Scores

ভিডিও: ঢাকার বিপক্ষে চিটাগংয়ের জয়ের মুহূর্ত

টুর্নামেন্টের শুরুতে চিটাগাং ভাইকিংস ও ঢাকা ডায়মাইটস উভয় দলই ছিল টানা জয়ের ধারায়। কিন্তু চট্টগ্রাম পর্বে তারা হারের বৃত্তে ঘুরতে থাকে। ঢাকায় দুই দলের প্রথম দেখায় জয় পেয়েছিল চিটাগাং ভাইকিংস। আজ চট্টগ্রামের মাটিতেও ১১ রানে জিতল ভাইকিংস।

 

 

টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ভাইকিংস অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। দলে দুই পরিবর্তন নিয়ে মাঠে চিটাগাং। আর ঢাকার দলে পরিবর্তন ছিল তিনটি।

Also Read - ঢাকাকে হারিয়ে প্লে-অফে চিটাগং ভাইকিংস


দেখেশুনে শুরু করে দুই ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ ও ক্যামেরন ডেলপোর্ট। কিন্তু ইনিংসটাকে বড় করতে পারেননি শাহজাদ। দলীয় ৪২ রানে সুনীল নারাইনের বলে স্ট্যাম্পিং আউট হয়ে ফিরে যান তিনি। ভালো শুরু করা ইয়াসির আলিও নিজের ইনিংসটাকে বড় করতে পারেননি। দলীয় ৮৮ ও নিজের ১৯ রানের আউট হয়ে যান তিনি। কিন্তু অপর প্রান্ত আগলে রেখে ৪৩ বলে অর্ধশতক তুলে নেন ক্যামেরন ডেলপোর্ট।

ডেলপোর্ট ও মুশফিক ৭৯ রানের ঝড়ো পার্টনারশিপ গড়েন। কিন্তু ইনিংসের শেষ ওভারে আন্দ্রে রাসেলের হ্যাটট্রিকে থমকে যায় ভাইকিংসের রান তোলার গতি। ক্যামেরন ডেলপোর্ট, মুশফিকুর রহিম ও দাসুন শানাকার উইকেট তুলে নিয়ে এবারের বিপিএল আসরের তৃতীয় হ্যাটট্রিকটি করেন রাসেল।

চারটি চার ও দুইটি ছয়ে ২৪ বলে ৪৩ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলেন ভাইকিংস কাপ্তান মুশফিক। ডেলপোর্ট আউট হওয়ার আগে করেন ৫৭ বলে ৭১ রান। তাঁর ইনিংসে ছিল পাঁচটি চার ও চারটি ছয়ের মার। ২০ ওভারে ভাইকিংস সংগ্রহ করে ১৭৪ রান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ঢাকা ডায়নামাইটস। রানের খাতা খোলার আগেই আবু জায়েদ রাহির বলে কট বিহাইন্ড হয়ে ফিরে যান ওপেনার সুনীল নারাইন। দ্রুত ফিরে যান মিজানুর রহমান ও রনি তালুকদার। ২৩ রানে ৩ উইকেট হারানোর উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহানকে নিয়ে ইনিংস মেরামতের কাজটা করেন ডায়নামাইটসের অধিনায়ক নিজেই। সোহান ২৩ বলে ৩৩ রান করে আউট হলে ঠিক ৫০ রানে ভাঙে সাকিব-সোহানের জুটি।

৭৩ রানে আবারো জোড়া পায় ডায়নামাইটস। সোহান এলবিডব্লিউ হওয়ার পরের বলেই রান আউট হয়ে ফিরে যান কাইরন পোলার্ড। স্কোরকার্ড বলছিল জিততে হলে এখনো শতাধিক রান প্রয়োজন ঢাকার। রাসেল ও সাকিব যখন টেনে যাচ্ছিলেন দলকে তখন ডেলপোর্টের বলে বোল্ড হয়ে যান রাসেল। কিন্তু আজকের দিনটা যে রাসেলের। ডেলপোর্টের বলটি নো বল। ফলে বোল্ড হলেও মাঠ ছাড়তে হয়নি রাসেলকে। পরে ২৩ বলে ৩৯ রান করে সেই ডেলপোর্টের হাতেই ক্যাচ দিয়ে ফেরেন রাসেল।

রাসেলের উইকেট হারিয়ে আবারো চাপে পড়ে যায় ঢাকা ডায়নামাইটস। ৫৩ রান করে যখন সাকিব আউট হলো তখন জয়ের জন্য ঢাকার প্রয়োজন ৯ বলে ২১ রান। ক্ষণে ক্ষণে রং বদলাতে থাকা ম্যাচে শেষ হাসিটা হাসে চিটাগাং ভাইকিংসই।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
চিটাগাং ভাইকিংস:- ১৭৪/৫
(মোহাম্মদ শাহজাদ ২১, ইয়াসির আলি ১৯, ক্যামেরন ডেলপোর্ট ৭১, মুশফিকুর রহিম ৪৩, সিকান্দার রাজা ৬*। আন্দ্রে রাসেল ৩/৩৮, সুনীল নারাইল ২/২০)

ঢাকা ডায়নামাইটস:- ১৬৩/৮ (মিজানুর ১১, সোহান ৩৩, সাকিব ৫৩, রাসেল ৩৯। ডেলপোর্ট ১/৩১, রাহি ৩/২৫, শানাকা ২/৩৪, নাইম ১/৩৭)

দেখুন ঢাকার বিপক্ষে চিটাগংয়ের জয়ের মুহূর্ত-

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

‘অনৈতিক প্রস্তাব’ দিয়ে নিষিদ্ধ বিপিএল কর্মকর্তা

চিটাগং ভাইকিংসের মালিকানা নিচ্ছেন না আকরাম খান ও আ জ ম নাছির

বিপিএলে থাকছে না চিটাগং ভাইকিংস

টি-টোয়েন্টির জন্য নির্বাচকদের ভাবনায় রাব্বি!

খালেদের বোলিং দেখে মুগ্ধ মরিসন