মালদ্বীপের ৪ রানেই নেই ৭ উইকেট

দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে বিশাল ব্যবধানে জয়ের পথে বাংলাদেশ নারী দল। বাঘিনীদের দেয়া ২৫৬ রানের টার্গেটে মাত্র ৪ রানেই ৭ উইকেট হারিয়েছে মালদ্বীপ। চলছে ৮ম ওভারের খেলা। বাংলাদেশের পক্ষে ৪ ওভারে মাত্র ১ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন রীতু মনি অন্যদিকে ৩ ওভারে ২ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন অভিজ্ঞ সালমা খাতুন।  

Advertisment

এর পূর্বে প্রথম বাংলাদেশি নারী ক্রিকেটার হিসাবে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে শতক হাঁকানোর গৌরব অর্জন করলেন নিগার সুলতানা। তারপরে ফারজানা হকও করেছেন সেঞ্চুরি। তাদের শতকের ওপর ভর করে মালদ্বীপের বিপক্ষে বাংলাদেশে মেয়েদের সংগ্রহ ২ উইকেটের বিনিময়ে ২৫৫ রান।

নেপালের পোখারা রঙ্গশালা টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সালমা খাতুন। তবে শুরুটা আশানুরূপ হয়েছিল বাংলাদেশের। শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারায় সালমার দল। এক চারে ৪ বলে ৫ রান করে রান আউটের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন শামীমা সুলতানা। একই ওভারে আরেক ওপেনার সানজিদা ইসলামকে বোল্ড করেন মালদ্বীপের শাম্মা আলি।

তবে সেই ধাক্কা সামলে নেন দুই ব্যাটার নিগার সুলতানা ও ফারজানা হক। মালদ্বীপের বোলারদের দমন করে ঝড়ের গতিতে রান তুলতে থাকেন এই দু’জন। ১০ ওভারেই দলীয় সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ২ উইকেটের বিনিময়ে ১১১ রান। ৩৫ বলে অর্ধশতক পূর্ণ করেন নিগার। তখন ২১ বলে ৩৫ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন ফারজানা।

শেষ পর্যন্ত তারা দু’জনেই বড় ইনিংস খেলেছেন। দুজনই পৌঁছেছেন তিন অঙ্কের ঘরে। প্রথমে শতক হাঁকান নিগার। ৫৯ বলে তিন অঙ্ক স্পর্শ করেন তিনি। এই রান করার পথে তার ব্যাট থেকে আসে ১২টি চার ও ৩টি ছয়।

ফারজানা শতক হাঁকান মাত্র ৪৯ বলে। তিন অঙ্ক স্পর্শ করতে তিনি ১৮টি চারের মার খেলেন। শতক করার পথে কোনো ছক্কা হাঁকাননি এই ডানহাতি ব্যাটার।

নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ২ উইকেটের বিনিময়ে ২৫৫ রান। নিগার ৬৫ বলে ১৩ চার ও ৩ ছয়ে ১১৩ রানে এবং ফারজানা ৫৩ বলে ২০ চারে ১১০ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশঃ ২৫৫/২ ( ২০ ওভার)
নিগার ১১৩*, ফারজানা ১১০*, শামীমা ৫, সানজিদা ৭;
শাম্মা ১/৩৮।

মালদ্বীপঃ ৪/৭ (৮ ওভার)
রীতু ৩/১, সালমা ২/২