বয়স নিয়ে আলোচনার জবাব দিয়েছেন নাঈম

0
3543

সম্প্রতি উইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে অভিষেক হয়েছে ১৮ ছুঁই ছুঁই নাঈম হাসানের। প্রথম টেস্টেই নজর কেড়েছেন এই স্পিন অলরাউন্ডার। এদিকে নাঈমের বয়স নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানান মন্তব্য এসেছে। যার জবাব দিয়েছেন নাঈম।

নাঈম হাসানের অভিষেক

গত বছরের ৩ জানুয়ারি বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হয় নাঈম হাসানের। এপর্যন্ত ১৬টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন নাঈম। সর্বশেষ জাতীয় ক্রিকেট লিগে ছিলেন সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক। এর পূর্বে খেলেছিলেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলে, এরপর খেলেছেন বাংলাদেশ এ’ দলের হয়েও। ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের সুবাদে জায়গা পান বাংলাদেশ টেস্ট স্কোয়াডে।

উইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে চার স্পিনার নিয়ে মাঠে নামে টাইগাররা। সাকিব আল হাসান, তাইজুল ইসলাম, মেহেদি হাসান মিরাজের সাথে চতুর্থ স্পিনার ছিলেন নাঈম হাসান। অভিষেক ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে ২৬ রান এরপর বল হাতে ৫ উইকেট নিয়ে সবার নজরে পড়েন নাঈম। এরপর আলোচনায় আসে এই স্পিনারের বয়সের বিষয়টি। যা চোখে পড়েছিলও নাঈমের। সম্প্রতি জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এই প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন নাঈম।

Advertisment

তিনি  বলেন, ‘ফেসবুকে অনেকে আমার বয়স নিয়ে বিভিন্ন ধরনের কথা বলেছেন। কষ্টও পেয়েছি একটু। যা হোক, সবার প্রশ্নের উত্তরে আমি এটা বলতে চাই, আমাকে পাঁচ বছরের আগে স্কুলে ভর্তি করা হয়েছিল, নার্সারি-কেজি এসব না পড়িয়ে সরাসরি প্রথম শ্রেণিতে। আমি যখন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলি, তখন আমার বয়স ১৭। তখনই আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছি। এখন আমার আঠারো বছর হতে কয়েক দিন বাকি। ‘

উল্লেখ্য, নাঈমের বর্তমান বয়স ১৭ বছর ৩৬০ দিন। ডিসেম্বরের ২ তারিখ এই তরুণের জন্মদিন। পূর্ণ হবে ১৮ বছর। সব ঠিক থাকলে জন্মদিনের দিন মাঠেই থাকবেন নাঈম। কেননা ৩০ নভেম্বর থেকে ঢাকার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে বাংলাদেশ-উইন্ডিজ দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

[আরও পড়ুনঃ  কমনওয়েলথ গেমসে ফিরছে ক্রিকেট!]