‘ভবিষ্যতে এমন অনেক ইনিংস খেলতে চাই’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ১৪৪ রানের অসাধারণ ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলেছেন বাংলাদেশ দলের অভিজ্ঞ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। লঙ্কানদের বিপক্ষে এই ইনিংসটিকে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস হিসেবে দেখছেন তিনি। ভবিষ্যতে আরও ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলতে চান মুশফিক।

এমন ইনিংস আরও খেলতে চান মুশফিক

টেস্ট, টি-টোয়েন্টি এবং সর্বশেষ ওয়ানডে, সবকটি ফরম্যাটেই নিজের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস গুলো খেলেছেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। টেস্টে ডাবল শতক, নিদাহাস ট্রফি নিজের সর্বোচ্চ টি-টোয়েন্টি ইনিংস এবং এশিয়া কাপে ওয়ানডেতে ক্যারিয়ার সেরা ১৪৪ রানের ইনিংস। প্রথম ম্যাচে লাসিথ মালিঙ্গার বোলিংয়ে যখন দিশেহারা বাংলাদেশের টপ অর্ডার সেই সাথে যুক্ত হয়েছিল তামিমের চোট।

তখন পুরো দলের দায়িত্ব এসে পড়ে মুশফিকের কাঁধেই। দলীয় ২৬১ রানের মধ্যে ১৪৪ রানই এসেছে তার ব্যাট থেকে। পাঁজরে ব্যথা নিয়ে এমন ইনিংস খেলা চট্টিখানি কথা নয়। ম্যাচের পরের দিন মিডিয়ার মুখোমুখি হন মুশফিক। সেখানে জানান, ভবিষ্যতে আরও ভালো ইনিংস খেলতে চান তিনি।

Also Read - চারদিনের ম্যাচে আশরাফুলের সাথে খেলবেন কায়েস-সৌম্যরা

এই মুহূর্তে এটিকে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস বলাই যায়। অনেকেই তাই বলছে। ভবিষ্যতে এর চেয়েও ভালো ইনিংস খেলতে পারি। এখানে খুব গরম। দৌড়ে ২/৩ রান নেওয়া খুব কঠিন ছিল।  তবে এখন পর্যন্ত যদি বলেন, এটাই আমার ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিং।”

ক্যারিয়ারে অনেকবারই দলের জয়ে ব্যাট হাতে অবদান রাখতে দেখা গিয়েছে মুশফিককে। ব্যাট হাতে কখনো ছোট কিংবা কখনো বড় অবদান রেখেছেন দলের এই অভিজ্ঞ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। তবে ঠিক কয়টি ম্যাচ জিতিয়েছেন সেটির হিসাব নেই মিস্টার ডিপেন্ডেবল খ্যাত মুশফিক। সেসব হিসাব না করে সামনে আরও ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলতে চান তিনি।

“সত্যি কথা বলতে আমার কাছে কোনো হিসাব নেই। কখনো হিসাবও করতে চাই না। আমি চাই সামনে যেন এর চেয়ে বেশি ম্যাচ জেতাতে পারি। যাতে কোনোভাবেই আর হিসাব করতে না হয়। চেষ্টা থাকবে ভবিষ্যতে দলের জয়ে বেশির ভাগ অবদানই যেন রাখতে পারি।”

আরও পড়ুনঃ ‘আমি ভীষণ হতাশ’

Related Articles

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি

‘বিশ্ব ক্রিকেটে সম্মানজনক জায়গা আদায় করেছে বাংলাদেশ’