Scores

মুমিনুলের সেঞ্চুরি; মিঠুনকে ফেরালেন নাঈম

হাফসেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ব্যক্তিগত ৬২ রানে মোহাম্মদ মিঠুন আউট হলেও তার মতো ভুল করেননি মুমিনুল হক। প্রস্তুতি ম্যাচে ঠিকই সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন রায়ান কুক একাদশের অধিনায়ক মুমিনুল হক।

সেঞ্চুরির পথে শট খেলছেন মুমিনুল হক
সেঞ্চুরির পথে শট খেলছেন মুমিনুল হক।

দ্বিতীয় দিনের শুরুতে ব্যাট করতে নেমে দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়ে বসে রায়ান কুক একাদশ। এবাদত হোসেন ও হাসান মাহমুদের বোলিং তোপে শুরুতেই খেই হারায় দলটি। নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে ব্যর্থ হন দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম ও ইয়াসির রাব্বি। দুজনকেই সাজঘরের পথ ধরান এবাদত।দুই ওপেনারের বিদায়ের পর দ্রুত ফিরে যান মুশফিকও। দারুণ এক ডেলিভারিতে মুশফিকের অফ-স্টাম্প উপড়ে ফেলেন হাসান। এর ফলে ১৩ বলে মুশফিকের ইনিংস থামে ৩ রানে।

এরপর দলের হাল ধরেন মুমিনুল হক ও মোহাম্মদ মিঠুন। চতুর্থ উইকেট জুটিতে প্রাথমিক ধাক্কা সামাল দেন তারা। শুধু তাই নয় দুজনে মিলে গড়ে দেন দলকে লিড নেওয়ার রাস্তা। তাদের জুটিতে আসে ১৫৩ রান।

Also Read - রাজস্থান শিবিরে যোগ দিচ্ছেন স্টোকস


সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে মুমিনুল-মিঠুন যখন গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়াচ্ছিল, তখন রায়ান কুক একাদশে স্বস্তি ফেরান নাঈম হাসান। ব্যক্তিগত ৬২ রানে মিঠুনকে আউট করেন এ অফ-স্পিনার। মিঠুন ভুল করে ফিরে গেলেও থামেননি মুমিনুল। এর কিছুক্ষণ পর বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান পূর্ণ করেন সেঞ্চুরি।

এ প্রতিবেদন লেখার সময়, রায়ান কুক একাদশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৮৭ রান।

এর আগে প্রথম ইনিংসে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ২৩০ রান করতে সক্ষম হয় নাজমুল হোসেন শান্তরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৪ রান আসে ওপেনার সাইফ হাসানের ব্যাট থেকে। ৯ চার ও ১ ছক্কায় এ রান করেন তিনি। তাছাড়া ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নামা সৌম্য সরকার করেন.৫১ রান। যার ৪০ রানই (১০ চার) আসে বাউন্ডারি থেকে।

রায়ান কুক একাদশের পক্ষে তিনটি উইকেট নেন তাসকিন আহমেদ ও তাইজুল ইসলাম। এছাড়া দিনের শেষদিকে বল হাতে নিয়ে ঝলক দেখান মিঠুন। মাত্র ১.৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৫ রানের বিনিময়ে দুই উইকেট নেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

ওটিস গিবসন একাদশ: ৬৩.৪ ওভারে ২৩০-১০

সাইফ ৬৪, ইমরুল ৭, শান্ত ৪২, মাহমুদউল্লাহ ৩৪, লিটন ৭, সৌম্য ৫১, মোসাদ্দেক ১৩, নাঈম ২, মুস্তাফিজ ০, এবাদত ৪, হাসান ০*; তাসকিন ১৭-৪-৪৫-৩, খালেদ ১৩-৩-৫৯-১, আল আমিন ৮-০-১৯-০, তাইজুল ১৭-১-৭০-৩, সাইফ উদ্দিন ৭-১-৩০-১, মিঠুন ১.৪-০-৫-২।

ওটিস গিবসন একাদশ : সাইফ হাসান, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাঈম হাসান, হাসান মাহমুদ, এবাদত হোসেন চৌধুরী, মুস্তাফিজুর রহমান।
দ্বাদশ খেলোয়াড় : রুবেল হোসেন।

রায়ান কুক একাদশ : ইয়াসির আলী চৌধুরী, সাদমান ইসলাম, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, কাজী নুরুল হাসান সোহান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, খালেদ আহমেদ, আল-আমিন হোসেন।

Related Articles

কোয়ারেন্টিন থেকে ‘মুক্তি’ পেলেন সাকিব-মুস্তাফিজ

‘১৬১ কোটি’ টাকায় বিসিবির সম্প্রচার স্বত্ব কিনল ব্যানটেক

বিসিবির সম্প্রচার স্বত্ব কিনল বাংলাদেশি এজেন্সি

আমার স্বপ্ন অনেক বড় : তাসকিন

শ্রীলঙ্কা সিরিজের কোচিং প্যানেলে দুই দেশি কোচ