Scores

ভাষা ইস্যুতে গিবসকে একহাত নিলেন সুজন

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের দল সিলেট থান্ডারের হেড কোচ হয়ে বাংলাদেশে এসেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ক্রিকেটার হার্শেল গিবস। টুর্নামেন্ট চলাকালীন বিস্ফোরক এক মন্তব্য করে খবরের শিরোনাম হয়েছিলেন তিনি। গিবসের করা এমন মন্তব্য ভালভাবে নেননি খালেদ মাহমুদ সুজন।

শ্রীলঙ্কা সফরে সুজনই থাকছেন হেড কোচ

১২ ম্যাচে ১ জয়ের বিপরীতে ১১ হার। সবেমিলে রীতিমত বিধ্বস্ত হয়ে বিপিএল পর্ব শেষ করেছে সিলেট। এর আগে নিজেদের ঘরের মাঠে গিয়ে গণ্যমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বোমা ফাটিয়েছিলেন গিবস। জানিয়েছিলেন, বাংলাদেশ দলের অনেক ক্রিকেটারই ইংরেজি বোঝেন না! যার কারণে প্রভাব পড়েছে বাইশ গজে। সাফল্য পায়নি দল।

Also Read - বাংলাদেশকে পিসিবির নতুন প্রস্তাব


সে সময় গিবস জানান, ‘বিপিএলের মান খুব ভালো। ভালোমানের বিদেশি তারকারা খেলছে, কোচ এসেছে। তবে আপনাকে সেটা সামনে টেনে নেওয়ার কাজটা ঠিকঠাক করতে হবে। উদাহরণ হিসেবে আমার কথাই বলি, দলের অনেকেই ইংরেজি বোঝে না। আমি তাদের যেটা বলি সেটা তারা নিতে পারছেনা, প্রয়োগও হচ্ছেনা। এটা হতাশার, তাদের মাঠের পরিস্থিতি বুঝে খেলার সক্ষম হতে হবে।’

বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের সম্পর্কে গিবসের এমন মন্তব্য জাতীয় থেকে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন গিবসের সমস্যা হলে অন্য বিদেশিরা কিভাবে কোচিং করাচ্ছেন! তোপ দেগেছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক ও বিসিবির পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে গিবসকে একহাত নিয়েছেন সুজন।

যেখানে সুজন বলেছেন, ‘হার্শেল গিবস যেভাবে কথা বলেছেন সেটা একদমই ঠিক বলেননি। সিলেট দলে দুজন বাঙালি কোচ আছেন, ইমরান (সারোয়ার ইমরান) ভাই আছেন। তারা তো ইংরেজি বোঝেন। তাদের সঙ্গে যদি মতামত শেয়ার করা হত, তারা তো ক্রিকেটারদের বাংলায় বুঝিয়ে দিতে পারতেন।’

‘মোসাদ্দেক-মিঠুন তো জাতীয় দলে খেলছে। বিদেশি কোচদের সঙ্গে কথা বলেছে। ওরা তো বোঝে। হার্শেল এমন ইংলিশ বলেন না যেটা ওরা বুঝবে না। যোগাযোগের গ্যাপ তৈরি হলে কোচের দায়িত্বের মধ্যেই পড়ে যায় কিভাবে বোঝানো যায়। সেখানে যেহেতু কোচ আছেন তাদের মাধ্যমে করালে কাজটা সহজ হয়।’ সাথে আরো জানান তিনি।

গিবস ক্রিকেটার হিসেবে দুর্দান্ত থাকলেও তার কোচিং অভিজ্ঞতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সুজন, ‘হার্শেল গিবস দারুন একজন ক্রিকেটার ছিলেন। এ নিয়ে কোনো প্রশ্নই নেই। অসম্ভব ভালো একজন ক্রিকেটার যে অসম্ভব ভালো কোচও হবেন এমন ভাবনাটা কিন্তু ঠিক নয়। তার কোচিং ক্যারিয়ার আসলে কিছুই নেই। কিছুদিন আগেই কোচিংয়ে ঢুকেছেন। অবশ্যই তাঁর ক্রিকেটীয় অভিজ্ঞতা অনেক। কিন্তু খেলোয়াড় আর কোচিং অভিজ্ঞতা এক নয়।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

২০২৩ বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে আকবরদের

আমি সমালোচনা নিতে পারি: সুজন

সুজনকে সবচেয়ে বেশি সম্মান দেওয়া উচিত : পাপন

চার যুবাকে জাতীয় দলে চান সুজন

পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জিতলে অবাক হবেন না সুজন