SCORE

ভারত, নেপালের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ

প্রথমবারের মতো হুইল চেয়ার ক্রিকেটে ত্রিদেশীয় সিরিজ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আর এতে অংশ নিবে বাংলাদেশ, ভারত ও নেপাল।

নেপালে বসবে তিন জাতির এই টুর্নামেন্ট। আর এতে অংশ নিতে দেশ ছেড়েছে ২০ সদস্যের বাংলাদেশ দল। ১৪ জন ক্রিকেটার ও ৬ জন অফিশিয়াল ছিলেন এই দলে। আজ গিয়ে আগামীকালকেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

Also Read - একজন ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাস্টিকের গল্প

১৪ ডিসেম্বর নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক নেপালের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ১৫ ডিসেম্বর দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভারত। ১৬ ডিসেম্বর তিন জাতির এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে।

এই সফরে বাংলাদেশ দলের অধিনায়কের দায়িত্বে থাকবেন মোহাম্মদ মহসিন। সহ-অধিনায়ক হিসেবে থাকবেন নুর নাহিয়ান। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক ও এমপি নাইমুর রহমান দুর্জয় বাংলাদেশ হুইল চেয়ার ক্রিকেট দলের পুরো নেপাল সফরের পৃষ্ঠপোষকতায় আছেন।

উল্লেখ্য, এর আগে ভারতের বিপক্ষে তাদের মাটিতে তাজমহল ট্রফি জিতেছিল বাংলাদেশ। এছাড়া ২০১৭ সালে বাংলাদেশ ওয়ালটন ট্রফি জিতেছিল মহসিনবাহিনী।

[আরো পড়ুনঃ নিজের ক্যাচ মিসই সাকিবের কাঠগড়ায়

মঙ্গলবারের মহারণে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটসকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিপিএলের শিরোপা জিতেছে রংপুর অঞ্চলের প্রতিনিধিত্বকারী দল রংপুর রাইডার্স। ম্যাচে ঢাকার মূল প্রতিপক্ষ ছিলেন গেইল, যিনি ৬৯ বলে ১৪৬ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে একাই রীতিমতো হারিয়ে দিয়েছেন ঢাকাকে।যদিও ম্যাচের শুরুর দিকে এই গেইলের ক্যাচ তালুবন্দী করার সুযোগ মিস করেছিলেন সাকিব। ৩০ গজের ভেতরে গেইলের ব্যাট থেকে আসা জোরালো শট হাত থেকে ফসকে যায় সাকিবের। আর ঢাকার অধিনায়কের মতে, সেটিই ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছে ঢাকাকে। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে হারের কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে সাকিব বলেন, ‘আমার ক্যাচ মিস… যদি ওই সময় ক্যাচটা ধরে নিতে পারতাম, রানটা ১৩০-১৪০ এর বেশি হতো না। উইকেটটা ব্যাটিংয়ের জন্য অতো সহজ ছিলো না। আমাদের বিশ্বাস ছিলো, যদি ওরা ১৫০-১৬০ করে তাহলে সম্ভব হবে। কারণ ওদের বোলিং আক্রমণটা অতো ভীতিকর ছিলো না।’ ]

 

Related Articles

চমকে গেছেন তাঁরা দুজনও

এখনও মাশরাফির ফাইনালের আশা

বাংলাদেশের অসহায় আত্মসমর্পণ

এশিয়া কাপের দলে ইমরুল-সৌম্য!

মিরাজ-মাশরাফির দৃঢ়তায় বাংলাদেশের সম্মানজনক সংগ্রহ