Scores

ভারতের তিন পেসারকে এত ভয় পেয়েছিলেন মিঠুন!

গত বছরের ইডেন টেস্টকে অনেক দিন মনে রাখবে বাংলাদেশ। যদিও গোলাপি বলের টেস্টটির কথা স্মরণ করলেই বুকে চিনচিনে ব্যথা হতে পারে! নিজেদের ইতিহাসের প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট খেলতে নেমে টাইগারদের যে অসহায় আত্মসমর্পণ ঘটেছিল, তা তো কম অস্বস্তিকর নয়!

ভারতের তিন পেসারকে এত ভয় পেয়েছিলেন মিঠুন!

নিজেদের প্রথম গোলাপি বলের টেস্টেই টস জিতে ব্যাটিং! ভারতের তিন পেস বোলার মোহাম্মদ শামি, ইশান্ত শর্মা ও উমেশ যাদবের অগ্নিঝরা বোলিংয়ে শুরু থেকেই কোণঠাসা বাংলাদেশ। ম্যাচের শেষ অবধি চলল তিন পেসারের এই তাণ্ডব। ১০৬ রানে গুটিয়ে যাওয়ার পর ভারতকে ৩৪৭ রান করতে দেখেই কার্যত ম্যাচ হেরে গেছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ইনিংসে ১৯৫ রানে গুটিয়ে যাওয়া যে নিছক আনুষ্ঠানিকতা ছিল!

Also Read - দর্শক নিয়ে চিন্তিত ব্রড মনোবিদের শরণাপন্ন






সেই ম্যাচে বোঝা গেছে, ভারত তাদের পেস বোলিংয়ের এই তিন রত্নকে কতটা শাণ দিয়েছে। বাংলাদেশের হয়ে দুই ইনিংসে যথাক্রমে ০ ও ৬ রান করা মিঠুন সেই টেস্টে বুঝতে পেরেছেন, বল হাতে প্রতিপক্ষ কতটা ভয়ংকর হতে পারে। তিনি এমন কঠিন বোলিং আর কখনোই খেলেননি!

বিডিক্রিকটাইমকে মিঠুনের অকপটে স্বীকারোক্তি-

‘সবসময় খেলতে কঠিন মনে হয় আমার কাছে এমন কোনো বোলার নেই। কিন্তু ইডেনে গোলাপি বলের যে ম্যাচটা হয়েছে, আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন বোলিং ছিল ঐ ম্যাচের তিন পেসার। তিন বোলারের বোলিংই কঠিন মনে হয়েছে।’






গোলাপি বলে বাংলাদেশের অভ্যস্ততা ছিল না। টেস্টের সূচি নির্ধারণের পর টাইগাররা অনুশীলনের সময়ও পেয়েছে কম। লাল বলের চেয়ে এই বলের ভিন্নতাই কি মিঠুনদের এত ভয় পাইয়ে দিয়েছিল?

মিঠুন বলেন, ‘বলের কারণেই বোধহয় এত কঠিন মনে হয়েছে। আমি জানি না ঠিক কী কারণে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

করোনা মুক্ত হলেন মাশরাফি

জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করলেন শান্ত

‘ফ্যান সাবস্ক্রিপশন’ চালু করল বিডিক্রিকটাইম

‘আমরা সবাই চাই মাঠে ফিরতে’

সাকিবের সাথে সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন তামিম