ভারত থেকে সরিয়ে নেয়া হতে পারে ২০২৩ বিশ্বকাপ!

0
1980

বিভিন্ন সময়ে দেখা গেছে, ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলকেই (আইসিসি) মেনে নিতে হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) কথা। কিন্তু এবার কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যদি বিসিসিআই পাওনা পরিশোধ না করে তাহলে পূর্বনির্ধারিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভারতে অনুষ্ঠিত হবে না বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ত্রয়োদশ আসর।

রিচার্ডসন

Advertisment

২০১৬ সালে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজিত হয়েছিল ভারতে। ফাইনালে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল উইন্ডিজ। টি-টোয়েন্টির মহাযজ্ঞের সেই আসরে রাজস্ব বাবদ ভারতের কাছে ২৩ মিলিয়ন ডলার পায় আইসিসি। তবে ৩ বছর কেটে গেলেও ভারত এখনো সেই অর্থ বুঝিয়ে দেয়নি আইসিসিকে। ফলে ভাটা পড়েছে দুই সংস্থার সম্পর্কে।

বুধবার (২৯ মে) ২০১৯ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের বেসরকারি টিভি চ্যানেল সময়কে দেয়া সাক্ষাৎকারে আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন নিশ্চিত করেছেন, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ভারত আইসিসির পাওনা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হলে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপের ভেন্যু সরিয়ে নেয়া হবে অন্য দেশে।

অবশ্য গত বছরও আইসিসি ভারতকে পাওনা পরিশোধের জন্য তাগাদা দিয়েছিল। তখনই অতি দ্রুত পাওনা পরিশোধ না করলে দেশটি থেকে ২০২৩ বিশ্বকাপ সরিয়ে নেয়ার হুশিয়ারি দিয়েছি ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। আইসিসির পরবর্তী সভায় যদি ভারত আইসিসিকে পাওনা অর্থ বুঝিয়ে না দেয় তাহলেই বিশ্বকাপ অন্য দেশে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেবে আইসিসি।

রিচার্ডসনের ভাষায়, ‘শেষ পর্যন্ত বিসিসিআই পাওনা পরিশোধ না করলে আমরা আগের সিদ্ধান্তে অনড় থাকবো। ২০২৩ বিশ্বকাপ সরিয়ে নেয়া হবে অন্য কোথাও। এটা অনেক টাকার ব্যাপার। আশা করছি, ভারত অতি দ্রুতই ইতিবাচক সাড়া দেবে।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।