন তামিম।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।