Scores

ব্রিটিশ হিসেবে আইপিএলে খেলার বিষয়ে মুখ খুললেন আমির

মোহাম্মদ আমির শুধু পাকিস্তানেরই অন্যতম সেরা পেসার ছিলেন না, তার সেরা সময়ে বিশ্বেরই অন্যতম সেরা ছিলেন। ফিক্সিং কাণ্ডে সাজা ভোগের পর নানা চরাই-উতরাই পার করে দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছিলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। যদিও আমিরের ফেরাটা সুখকর হয়নি।

আমিরকে ফেরানোর দাবিতে উত্তাল টুইটার
জাতীয় দলে ফেরার ক্ষেত্রে কঠিন সব শর্ত জুড়ে দিয়েছেন আমির। ফাইল ছবি

বোর্ড, কোচিং প্যানেল ও টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে বনিবনা না হওয়ায় গত ডিসেম্বরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন আমির। এরপর একাধিকবার জানিয়েছেন, পাকিস্তান দলের বর্তমান ম্যানেজমেন্ট বদলানো না হলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার কথা ভাববেন না। মিসবাহ উল হকের নেতৃত্বাধীন কোচিং স্টাফে সহসা পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই। তাই আমিরেরও আর অবসর ভেঙে এখন ফেরা হচ্ছে না, এ কথা বলাই যায়।

তবে আমিরের মত বোলারকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেখতে না পেয়ে হতাশ তার সমর্থকদের বড় অংশ। আমিরের স্ত্রী আবার ইংল্যান্ডের নাগরিক। আমিরও এখন সেখানেই থিতু হয়েছেন। পাকিস্তানিরা আইপিএলে অংশ নিতে না পারলেও আমিরের আছে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব নিয়ে আইপিএলে খেলার সুযোগ।

Also Read - জুলাই মাসে মাঠে গড়াবে এলপিএল


আমির কি সেই সুযোগ নেবেন? এমন প্রশ্নের জবাবে সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে মুখ খুলেছেন তিনি।

আমির বলেন, ‘ইংল্যান্ডে থাকার মত অনির্দিষ্টকালের ছুটি এখন আমার আছে। এখানেও আমি ক্রিকেট উপভোগ করে যাচ্ছি, আর পরিকল্পনা করছি আরও ৬ থেকে ৭ বছর খেলার। তাই দেখা যাক কীভাবে আগানো যায়।’

সরাসরি স্বীকারোক্তি না দিলেও আমিরের কথায় অনেকটাই স্পষ্ট, ইংল্যান্ডের নাগরিক হয়ে গেলে তিনি আইপিএলে খেলার সুযোগ মুঠোয় ভরতে চাইবেন। তা আরও স্পষ্ট হল তার পরবর্তী কথায়।

আমির বলেন, ‘আমার সন্তানেরা ইংল্যান্ডেই বেড়ে উঠবে। তাদের পড়াশোনাও এখানেই চালিয়ে যাবে। তাই কোনো সন্দেহ নেই, ইংল্যান্ডে আমি অনেক বেশি সময় কাটাতে যাচ্ছি।’

আকারে-ইঙ্গিতে আমির হয়ত ব্রিটিশ নাগরিকত্ব পাওয়ার বিষয়টিকেই বুঝিয়েছেন, যা পেয়ে গেলে আইপিএলের মত বড় আসরে অংশ নিতে বাধা থাকবে না তার!

Related Articles

টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে দুই ফাইনাল, একটি বাংলাদেশে

‘৩২’ বছরেই ক্রিকেটকে বিদায় বললেন জার্ভিস

ফাইনালের একাদশ ঘোষণা করল ভারত

বিপিএলের চোটে শঙ্কায় স্মিথের বিশ্বকাপ স্বপ্ন

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালকে ঘিরে অনিশ্চয়তা