Scores

মোসাদ্দেকের কণ্ঠে ড্রেসিংরুমের মজার গল্প

ক্রিকেটারদের ড্রেসিংরুমের গল্প শুনতে উন্মুখ হয়ে থাকেন সমর্থকরা। তবে ব্যস্ত জীবন মাড়িয়ে সমর্থকদের এমন আবদার পূরণের সুযোগ কই? করোনাভাইরাসে সৃষ্ট অচলাবস্থা যেন সেই সুযোগ করে দিয়েছে।

রিয়াদ ভাইয়ের রাগকে সবাই ভয় পায় মোসাদ্দেক

খেলা না থাকলেও ক্রিকেটাররা এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন গণমাধ্যমের সাথে। অনলাইন সুবিধা কাজে লাগিয়ে সমর্থকদের নানা জানা-অজানা উত্তর জানাচ্ছেন নতুন করেন। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত যেমনি বিডিক্রিকটাইম এর মুখোমুখি হয়ে খুলে দিলেন গল্পের ঝুলি। ড্রেসিংরুম, ক্রিকেট ও ব্যক্তিজীবন নিয়ে বিডিক্রিকটাইম এর প্রশ্নের জবাবে কী কী বললেন মোসাদ্দেক, জেনে নেওয়া যাক।

Also Read - হাথুরু নয়, রোডসও নয়, ক্রিকেটাররা চান অন্যরকম কোচ







বিডিক্রিকটাইম : ড্রেসিংরুমে সবচেয়ে বেশি ফাজলামো করেন কে?

মোসাদ্দেক : তামিম ইকবাল ভাই। কোনো কারণ লাগে না, এমনিতেই উনি পচাতে থাকে সবসময়। সমবয়সীদের মধ্যে লিটন বেশি ফাজলামো করে। ও যাদের সাথে মিশুক, তাদের সাথে অনেক ফাজলামো বলে। আপনার সাথে মিশুক না হলে মাসুম বাচ্চা হয়ে থাকবে।






বিডিক্রিকটাইম : প্রয়োজন ছাড়া কথা বলেন না কে?

মোসাদ্দেক : মোহাম্মদ মিঠুন ভাই, মমিনুল হক সৌরভ ভাই। দুষ্টামি-ফাজলামো করেন, তবে প্রয়োজন ছাড়া কথা বেশি বলেন না।

বিডিক্রিকটাইম : আপনি তো হ্যাংলাপাতলা গড়নের, ব্যাটিংয়ের সময় কবজিতে এত জোর পান কীভাবে?

মোসাদ্দেক : এটার জন্য বিশেষ কিছু করা হয় না। গড গিফটেড মনে করি। আমরা যারা ক্রিকেটার তারা কিন্তু কখনো বডি বিল্ডিংয়ের কাজ করি না। যেহেতু পাওয়ার ক্রিকেট, তাই পাওয়ার ক্রিকেটের জন্য যা যা করা উচিৎ সেগুলোই করি। সেটা করতে গেলে মানুষের গায়ের স্বাভাবিক শক্তির চেয়ে একটু বেশি শক্তি আসবেই। সেটা করারই চেষ্টা করি।

বিডিক্রিকটাইম : ময়মনসিংহের কোন জিনিস সবচেয়ে ভালো লাগে?

মোসাদ্দেক : ময়মনসিংহের সবাই পার্ক অনেক পছন্দ করে। আমারও পছন্দের জায়গা পার্ক। সময় পেলেই পার্কে আড্ডা দিতে যাই।

বিডিক্রিকটাইম : পছন্দের খাবার কী? মা কোন খাবার সবচেয়ে ভালো রাঁধেন?

মোসাদ্দেক : বাসার খাবার পছন্দ করি। সবচেয়ে পছন্দ গরুর গোশত, মাসকলাইয়ের ডাল আর ভাত। বাসায় আসলে এটা খাই-ই খাই। মা সর্ষে ইলিশ সবচেয়ে ভালো রাঁধেন।

বিডিক্রিকটাইম : কখনো বাসার বাজারসদাই করেন? কী পরিস্থিতি হয়?

