Score

মাশরাফির ‘অন্যতম স্মরণীয় ও সেরা’ ডিপিএল

শেষ পর্যন্ত ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ২০১৭-১৮ মৌসুমের শিরোপা জিতেছে আবাহনী লিমিটেড। তারকায় ঠাসা দলটিতে এবার ছিলেন জাতীয় দলের অনেক তারকা ক্রিকেটার। তাদের মধ্যমণি হয়ে ছিলেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

মাশরাফির 'অন্যতম স্মরণীয় ও সেরা' ডিপিএল

টানা ছয় ম্যাচে জয় দিয়ে আসর শুরু করে আবাহনী প্রথমেই দিয়েছিল লিগ জয়ের আভাস। তবে সেই আভাস একটা সময় ম্লান হয়ে যায় সুপার সিক্সের আগের কিছু ম্যাচের ব্যর্থতায়। সুপার সিক্সে শিরোপা লড়াই জমজমাট হয়ে উঠলে আবাহনীর প্রতীক্ষা পৌঁছায় শেষ ম্যাচ পর্যন্ত। শেষমেশ শেষটায় স্বস্তির জয় তুলে নিয়ে আবাহনী ঘরে তুলেছে শিরোপা।

Also Read - ইঞ্জুরির কবলে পড়ে আইপিএল শেষ রাবাদার

ম্যাচ শেষে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন আবাহনীর প্রাণভ্রমরা মাশরাফি। এ সময় দেশের ক্রিকেটারদের রুটি-রুজি খ্যাত ডিপিএলের প্রশংসা না করে পারেননি তিনি। মাশরাফি বলেন, ‘আমি যখন ক্যারিয়ার শুরু করেছিলাম, তখন বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের স্বর্ণ সময় এবং এই প্রিমিয়ার লিগই ছিল আমাদের সবেদন নীলমনি। আমরা সবাই এই আসরটির দিকেই তাকিয়ে থাকতাম। তাই প্রিমিয়ার লিগের আবেদন আমার কাছে সব সময়ই অনেক বড়।’

এবার অধিনায়ক হয়ে খেলেননি মাশরাফি। দলের নেতৃত্বে ছিলেন নাসির হোসেন। তবে প্রিমিয়ার লিগকে উপভোগ করেছেন আগের মতোই। তিনি বলেন, ‘আগের মত আমিও এই আসর সব সময় উপভোগ করেছি। তাই প্রিমিয়ার লিগে চ্যাম্পিয়ন হওয়াটা আমার কাছে একটা অন্যরকম বাড়তি আনন্দ। সাধারণত উচ্ছ্বাস-আবেগ আমাকে খুব একটা স্পর্শ করে না। তবে প্রিমিয়ার লিগে চ্যাম্পিয়ন হতে পারলে আমার সব সময়ই ভালো লাগে। সত্যি বলতে কী, এবারও চ্যাম্পিয়ন হয়ে খুব ভালো লাগছে।’

ক্যারিয়ারের শেষদিকে এসেও মাশরাফির পারফরমেন্সে যেন মরচে ধরেনি একটুও। ব্যাটসম্যানদের দাপটের আসরে মাশরাফিই হয়েছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি, যা আবারও জানান দিচ্ছে তার শ্রেষ্ঠত্বের। মাশরাফি বলেন, ‘মধ্য তিরিশে দাঁড়িয়েও প্রিমিয়ার লিগে সর্বাধিক উইকেট শিকারী হতে পেরে ভালো লেগেছে এই কারণে যে, আমি এখন ৫০ ওভারের ফরম্যাটের বাইরে আর কিছু খেলি না। সে ফরম্যাটে ভালো করার চেষ্টা ছিল।’

একই দলে খেলায় মাশরাফি এবার কাছ থেকে দেখেছেন তরুণ ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত ও পরীক্ষিত ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়কে। এই দুই ক্রিকেটারের পক্ষে প্রশংসার বাণীও ঝরল ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ খ্যাত ক্রিকেটারের কণ্ঠে, ‘শান্তকে এখনই জাতীয় দলে নেয়ার কথা বলছি না। ওর সামনে প্রচুর সময় আছে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার। তবে সে দারুণ খেলেছে। এনামুল হক বিজয়ও ভালো খেলেছে। আজ (বৃহস্পতিবার) সেঞ্চুরি করতে না পারলেও, ভালো খেলেছে এবং লিগে তার খেলা আমার দারুণ পছন্দ হয়েছে।’

ডিপিএলের ২০১৭-১৮ মৌসুমের আসরে মাশরাফি পেয়েছেন অনেক স্মরণীয় মুহূর্ত। শেষমেশ শিরোপা হাতে নিয়ে উল্লাসটাও হয়েছে। ট্রফি হাতে নেওয়ার অভ্যাস অবশ্য মাশরাফির অনেক পুরনোই। তিনি যেই দলে খেলেছেন, সেই দলই যে শিরোপা জেতে ঘরোয়া ক্রিকেটে! সেটি মাশরাফির মতো কিংবদন্তীর ছোঁয়ায়ই হয়ত… আরও একবার শিরোপা জয়ের পর আসরটিকে মাশরাফি উল্লেখ করলেন তার জীবনের অন্যতম স্মরণীয় ও সেরা লিগ হিসেবে। তার ভাষ্য, ‘এবারের প্রিমিয়ার লিগটা আমার কাছে অনেক কারণেই একটা ভালো লাগার টুর্নামেন্ট হয়ে থাকবে। আমি যতগুলো লিগ খেলেছি, তার মধ্যে নিঃসন্দেহে এটা অন্যতম স্মরণীয় এবং সেরা লিগ। প্রচুর প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল। আমরা আট-দশজন জাতীয় দলের খেলোয়াড় নিয়ে দল গড়েও অনেক সংগ্রামের পর চ্যাম্পিয়ন হয়েছি।’

খেলোয়াড় বাছাই থেকে শুরু করে লিগ চলাকালেও এবার বেশ বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়েছে আবাহনী। তাই দলটিকে মাশরাফি দেখছেন সেরা দল হিসেবেই। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়, আবাহনী সন্দেহাতীতভাবে কাগজে-কলমে এক নম্বর দল ছিল। তবে মাঠে নিজেদের সেরা প্রমাণ করতে আমাদের শেষ ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে। সামগ্রিকভাবে এবার খুবই প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে। উইকেটও খুব ভালো ছিল।’

আরও পড়ুনঃ কম টেস্ট খেলা নিয়ে ওয়ালশের হতাশা

Related Articles

‘খারাপ করছি দেখেই বেশি চোখে পড়ছে’

দাপুটে জয়ে শিরোপা পুনরুদ্ধার আবাহনীর

নাসির, শান্ত তাণ্ডবের পর মাশরাফি ঝড়

নাসির, শান্ত’র জোড়া শতক

শিরোপার জন্য সেরাটাই দেবে আবাহনী