Scores

মঈন-রশিদ-সাকিবদের বোলিং তোপে ইংল্যান্ডের সহজ জয়

তিন ম্যাচের সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জস বাটলারের অর্ধশতক ও মঈন-লিভিংস্টোনের ক্যামিওতে ২০০ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড। ইংলিশদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে পাকিস্তান থামে ১৫৫ রানে। ৪৫ রানের জয়ে সিরিজে সমতা ফেরাল ইংল্যান্ড। ব্যাটে-বলে দারুণ খেলে ম্যাচসেরা হয়েছেন মঈন আলি।

মঈন-রশিদ-সাকিবদের বোলিং তোপে ইংল্যান্ডের সহজ জয়

লিডসের হেডিংলিতে টস জিতে ইংল্যান্ডকে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় পাকিস্তান। ১৮ রানের ভেতর জেসন রয় ও ডেভিড মালানকে সাজঘরে ফেরত পাঠান ইমাদ ওয়াসিম। তৃতীয় উইকেটে ৬৭ রানের জুটি গড়েন বাটলার ও মঈন আলি। ১৬ বলে ৩৬ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলে মোহাম্মদ হাসনাইনের শিকার হন মঈন।

Also Read - সবসময় টার্গেট ছিল খেলা যতটা ক্লোজ করতে পারি : সাকিব

অর্ধশতক হাঁকান বাটলার। ৫৯ রান করার পরে তিনিও হাসনাইনের শিকারে পরিণত হন। বাটলারের ৩৯ বলের ইনিংসটিতে ছিল ৭টি চার ও ২টি ছক্কা। আগের ম্যাচ সেঞ্চুরিয়ান লিয়াম লিভিংস্টোন ২৩ বলে ৩৮ রান করেন। তার ব্যাট থেকে আসে ২টি চার ও ৩টি ছক্কা। তারপরে কেবল জনি বেয়ারস্টো (১৩) ও ক্রিস জর্ডান (১৪) দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পারেন।

ব্যাটসম্যানদের সম্মিলিত অবদানে ১৯.৫ ওভারে ২০০ রান সংগ্রহ করে অলআউট হয় ইংল্যান্ড। পাকিস্তানের পক্ষে হাসনাইন ৩টি এবং ইমাদ ও রউফ ২টি করে উইকেট নেন।

বড় লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে পাকিস্তানকে ভালো শুরু এনে দেন বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। তবে আদিল রশিদের শিকার হয়ে বাবর ১৬ বলে ২২ রান ও সাকিব মাহমুদের শিকার হয়ে রিজওয়ান ২৯ বলে ৩৭ রান করে ফেরার পরেই পাকিস্তানের রান তোলার গতি কমে যায়। রশিদের বলে স্ট্যাম্পিং হয়ে শোয়েব মাকসুদও ১০ বলে ১৫ রান করে বিদায় নেন।

একই ওভারে মোহাম্মদ হাফিজ ও ফখর জামানের উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচ ইংল্যান্ডের দিকে হেলিয়ে দেন মঈন। আজম খান ফিরে যান ৪ বলে ১ রান করে। ইমাদ ও শাদাব খান কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন। ১৩ বলে ২০ রান করা ইমাদকে শিকার করেন টম কারান। শাহীন আফ্রিদিকে সাজঘরের পথ দেখিয়ে নিজের তৃতীয় উইকেট শিকার করেন সাকিব।

শাদাবের ২ চার ও ৩ ছক্কায় ২২ বলে অপরাজিত ৩৬ রানের ইনিংস পাকিস্তানকে জয় এনে দেওয়ার জন্য পর্যাপ্ত ছিল না। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৫৫ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। ইংল্যান্ড পায় ৪৫ রানের জয়। এই জয়ে সিরিজে সমতা ফেরাল ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের পক্ষে সাকিব ৩টি এবং মঈন ও রশিদ ২টি করে উইকেট শিকার করেন। ১টি করে উইকেট নেন টম ও পার্কিনসন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ইংল্যান্ড ২০০/১০ (১৯.৫ ওভার)
বাটলার ৫৯, লিভিংস্টোন ৩৮, মঈন ৩৬;
হাসনাইন ৩/৫১, ইমাদ ২/৩৭, রউফ ২/৪৮।

পাকিস্তান ১৫৫/৯ (২০ ওভার)
রিজওয়ান ৩৭, শাদাব ৩৬*, বাবর ২২, ইমাদ ২০;
সাকিব ৩/৩৩, রশিদ ২/৩০, মঈন ২/৩২।

ইংল্যান্ড ৪৫ রানে জয়ী।

Related Articles

বাংলাদেশ সফর থেকে ছিটকে গেলেন ফিঞ্চ

অস্ট্রেলিয়াকে ধরাশায়ী করে সমতায় ফিরল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

বাভুমা-রিজার ব্যাটে হোয়াইটওয়াশ আয়ারল্যান্ড

লঙ্কান ক্রিকেটারদের ফেসবুক-টুইটার বয়কটের পরামর্শ আর্থারের

চোটের কবলে কোহলির দল, কপাল খুলল সূর্য-পৃথ্বীর