Scores

মাঠের লড়াইয়ে পাকিস্তানকে হারিয়ে জবাব দেয়া উচিত: গাভাস্কার

ভারতীয়দের পক্ষ থেকে দাবি উঠেছে আসছে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কট করার। সাবেক স্পিনার হরভজন সিং প্রথমে এই দাবি তুলেছেন, এরপর তার পক্ষে সায় দিয়েছেন সাধারণ দর্শক থেকে অনেক ক্রিকেট বিশ্লেষকও। কিন্তু এই দাবির বিপরীতে অবস্থান নিয়েছেন দেশটির সাবেক তারকা ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার।

মাঠের লড়াইয়ে পাকিস্তানকে হারিয়ে জবাব দেয়া উচিতঃ গাভাস্কার

আগামী ১৬ জুন ম্যানচেস্টারে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে মুখোমুখী হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান। সুনীল গাভাস্কার মনে করে ম্যাচ বয়কট করার অর্থ পাকিস্তানকে দুটি পয়েন্ট ছেড়ে দেয়া। তিনি বলেন, ‘ভারত যদি পাকিস্তানের সাথে না খেলে তাহলে কে জিতবে? ফাইনাল বা সেমি ফাইনালে কথা বাদই দিলাম, গ্রুপ পর্বের ম্যাচ ছেড়ে দিলেও তো সেটিতে পাকিস্তান দুটি পয়েন্ট পাবে। এক্ষেত্রে পাকিস্তানই জিতে যাবে।’

Also Read - বাংলাদেশের সেরা বিশ্বকাপ একাদশ


সুনীল গাভাস্কার মনে করেন, বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে বয়কট করলে ভারতের জন্যই সেটি হবে একটি ‘পরাজয়’। তার চেয়ে তিনি চান দেশটির সাথে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বাতিল করে পাকিস্তানকে ‘শাস্তি’ দেয়া হোক।

তারকা ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার মনে করেন মাঠের খেলায় পাকিস্তানকে হারিয়ে দিতে পারলেই সেটি হবে লাভজনক। এই লিটল মাস্টার বলেন, ‘বিশ্বকাপে আমরা প্রতিবারই তাদের হারিয়েছি। আবারো সেটি করে দুটি পয়েন্ট বাগিয়ে নেয়া উচিত। আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে তারা যাতে এই রেকর্ড ভাঙ্গতে না পারে।’

অবশ্য নিজের যুক্তি তুলে ধরার পাশাপাশি জনতার আবেগ অনুভূতির কথাও বিবেচনায় রেখেছেন ৮৬’র বিশ্বকাপ জয়ী এই তারকা। তিনি বলেছন, ‘তবে আমি অবশ্যই দেশের পাশে আছি। সরকার যা সিদ্ধান্ত নেবে তার পক্ষে আমার অবস্থান। দেশ যদি চায় পাকিস্তানের সাথে খেলবে না, আমি সেটাই সানন্দে গ্রহণ করবো’।

গাভাস্কার মনে করেন ম্যাচ ছেড়ে দিয়ে নয়, বরং মাঠের লড়াইয়ে পাকিস্তানকে হারিয়ে জবাব দেয়ার উচিত। তিনি বলেন, ‘কিন্তু আমরা তাদের সাথে না খেললে কি হবে? জানি যে, দুটি পয়েন্ট ছেড়ে দিলেও আমরা পরের রাউন্ডে যাওয়ার মতো শক্তিশালী দল। কিন্তু কেন আমরা তাদের হারিয়ে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় করার চেষ্টা করবো না!”

অনেকেই বলছে কাশ্মির বিষয়টি আইসিসিতে তুলে পাকিস্তানকে বিশ্বকাপ থেকে বাদ দেয়ার চেষ্টা করবে ভারত। কিন্তু সুনীল গাভাস্কার মনে করেন এই চেষ্টা বৃথা, এতে সফল হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই। তিনি বলেন, ‘বিসিসিআই চেষ্টা করতে পারে, কিন্তু এতে কাজের কাজ কিছুই হবে না। কারণ অন্য সদস্য দেশগুলো এই যুক্তি মেনে নেবে না। তারা বলবে, দ্বিপক্ষীয় বিষয়ে তাদের না জড়াতে। কাজেই পাকিস্তানকে বিশ্বকাপের বাইরে রাখার চিন্তা সফল হবে না। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তারাও মনে করছেন এভাবে পাকিস্তানকে বিশ্বকাপ থেকে সরিয়ে রাখতে পারা যাবে না।

এদিকে ইমরানের সাথে সরাসরি কথা বলতে চান তিনি। গাভাস্কার বলেন, ‘আমাকে সরাসরি ইমরান খানের সাথে কথা বলতে দিন। এই মানুষটি দারুণ এক ব্যক্তিত্ব। যে কী না আমার বন্ধুও। আমি তাকে বলতে চাই, আপনি যখন ক্ষমতায় এসেছিলেন নতুন পাকিস্তান গড়ার স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন।’

গাভাস্কার আরও বলেন, দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক দেখতে চায় সাধারণ জনগনও। ইমরান খানের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দুই দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। আপনি আমার বন্ধু, ওয়াসিম(আকরাম) আমার বন্ধু, রমিজ(রাজা), শোয়েব(আখতার) আমার বন্ধু। দেশে কিংবা দেশের বাইরে যেখানেই আমাদের দেখা হয় চমৎকার সময় কাটে। কাজেই দুই দেশের সম্পর্ক উন্নয়নে এগিয়ে আসুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

তিন বছর পরপর বিশ্বকাপ চান গাঙ্গুলী!

২০২৩ বিশ্বকাপে জায়গা পেতে বাংলাদেশকে খেলতে হবে ৮টি সিরিজ

১৪ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাচ্ছে আগামী বিশ্বকাপের লড়াই

রশিদের চাওয়া বিশ্বকাপে খেলুক সহযোগী দেশগুলোও

আগামী বিশ্বকাপে সহযোগী আয়োজক হতে চায় বাংলাদেশ