ব্যাটে-বলে পুরনো আশরাফুল

0
7206

ফিক্সিং কেলেঙ্কারির কারণে হারিয়ে যেতে বসেছিলেন। দীর্ঘদিন ক্রিকেট থেকে দূরে থাকার পর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে অবশেষে ফিরেছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। তারপরও পারফরমেন্স কেন জানি হচ্ছিল না আশরাফুলের মতো।

Advertisment

তবে অবশেষে দেখা মিলল পুরনো আশরাফুলের। চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগে ক্রমশ অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠছেন তিনি। প্রথম রাউন্ডে সেঞ্চুরির পর দারুণ খেলছেন চলমান রাউন্ডেও।

১৯তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের চলমান রাউন্ডে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আশরাফুলের দল ঢাকা মেট্রো মোকাবেলা করছে স্বাগতিক চট্টগ্রাম বিভাগকে। শনিবার দুর্দান্ত অর্ধ-শতক হাঁকানোর পর বুধবার বল হাতেও চমক দেখিয়েছেন আশরাফুল।

আগেরদিন আশরাফুলের ব্যাটে ভর করে ৯ উইকেটে ৩৬৯ রান সংগ্রহ করে ইনিংস ঘোষণা করে ঢাকা মেট্রো। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ২১৬ রান সংগ্রহ করতে পেরেছে চট্টগ্রাম বিভাগ, তাতেই শেষ হয়েছে তৃতীয় দিনের খেলা। বল হাতে চমক দেখিয়ে মোহাম্মদ আশরাফুল একাই শিকার করেছেন তিন উইকেট।

দেশের ক্রিকেটের উত্থানের পেছনে বড় অবদান যে কয়েকজন ক্রিকেটারের, তাদের অন্যতম একজন মোহাম্মদ আশরাফুল। দেশের ক্রিকেটের একসময়ের সবচেয়ে বড় তারকা ছিলেন তিনি। কিন্তু ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে নিজেকে জড়িয়ে সমালোচনা কুড়নোর পাশাপাশি ক্রিকেট মাঠ থেকেও হয়েছেন বিচ্ছিন্ন।

তবে তাতেও যেন জনপ্রিয়তা কমেনি আশরাফুলের। এখনও তার ভক্তরা আশরাফুলকে মাঠে দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেন। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরে আশরাফুলও দিচ্ছেন সমর্থকদের আস্থার প্রতিদান।

২০০১ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ দিয়ে বাংলাদেশ দলের হয়ে অভিষেক হয় মোহাম্মদ আশরাফুলের। নিষেধাজ্ঞার আগ পর্যন্ত ছিলেন দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়েই। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ৬১টি টেস্ট, ১৭৭টি ওয়ানডে ও ২৩টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন আশরাফুল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রয়েছে তার ৯টি শতক ও ৩০টি অর্ধ-শতক। বেশ কিছুদিন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন তারকা এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম