SCORE

মিসবাহর উপরেই আস্থা রাখছে চিটাগং ভাইকিংস

বিপিএল টি-টোয়েন্টির ৫ম আসরে অন্যান্য ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো দলে তারকা দেশি-বিদেশি খেলোয়াড় ভিড়ালেও ব্যতিক্রম ছিল চিটাগং ভাইকিংস। দলে নামীদামী ক্রিকেটারদের নেওয়ার বদলে দেশি তরুণ ক্রিকেটারদের উপরেই আস্থা রেখেছে ভাইকিংস। গত দুই আসরে ভালো দল গঠন করেও প্রত্যাশা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছিলো ভাইকিংস।

শেষ চার লক্ষ্য চিটাগং অধিনায়ক মিসবাহর

গত আসর থেকে দেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে দলে রিটেইন করেছে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়, শুভাশিস রায় এবং তাসকিন আহমেদকে। এই তিনজন বাদে দলে রয়েছে সৌম্য সরকার, ইরফান শুক্কুর, নাঈম ইসলাম, আলামিন জুনিয়র, লুক রঙ্কিদের মতো ক্রিকেটারদের নিয়ে দল গঠন করেছে ভাইকিংস।

Also Read - আমাদের ১০-১৫ রান কম হয়ে গিয়েছেঃ নবী

এছাড়াও দলে নিয়েছে ৪৪ বছর বয়সী সাবেক পাকিস্তান দলের অধিনায়ক মিসবাহ উল হক, দিলশান মুনাবিরা, লুইস রিচি, সিকান্দার রাজাদের দলে ভিড়িয়েছে ভাইকিংস। তবে দলে তরুণ ক্রিকেটারদের উপর আস্থা হারাচ্ছেন না ভাইকিংসের পরামর্শক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। তরুণরাই বিপিএলে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেট উপহার দিবে বলে বিশ্বাস করেন তিনি।

“হয়তো নামে বড় বড় ক্রিকেটার নেই। তারপরেও আমি মনে করি যে সমস্ত প্লেয়ারদের নেয়া হয়েছে এরা কিন্তু যথেষ্ট যোগ্য এবং টি-টোয়েন্টি ভালো খেলে। তো আমি আশাবাদী যে চিটাগং ভাইকিংস এবার ভালো ক্রিকেট উপহার দেবে।”

আগামী ৭ নভেম্বর কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে বিপিএলের প্রথম ম্যাচ খেলতে মাঠে নামবে চিটাগং ভাইকিংস। মূল ম্যাচের আগে বিপিএলের এবারের আসরের জন্য অধিনায়কের নাম ঘোষণা করেছে ভাইকিংস। দলে তারকা ক্রিকেটার না থাকায় মিসবাহকেই অধিনায়ক হিসেবে বেছে নিয়েছে দলটি। ৪৪ বছর বয়সী এই পাকিস্তানি সাবেক অধিনায়কের উপর আস্থা রাখছে ভাইকিংস বলে জানিয়েছেন নান্নু।

“আমাদের অনেক অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একজন অধিনায়ক আছে-মিসবাহ উল হক। আমার মনে হয় তার কম্বিনেশনে দল অনেক কিছু পাবে এবং সে দলকে ভালোভাবে পরিচালনা করতে পারবে। আমি আশাবাদী যে দলটি ভালো কিছুই করতে পারবে।” 

আরও পড়ুনঃ ঢাকা পর্বে আধঘন্টা এগোচ্ছে বিপিএল

 

Related Articles

বিসিবি ও চিটাগং ভাইকিংসকে সিকান্দার রাজার ‘ধন্যবাদ’

আশরাফুলকে দেখে ক্রিকেটে আগ্রহ আল-আমিনের

ব্যর্থতার কারণ জানেন না রনকিও

বড় জয়ে শেষ চারের লড়াইয়ে টিকে রইলো নাসিররা

এক ম্যাচে নাসিরের দুই মাইলফলক স্পর্শ