Scores

মাশরাফির টর্নেডো সেঞ্চুরী

মাশরাফি তান্ডবে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের বিপক্ষে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে ৩১৬ রানের চ্যালেঞ্জিং পুঁজি জমা করেছে কলাবাগান ক্রীড়াচক্র।

কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।
কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা

টস হেরে ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করে কলাবাগান ক্রীড়াচক্র। ম্যাচের শুরু থেকেই দেখেশুনে খেলতে থাকার পাশাপাশি রানের গতি ঠিক রেখে খেলতে থাকে কলাবাগানের দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সাফমান ইসলাম ও জসীমউদ্দিন। তবে বেশি দূর এগোতে পারেনি এই জুটি ৫.৩ ওভারে ৩০ রান করার পর সোহাগ গাজীর বলে সাদমান সরাসরি বোল্ড হলে বিচ্ছিন্ন হয় এই জুটি। সেখান থেকে দলের হাল ধরে মাসাকাদজা ও জসীমদ্দিন ৭১ রানের জুটি গড়ার পথে ২০ ওভারেই দলের শতক পূর্ণ করে। দলী ১০১ রানে ব্যক্তিগত ৪৫ রানে মাসাকাদজার ফিরে যাওয়ার পর শেখ জামালের বোলারদের তোপের মুখে পর-পর জসীমউদ্দিন ও তাসামুল হকের বিদায়ে চাপে পড়ে কলাবাগান।

৩৫.৩ ওভারে ১৬৯ রানে প্রথম সারির ৪ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ধুঁকতে থাকা বিপন্ন কলাবাগানের রানের চাকায় যখন লাগাম টেনে ধরেছে প্রতিপক্ষের বোলাররা, ঠিক তখনই ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিজে আসেন অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা। শুধুই কি ক্রিজে আসা? ক্রিজে এসে প্রতিপক্ষের বোলারদের রীতিমত নাস্তানাবুদ করে একের পর এক ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দলের রানের চাকা সচল করার পাশাপাশি দলকে এনে দিয়েছেন লড়াকু পুঁজি। ১১টি বিশাল ছয়ের সাথে ২ চারের মারে খেলেছেন ১০৪ রানের ইনিংস। মূলত শেষদিকে অধিনায়কের ঝড়ো ব্যাটিং-এ ভর করেই আসরে প্রথমবারের মতো ৩০০ রান পেরোনোর পাশাপাশি নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৩১৬ রানের পুঁজি পেতে সক্ষম হয়েছে কলাবাগান ক্রীড়া চক্র।

Also Read - ডিপিএলের ৭ম-৯ম রাউন্ডের সূচি প্রকাশ


ইমরান হোসেন,  প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম ডট কম

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

কালবৈশাখী ঝড়ে সিলেট স্টেডিয়ামের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

প্রিমিয়ার লিগে এবারও ভালো করার প্রত্যাশা রাব্বির

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন লিগ শুরু ৭ এপ্রিল

রাজশাহীর সামনে আজ বরিশাল

২০ জুলাই থেকে শুরু বোলিং অ্যাকশন সংশোধনের কাজ