মোসাদ্দেক : দোকানিরা দাম একটু বেশি চায়। টিভিতে আমাদের দেখে অভ্যস্ত, অনেকেই ভাবে যাদের টিভিতে দেখা যায় তাদের অনেক টাকা। এ কারণে একটু বেশি দাম চায়। আমিও সঠিক দাম বলতে পারি না, এদিক সেদিক হয়ে যায়। তখন বন্ধুরা বলে দেয়- এটার দাম বেশি বলছেন, আরও কমান। এটাকে ঠকানো বলব না, মজাই লাগে।

বিডিক্রিকটাইম : চোটে পড়লেন, আপনার পরিবর্তে আপনি কাকে খেলাবেন? সাব্বির রহমান নাকি নাসির হোসেন?

মোসাদ্দেক : সাব্বির। একজনের নাম তো বলতেই হবে, এটা কঠিন! আরেকজন হয়ত মন খারাপ করবে। একজনকে তো বেছে নিতে হবে প্রশ্নের বিপরীতে। মজার প্রশ্ন।

বিডিক্রিকটাইম : ক্রিকেটের পর কোন পেশা বেছে নিতে চান?

মোসাদ্দেক : আমার মনে হয় আমি ক্রিকেট ছাড়ার পর ব্যবসায়ী হবো।

বিডিক্রিকটাইম : সাকিব আল হাসানের মত?

মোসাদ্দেক : সাকিব ভাই তো অনেক উপরে। তার কাছ থেকে ধারণা নিতে পারি। যদি করি অবশ্যই উনার কাছ থেকে ধারণা নিব।

বিডিক্রিকটাইম : সবচেয়ে বেশি ভয় পান কাকে?

মোসাদ্দেক : মাশরাফি বিন মুর্তজা ভাই তো অনেক বন্ধুত্বপূর্ণ, অনেক মজা ফাজলামো করে। তামিম ভাইও করে। সাকিব ভাই তো আছেই। এদিক থেকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ভাই… উনি ক্ষেপে গেলে সবাই ভয় পায়, খেয়াল রাখে তার রাগ যেন না থাকে। রিয়াদ ভাইয়ের রাগকে সবাই ভয় পায়।

বিডিক্রিকটাইম : ড্রেসিংরুমে সবচেয়ে অগোছালো কে?

মোসাদ্দেক : আমিই অগোছালো। আমার আর কারও কথা বলা অনুচিত। আমি নিজেই খুব বেশি গোছালো না। হোম ড্রেসিংরুমে পাশে থাকে মুশফিকুর রহিম ভাই। উনি এত গোছালো, কিন্তু আমি অগোছালো। কখনো কিছু শুনিনি, কিন্তু নিজের কাছে অবাক লাগে- মুশফিক ভাই কীভাবে এত গুছালো থাকে!

বিডিক্রিকটাইম : কখনো ক্রিকেট মাঠে চোখ দিয়ে পানি ঝরেছে? দুঃখে বা আনন্দে?

মোসাদ্দেক : আনন্দ এসেছিল দুইটা ম্যাচে- কার্ডিফে রিয়াদ ভাই ও সাকিব ভাইর সেঞ্চুরিতে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর পর আর আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ জেতার পর। কষ্টে এসেছে অভিষেক ওয়ানডেতে ৪৫ রান ও ২ উইকেট পাওয়ার পরও হেরে গিয়ে।

বিডিক্রিকটাইম : ব্যাটিং নিয়ে ড্রেসিংরুমে ক্ষেপে যান কে?

মোসাদ্দেক : আউট হয়ে গেলে তামিম ভাই ড্রেসিংরুমে আসলে ৫-১০ মিনিট কেউ এখানে থাকতে চায় না। ১০ মিনিট পর সব স্বাভাবিক, ঠাণ্ডা, উনিও ফাজলামো দুষ্টামি করবে। কিন্তু উনি আউট হওয়ার পর কেউ ড্রেসিংরুমে থাকতে চায় না। সবাই ডাগআউটে চলে আসে।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

২২ গজে ফিরতে প্রস্তুত হচ্ছে বিসিবি

বিদেশে ভালো করার প্রচেষ্টায় তাইজুল

আমার সাথে চরম অন্যায় করা হয়েছে : নাফীস

সপরিবারে করোনামুক্ত নাফিস ইকবাল

বাংলাদেশে কোচ হওয়া ‘ঝুঁকিপূর্ণ’, বলছেন পাইলট