ভালো উইকেটে না খেলায় ‘সাহস’ হারাচ্ছেন ব্যাটাররা

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ব্যর্থতার পেছনে বাংলাদেশের উইকেটকে দায়ী করছেন ক্রিকেট বোদ্ধারা। অনেকের মতে, মিরপুরের ধীর উইকেটে খেলার কারণেই বিশ্বকাপে এমন ভরাডুবি ঘটেছে বাংলাদেশের ব্যাটিং ইউনিটের। সেই দাবির সাথে একমত ২৫ বছর বয়সী ডানহাতি ব্যাটার ইয়াসির আলী চৌধুরীও।

আফিফ
বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ব্যাটিং ছিল ছবির মতোই।

ইয়াসিরের মতে, ব্যাটিংয়ের জন্য কঠিন এমন উইকেটে খেলার পর চার-ছক্কা হাঁকানোর সাহস হারিয়ে ফেলেন ব্যাটাররা, আর তা-ই ঘটেছে বিশ্বকাপে।

Advertisment

তিনি বলেন, ‘শুধুই মিরপুরের উইকেটের কথা বলব না। তবে উইকেট অবশ্যই দায়ী। সেই সাথে আমাদের মানসিক স্পেসটাও আছে। উইকেট বাজে আচরণ করলে আমরাও মানসিকভাবে ঐ স্পেসে থাকি না, মারার সাহস আসে না। সেজন্য বলব অবশ্যই উইকেট দায়ী।’

আসন্ন পাকিস্তান সিরিজের তিনটি টি-টোয়েন্টিই মিরপুরে। বারবার এক মাঠে খেলার কারণে বিসিবি সমালোচনা শুনছে অনেক আগে থেকেই। ইয়াসির জানালেন, জাতীয় ক্রিকেট লিগের ভেন্যুগুলোতে ছিল স্পোর্টিং উইকেট, যা তিনি দেখতে চান পাকিস্তান সিরিজেও।

ব্যাটিংয়ে নিয়ে প্রত্যাশা ছিল তার ধারেকাছে যেতে পারিনি বাশার -
ব্যাটিংয়ে নিয়ে যে প্রত্যাশা ছিল তার ধারেকাছেও যেতে পারেনি টাইগাররা।

তিনি বলেন, ‘আমার কাছে মনে হচ্ছে পাকিস্তান ট্রু উইকেটই থাকবে। বাকিটা দেখা যাক। এনসিএলে খুব ভালো উইকেট ছিল। ট্রু উইকেট ছিল।’

এখনও জাতীয় দলে অভিষেক না হলেও পাকিস্তান সিরিজে দরজা খুলতে পারে ইয়াসিরের জন্য। তিনিসহ দলের ভাবনায় যে তরুণরা আছেন, তাদের জন্য এই সিরিজকে বড় সুযোগ হিসেবে দেখছেন ইয়াসির।

তিনি বলেন, ‘আমাদের জন্য এটা অনেক বড় সুযোগ। দলে থাকি না থাকি, টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড় হিসেবে আমাদের কাজ করতে হবে। ছোট ছোট যেসব জায়গায় উন্নতি করা দরকার এসব নিয়েই কাজ করা হচ্ছে। যেমন রেঞ্জ হিটিং, ব্যাট সুইং- এসব।’

বিশ্বকাপের খেলা সরাসরি দেখতে ক্লিক করুন এখানে।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।