SCORE

সর্বশেষ

মাশরাফিকে টেস্ট খেলতে বলেছিলেন পাপন

২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়েছিলেন অধিনায়ক হিসেবে। কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে প্রথম টেস্টেই পড়েন ইনজুরিতে। সেই ইনজুরির ধকল মাশরাফি বিন মুর্তজাকে সইতে হয়েছে অনেকদিন। এতে এতটাই হাঁপিয়ে উঠেছিলেন যে টেস্ট ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত রয়েছেন আজ অবধি।

মাশরাফিকে টেস্ট খেলতে বলেছিলেন পাপন

তবে মাশরাফিকে টেস্টে ফেরানোর জন্য কম চেষ্টা-তদবির হয়নি। দেশসেরা পেসার এখন অনেকটাই ফিট। দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন ওয়ানডে ফরম্যাটে, নেতৃত্বও দিচ্ছেন দলকে। টেস্টে ধারাবাহিক কোনো পেসার না পাওয়ায় এখনও মাশরাফিকেই অনেকে মনে করেন প্রথম পছন্দ।

Also Read - সালাউদ্দিনের সাথে কারস্টেনের বৈঠক

আগামী মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাবে বাংলাদেশ দল। সফরে স্বাগতিকদের বিপক্ষে খেলবে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজও। ঐ সিরিজের জন্য মাশরাফিকে দলে চেয়েছিলেন অনেকেই। এমনকি মাশরাফির চিকিৎসক ডেভিড ইয়াংও দিয়েছিলেন সবুজ সংকেত। জাতীয় দলের বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও টেস্ট দলে চেয়েছিলেন মাশরাফিকে।

এবার জানা গেল, বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও মাশরাফিকে টেস্ট খেলতে বলেছিলেন। যদিও মাশরাফিকে টেস্টে কোন পজিশনে খেলানো হবে- এই প্রশ্ন ছুঁড়ে কদিন আগে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি।

সম্প্রতি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল সময়নিউজকে পাপন বলেন-

‘আমি মাশরাফিকে কল দিয়েছিলাম। মাশরাফি- ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে আমি তোমার নাম দিচ্ছি। ও বললো, প্রশ্নই উঠে না। আমি জীবনেও টেস্ট খেলবো না।’

মাশরাফির সাথে নিজের কথোপকথন তুলে ধরে পাপন বলেন, ‘আমি বললাম, তুমি নাকি মিডিয়াকে বলেছো, তুমি খেলবে। সে বললো, প্রশ্নই উঠে না, পাপন ভাই। আমি এমন কথা বলতেই পারি না। আপনি কী বলেন? আমি কোথা থেকে টেস্ট খেলবো? এটাই সে আমাকে বলেছে।’

তবে মাশরাফি চাইলে যেকোনো সময় টেস্ট বা টি-২০ ফরম্যাটে ফিরতে পারবেন, সেটি জানিয়েছেন পাপন-

‘আমি মাশরাফিকে চাপে রাখতে চাই না। তবে আমি বলে রেখেছি, সে যে ফরম্যাটে খেলতে চায় সেখানেই খেলতে পারবে। আমার তরফ থেকে কোনো বাধা থাকবে না।’

আরও পড়ুনঃ “অস্ট্রেলিয়ার সমস্যাটা কোথায়?”

Related Articles

ভারতের চেয়েও বেশি প্রস্তুত ছিল পাকিস্তান!

লর্ডস টেস্টেও হারল ভারত

কোহলিকে নিয়ে অ্যান্ডারসনের অদ্ভুত ‘জিজ্ঞাসা’

গতানুগতিক বোলিংয়েই সাফল্য দেখছেন রাব্বি

অ্যান্ডারসনের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত ভারত