Scores

ব্রডের ঘটনায় উঠে এল মাশরাফি আর বাংলাদেশের নাম

মাঠে দোষ করেছেন স্টুয়ার্ট ব্রড, আইসিসির হয়ে তাকে সাজা দিয়েছেন ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড। মজার ব্যাপার হল, ক্রিস ব্রড স্টুয়ার্ট ব্রডেরই বাবা। ছেলেকে বাবার শাস্তি দেওয়ার এমন ঘটনা মনে করিয়ে দিচ্ছে ক্রিকেট মাঠে ছেলেকে আম্পায়ার বাবার আউট দেওয়ার ঘটনাকে। এই ঘটনায় সরাসরি জড়িয়ে আছে বাংলাদেশের নামও।

ব্রডের ঘটনায় উঠে এল মাশরাফি আর বাংলাদেশের নাম
বাবা সুভাষ মোদি ও ছেলে হিতেশ মোদি। ফাইল ছবি

স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও সফরকারী পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যানচেস্টার টেস্টে ইয়াসির শাহকে আউট করে অপ্রীতিকর ভাষা ব্যবহার করেছিলেন স্টুয়ার্ট ব্রড। ম্যাচ শেষে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন অন ফিল্ড আম্পায়ারদ্বয়। এরই ধারাবাহিকতায় স্টুয়ার্ট ব্রডকে ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানার পাশাপাশি নামের পাশে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট যুক্ত করে আইসিসি, যা গত ২৪ মাসে ইংলিশ পেসারের তৃতীয় ডিমেরিট পয়েন্ট। আইসিসির হয়ে শাস্তি নিরূপণের কাজ করেছেন ম্যাচের রেফারি ক্রিস ব্রড, যিনি স্টুয়ার্ট ব্রডেরই বাবা।






ছেলেকে শাস্তি দেওয়ার ঘটনা এবারই প্রথম হলেও ছাড় না দেওয়ার ঘটনা প্রথম নয়। অতীতে ছেলেকে আউট দেওয়ার ঘটনা দেখেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সেদিনও ছেলেকে একচুল ছাড় দেননি এক বাবা।

Also Read - 'ভুয়া অনুসরণকারীদের' শীর্ষ তালিকায় কোহলি


২০০৬ সালে নাইরোবিতে স্বাগতিক কেনিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামে কেনিয়া। কেনিয়া জাতীয় দলের হয়ে তখন নিয়মিতই খেলতেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান হিতেশ মোদি। পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে ব্যাট করতে নেমে হিতেশ সাজঘরে ফেরেন ১ রান করে, মাশরাফি বিন মুর্তজার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে।





মাশরাফির আবেদনে নন-স্ট্রাইকিং প্রান্তে থাকা অন ফিল্ড আম্পায়ার ইতিবাচক সাড়া দিতে দেরি করেননি। সেই অন ফিল্ড আম্পায়ার ছিলেন কেনিয়ার সুভাষ মোদি। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন। সুভাষ হিতেশেরই বাবা!

সম্প্রতি ব্রড পরিবারের বাবা-ছেলের ঘটনা মোদি পরিবারের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছে। ছেলে হিতেশ এখন থাকেন ইংল্যান্ডে। ইংল্যান্ডসহ পুরো ক্রিকেট বিশ্বেই হইচই স্টুয়ার্ট ব্রডকে ক্রিস ব্রডের দেওয়া শাস্তির ঘটনা নিয়ে। ইংল্যান্ড থেকে হিতেশ জানান, ‘এটা খুব সাধারণ ব্যাপার। তারা দুজনই পেশাদার এবং নিজেদের জায়গা থেকে নিজেদের কাজ করতে দেওয়া হয়েছে। স্টুয়ার্ট ব্রড দারুণ ক্রিকেটার, সম্প্রতি টেস্টের ৫০০তম উইকেট পেয়েছে। মাঠে একটু আবেগ কাজ করেই। ২৪ মাসের মধ্যে ৩টি ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়ে বসায় আমি তাকে একটু মাথা ঠাণ্ডা রেখে খেলতে বলব!’

ব্রডের ঘটনায় উঠে এল মাশরাফি আর বাংলাদেশের নাম
৩-০ ব্যবধানে সিরিজটি জিতেছিল বাংলাদেশ। ফাইল ছবি

বাবার হাত ধরে এসেছে শাস্তির বার্তা। স্টুয়ার্ট ব্রডের মন খারাপ হয়েছে কি না জানা যায়নি। তবে রসিকতা করে জানিয়েছেন, আগামী ক্রিসমাসে বাবাকে উপহার দেবেন না। হিতেশ মোদির কি মন খারাপ হয়েছিল, যখন বাবা তার বিরুদ্ধে করা এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে সাড়া দিয়েছিলেন?

হিতেশ বলেন, ‘সত্যি বলতে প্রথমে আমার মন খারাপ হয়েছিল। এরপর টিভিতে দেখলাম আমি ঠিক স্ট্যাম্প বরাবর দাঁড়িয়ে ছিলাম। তাই বাবা আউট দেওয়ার কারণে আর মন খারাপ ছিল না, মন খারাপ ছিল আমি নিজের দোষে আউট হয়ে গিয়েছিলাম দেখে।’

ম্যাচটি ছিল ইতিহাসের ২৪০৩তম ওয়ানডে। বাংলাদেশের ২ উইকেটে জেতা ম্যাচে মাশরাফিই পেয়েছিলেন ম্যাচসেরার খেতাব। ৫৩ রানের খরচায় শিকার করেছিলেন ৩ উইকেট। তার চেয়েও নিয়ন্ত্রিত ছিলেন সৈয়দ রাসেল, ৪ উইকেট তুলেছিলেন ২২ রানের খরচায়। তবে ১৮৫ রানের ছোট লক্ষ্যে নামা টাইগাররা দ্রুত উইকেট হারিয়ে বসলে ব্যাট হাতে ৫৩ বলে ৪৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দেশকে জয় এনে দিয়েছিলেন মাশরাফি। ম্যাচে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ স্কোরারও ছিলেন তিনি।

পাঠকরা অবাক হবেন জেনে, ২০০৬ সালের ১৩ আগস্ট মাঠে গড়ানো ঐ ম্যাচটির ঠিক ১৪ বছর পূর্তি হবে বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট)!

হিতেশকে মাশরাফির এলবিডব্লিউ করার ভিডিও দেখুন-

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

Related Articles

নিউজিল্যান্ডে ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

জোন্সকে বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন ব্রেট লি

বাংলাদেশ গাইডলাইন না মানলে স্থগিত হবে সিরিজ : এসএলসি

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সিদ্ধান্তে রশিদ খানদের স্বপ্নভঙ্গ

‘বাংলাদেশিরা বাংলাদেশ থেকে শ্রীলঙ্কায় নিরাপদে থাকবে’