‘ভারত ধন্যবাদ ও প্রশংসা প্রাপ্তির দাবিদার’

0
608

একজন ক্রিকেটার করোনাভাইরাসের আক্রান্ত এবং তার সাথে আরও ৮ জন ক্রিকেটারকে হারিয়েও বিকল্প খেলোয়াড়দের নিয়েই সফর সম্পন্ন করেছে ভারত। এই বিপদের ভেতরেও কোনো অজুহাত দেখিয়ে সফরের মাঝপথে দেশে ফিরে না যাওয়ায় ভারতকে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক, ক্রীড়ামন্ত্রীসহ সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটাররাও।

'ভারত ধন্যবাদ ও প্রশংসা প্রাপ্তির দাবিদার'

Advertisment

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের আগে করোনাভাইরাস পজিটিভ হন ক্রুনাল পান্ডিয়া। তার সংস্পর্শে এসেছিলেন আরও ৮ জন ক্রিকেটার। মোট এই ৯ জনকেই তাই যেতে হয়েছে আইসোলেশনে। তাদের ভেতর আছেন মূল একাদশের সূর্যকুমার যাদব, ইশান কিষাণ, পৃথ্বী শ, হার্দিক পান্ডিয়া, দীপক চাহারদের মতো ভরসার নাম। ফলে ভারতীয় স্কোয়াড হয়ে যায় নড়বড়ে।

একাদশ গঠন করতেই হিমশিম খেতে হয়েছে ভারত। শেষ পর্যন্ত নেট বোলারদের মূল দলের অন্তর্ভুক্ত করে এবং একজন নেট বোলারকে, সন্দ্বীপ ওয়ারিয়র, একাদশে নিয়ে খেলতে নামতে হয় সফরকারীদের। এত বিপদের মধ্যেও ভারত খেলা চালিয়ে যাওয়ায় তাদেরকে ক্রিকেটের দূত হিসেবে উল্লেখ করেছেন শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী নামাল রাজাপাকসা।

তিনি বলেন, ‘তরুণ শ্রীলঙ্কা দল দারুণভাবে সিরিজ জিতল। জয়ের জন্য তারা মরিয়া ছিল। ভারতীয় দলকে অনেক ধন্যবাদ যে তারা এখানে এসেছে এবং তাদের ওপর এত ঝড় যাওয়ার পরেও খেলা শেষ করেছে। তারা ক্রিকেটের দূত!’

শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকাও ভারত এবং দলটির কোচ ও অধিনায়ককে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন, ‘আমি বিসিসিআইকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, এই পরিস্থিতির ভেতরেও তারা খেলতে রাজি হয়েছেন। বিশেষ ধন্যবাদ জানাই রাহুল দ্রাবিড় ও শিখর ধাওয়ানকে।’

কঠিন পরিস্থিতিতেও ভারতীয় দল মাঝপথে সফর ত্যাগ না করায় প্রশংসা করেছেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ইরফান পাঠান। তিনি বলেন, ‘বেশ কয়েকজন মূল খেলোয়াড় ছাড়াই শ্রীলঙ্কা ভালো খেলে সিরিজ জিতেছে। তবে ভারতীয় দলকে সম্মান জানাচ্ছি, কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার পরেও তারা মাঝপথে শ্রীলঙ্কা ত্যাগ করেনি।’

ভারতের এই পেশাদারিত্ব প্রদর্শনের জন্য তাদেরকে সম্মান জানিয়েছেন সাবেক শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার ফারভিজ মাহারুফও। তার ভাষায়, ‘এত সমস্যার সাথে লড়াই করে খেলা চালিয়ে যাওয়ার জন্য ভারতীয় দলের প্রতি অনেক শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করছি।’

একই ভাষা ঝরেছে লঙ্কান ধারাভাষ্যকার রোশান আবেসিংহের মুখেও, ‘এই কোভিড পরিস্থিতির ভেতরেও ধাওয়ানের দল যেভাবে খেলেছে, তারা প্রশংসার দাবিদার। এই অবস্থায়ও তাদের শ্রীলঙ্কায় থেকে যাওয়া ও সিরিজ সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত সাধুবাদ জানানোর ও স্মরণ করার যোগ্য। ধন্যবাদ ভারত, তোমাদের আচরণের প্রশংসা করছে শ্রীলঙ্কা।’