মুরালিধরণকে সাকিবের শ্রদ্ধা

0
833

দুজনই স্পিনার। একজন তার সময়ে শাসিয়ে গেছেন বিশ্বকে, আরেকজন বর্তমানে বল হাতে কাঁপাচ্ছেন বিশ্ব। দুজনই আবার দক্ষিণ এশিয়ান। শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তী মুত্তিয়া মুরালিধরণ ও সাকিব আল হাসানের মধ্যে মিল খুঁজতে গেলে চোখে পড়বে অনেককিছুই। তবে আপাতত সবচেয়ে বড় মিল, আইপিএলের দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের সাথে যুক্ত আছেন দুজনই।

মুরালিকে সাকিবের শ্রদ্ধা

Advertisment

অবশ্য দুজনের ভূমিকা ভিন্ন। অনেক বছর আগে খেলোয়াড়ি জীবনকে বিদায় জানানো মুরালিধরণ দলের সাথে আছেন বোলিং কোচ হিসেবে, আর সাকিব যথারীতি খেলোয়াড় হয়ে। তবে ভিন্ন ভূমিকায় থাকলেও দুজনের মধ্যে জমেছে যে বেশ ভালো, সেটি একদম স্পষ্টই বলা চলে।

কদিন আগেই সাকিবকে নিয়ে নিজের অনুভূতি এবং প্রত্যাশা প্রকাশ করেছিলেন মুরালিধরণ। এবার সাকিব মুরালিকে আখ্যা দিলেন ‘কিংবদন্তী’ হিসেবে, জানালেন শ্রদ্ধা। আর সাকিব তার এই অনুভূতি প্রকাশ করেছেন নিজের ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে।

আইপিএলের গত আসরে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বোলিং আক্রমণের নেতৃত্বে ছিলেন পেসাররা। স্পিন আক্রমণ ছিল কেবল পেসের সমর্থন হিসেবেই। তবে বছর ঘুরতেই সেই হায়দরাবাদ এবার ভরসা রাখছে স্পিনে। আর সেক্ষেত্রে দলটির বড় অস্ত্র বাংলাদেশি ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। মুরালিধরণও সাকিবকে নিয়ে বেশ আশাবাদী। আইপিএলের শুরুর আগে সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে সাকিব প্রসঙ্গে মুরালিধরণ বলেছিলেন, ‘স্পিনাররা দলে গুরুত্বপূর্ণ। চ্যাম্পিয়নশিপ জিততে হলে তাদের ভীষণ প্রয়োজন। সাকিব আল হাসান খুবই ধারাবাহিক একজন বোলার। বাংলাদেশের হয়ে অনেকগুলো টি-২০ বিশ্বকাপে সে খেলেছে এবং ইতিপূর্বে কলকাতা নাইট রাইডার্সেরও অংশ ছিল। পাওয়ার-প্লে এবং ডেথ ওভারে সে ভালো বল করতে পারে। গত বছর রশিদ খানকে আমরা শুধু পাওয়ার-প্লেতে ব্যবহার করেছি। এবার যেহেতু সাকিব আছে, রশিদ মাঝখানের সময়টুকুতে বল করতে পারবে, যা উইকেটের পতন ঘটাতে পারে।’

উল্লেখ্য, সোমবার আইপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে সাকিব-মুরালিধরণের সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ঘরের মাঠে এই ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ রাজস্থান রয়্যালস।

আরও পড়ুনঃ নেপালকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