Scores

ভেঙে পড়ার আগে তামিমের কাছে ‘স্বপ্নের মত শুরু’

টস জিতে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের বোলিং করার সিদ্ধান্তই বলে দিচ্ছিলো- এই উইকেটে প্রথমে ব্যাট করা স্বাচ্ছন্দ্যের বিষয় নয়। অথচ তামিম ইকবালকে দেখে সেটি মনে হওয়ার সুযোগ কই! ইনিংসের শুরু থেকেই সাবলীলভাবে সামলাচ্ছিলেন কিউই পেসারদের। যেন এই মাঠ আর এই বোলারদের তামিম কতদিন ধরে চেনেন! 

তামিমের কাছে ‘স্বপ্নের মত শুরু’

দিনের খেলা শেষে দল ব্যাকফুটে থাকলেও আলোচনায় থাকল তামিমের দারুণ ব্যাটিং। নবম টেস্ট শতক তুলে নেওয়ার পর দলকে ভেঙে পড়তে দেখে তামিমের আক্ষেপ রইলো। তবে হ্যামিল্টনে তার ওমন মারকুটে শুরুটা নিজের কাছেই ‘স্বপ্নের মত’!

Also Read - অল্পের জন্য ‘ইতিহাস’ হাতছাড়া তামিমের

দিনের খেলা শেষে সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে তামিম বলেন, ‘এরকম একটা কন্ডিশনে এরকম শুরু পাওয়াটা স্বপ্নের মতোই ছিল আমাদের কাছে। টেস্টের প্রথম দিন, সবুজ উইকেট, দুই তিনটা উইকেট পড়ে যেতে পারত। যেটা আমাদের সাথে আগেও হয়েছে।’

তবে শুরুতে না পড়লেও উইকেট তো একটা সময় নিয়মিত বিরতিতে পড়েছে! অন্য ব্যাটসম্যানরা যেখানে ব্যাটে বল ছোঁয়াতেই মাঝেমাঝে হিমশিম খাচ্ছিলেন তামিম তখন খেলে যাচ্ছিলেন স্বাচ্ছন্দ্যে। তামিম জানান, এই ইনিংসের পেছনে থাকা তার ‘পরিস্কার’ পরিকল্পনার কথা। আরও জানান, উইকেটকে ব্যাটিং উপযোগীই মনে হচ্ছিল তার কাছে!

‘আমার মনে হয় আমার পরিকল্পনাটা ছিল খুবই পরিষ্কার। বল মারার জায়গায় থাকলে আমি মারব। আমি শুরুতে কিছু বাউন্ডারি পেয়ে যাই। আমার কাছে মনে হয়েছে উইকেট ব্যাট করার জন্য খুব ভালো ছিল।’– বলেন তামিম।

তামিমের দিনে উইকেটও অবশ্য ব্যাটিং উপযোগী হতে বাধ্য! তবে ঘুরেফিরে আসছে তার সতীর্থদের ব্যর্থতার কথা। তামিম বলেন, ‘সবার আলাদা আলাদা পরিকল্পনা থাকা উচিত। আমার একটা প্ল্যান ছিল, আরেকজনের আরেকটা থাকবে। …এত ভালো শুরুর পরও সেটা কাজে লাগাতে না পারায় আমরা হতাশ। আমি শুধু সেঞ্চুরি করেছি বলেই নয়, যারা ড্রেসিংরুমে ছিল তারাও কমবেশি হতাশ। কারণ একটা সময় আমরা জানতাম, আমরা ওদের চেয়ে এগিয়ে ছিলাম।’

Related Articles

স্মিথ-ওয়ার্নার, মাঠ ছাড় তোমরা!

উইলিয়ামসন-টেলরের দৃঢ়তায় উড়ে গেল ভারত

ভেন্যু কার্ডিফ বলেই টাইগাররা আত্মবিশ্বাসী

প্রস্তুতি ম্যাচকে হালকাভাবে নিচ্ছে না বাংলাদেশ

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ইংল্যান্ডের হয়ে ফিল্ডিংয়ে কলিংউড!