Scores

ভারতীয়দের ‘ইংরেজি’ নিয়ে রসিকতা করে বিপাকে মরগান-বাটলার

৯ বছর আগে বর্ণ বৈষম্যমূলক টুইটের কারণে নিষিদ্ধ হয়েছেন ইংল্যান্ডের পেসার রবিনসন। এবার আরও ক্রিকেটারদের পুরনো টুইট নিয়ে তদন্ত করছে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। এতে বিপদে পড়তে পারেন ইংল্যান্ড দলের দুই তারকা ক্রিকেটার।

বিশ্ব একাদশ থেকে ছিটকে পড়লেন মরগান, অধিনায়ক আফ্রিদি
ছবি- গেটি ইমেজেস

রবিনসনের কাণ্ডের পর নাড়াচাড়া দিয়ে বসেছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। অন্যায়ের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতিতে বিশ্বাসী এই ক্রিকেট বোর্ড। অন্যায় করলে যে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না সেটির প্রমাণ বেশ কয়েকবারই দিয়েছে ইসিবি। সম্প্রতি সময়ে রবিনসনকে শাস্তি দিয়ে ক্রিকেট বিশ্বে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

রবিনসনের পুরনো টুইট নিয়ে তদন্তের সময় ইসিবি জানিয়েছিল আরও ক্রিকেটার এমন ঘটনার সঙ্গে জড়িয়েছেন কি না তা খতিয়ে দেখবে তাঁরা। এবার পুরনো টুইট নিয়ে বিপদে পড়তে পারেন ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক এউইন মরগান ও জস বাটলার। মূলত ২০১৮ সালে ৫৩ বলে ৯৪ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেছিল বাটলার।

Also Read - ফিরছেন বোল্ট, শঙ্কায় উইলিয়ামসন


কমেন্ট সেকশনে ভারতীয়রা ‘স্যার’ বলে সম্বোধন করলেও সেটি নিয়ে হাস্যরস করেছিলেন মরগান, বাটলার। এই তালিকায় আছেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটার ব্রেন্ডন ম্যাককালামও। ভারতীয়দের ইংরেজি বলার ধরণ নিয়ে রসিকতা করা নতুন কিছু নয়। তাঁদের কথার ধরণ নকল করে বাটলারের ওই ইনিংসের পর মরগান টুইট করেন, ‘ইউ আর মাই ফেভারিট ব্যাটসম্যান বাটলার।’

সেটির সূত্র ধরেই কলকাতা নাইট রাইডার্সের হেড কোচ ম্যাককালাম ভারতীয়দের ইংরেজি বলার ধরণ নিয়ে রসিকতা করে বলেন, “জস বাটলার স্যার,  ইউ প্লে ভেরি গুড ওপেনিং ব্যাট।”

মরগানের টুইটটি ২০১৮ সালের হলেও বাটলারের টুইটটি ছিল এর আগের বছরের। সাধারণত অনেক ভারতীয়’ই কমেন্ট সেকশনে ভুল ইংরেজি লিখে থাকেন। সেটি নিয়েই ঠাট্টা করে বাটলার টুইট করেন, ‘স্যার, দারুণ ডাবল ১০০। দারুণ সুন্দর ব্যাটিং। আপনি আগুনে ফর্মে আছেন (ওয়েল ডান অন ডাবল ১০০ ম্যাচ। বিউটি ব্যাটিং। ইউ আর অন ফায়ার স্যার)।’

ইংরেজি দৈনিক ‘দ্য টেলিগ্রাফ’ একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেখানে তাঁরা জানায়, ইসিবির তদন্ত শেষেই এই দুই ব্যাটসম্যানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবে বোর্ড। তবে সেক্ষেত্রে কেমন শাস্তি হতে পারে সেটিই দেখার বিষয়। তবে এই নিয়ে ভারতীয়দের মাঝে নতুন করে ক্ষোভ দেখা গিয়েছে। টুইটারে ভারতীয়দের ইংরেজি বলার ধরণ নিয়ে রসিকতা করায় সমলোচনার মুখে পড়েছেন মরগান ও বাটলার। যে কারণে পরবর্তীতে টুইটটি মুছে ফেলেছেন বাটলার।

Related Articles

একদিনের ক্রিকেটকে বিদায় বললেন কেভিন ও’ব্রায়েন

টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে দুই ফাইনাল, একটি বাংলাদেশে

‘৩২’ বছরেই ক্রিকেটকে বিদায় বললেন জার্ভিস

ফাইনালের একাদশ ঘোষণা করল ভারত

বিপিএলের চোটে শঙ্কায় স্মিথের বিশ্বকাপ স্বপ্ন