Scores

মুশফিকের এতসব অর্জনের পরও বাবার আক্ষেপ

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৩ বছরে পা দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের অভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। ২০০৫ সালে লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অভিষেক ঘটে ছোট্ট মুশফিকের। স্পেশালিস্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে অভিষেক হওয়া মুশফিক এখন দলের সেরা উইকেটরক্ষক এবং দলের ব্যাটিং স্তম্ভ। দীর্ঘ এই ক্যারিয়ারে অনেক কিছুই পেয়েছেন মুশফিক আবার অনেক কিছুর জন্যও আক্ষেপে পুড়তে হয়েছে তাঁকে।

মুশফিকের এত অর্জনের পরও বাবার আক্ষেপ
২০১১ সালে তিন ফরম্যাটেরই অধিনায়কের দায়িত্ব পান মুশফিক। ২০১৪ তে সেটি কমে আসে একটিতে। সীমিত ওভারের ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব হারালেও টেস্টের নেতৃত্বের ভার থাকে তার কাঁধেই। তার অধিনায়কত্বে টেস্ট ক্রিকেটে একের পর এক সাফল্যের দেখা পেয়েছে বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডকে হারানো। শ্রীলঙ্কার মাটিতে নিজেদের শততম টেস্ট জয় এবং ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়াকে টেস্টে হারানো, সবকিছুই এসেছে তার অধীনেই।

এসব অর্জনের পাশাপাশি রয়েছে আরও অনেক অর্জন। তবে এতসব অর্জনের সঙ্গী অনেক আক্ষেপও। দীর্ঘ এই ১৩ বছরের টেস্ট ক্যারিয়ারে খেলেছেন মাত্র ৬০টি টেস্ট, রান করেছেন ৩৬৩৬। তবে আক্ষেপটা নিজের ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স বা রানের সংখ্যাটা আরও বেশি হওয়ার জন্য নয়। আক্ষেপটা রয়ে গেছে এতো দীর্ঘ সময়ে কম টেস্ট খেলা নিয়ে।

Also Read - "ফিটনেসের অবস্থা আগের চেয়ে ভালো"


যেখানে তার পরে অভিষেক ঘটা অনেক ক্রিকেটারই খেলেছেন তার চেয়ে বেশি টেস্ট। বেশি টেস্ট খেলতে না পারার আক্ষেপটা সবসময়ই বলেন মুশফিক। এবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৩ বছরে পা দেওয়ার উপলক্ষ্যে বাংলানিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে মুশফিকের অর্জন-আক্ষেপ নিয়ে কথা বলেছেন তার বাবা মাহবুব হামীদ। মুশফিকের মত বাবারও আক্ষেপ একই জায়গায়। যেখানে তার এক বছর পর ইংল্যান্ডের হয়ে অভিষেক হওয়া অ্যালিস্টার কুক খেলেছেন ১৫৪ টেস্ট সেখানে মুশফিক মাত্র ৬০ টেস্ট!

‘ভালো লাগছে। আমার ছেলে এত দিন থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেটের প্রতিনিধিত্ব করছে। এটা দারুণ কিছুই। তবে কিছুটা তো আক্ষেপ আছেই। মুশফিকের পরে ইংল্যান্ডের কুকের (অ্যালিস্টার) অভিষেক। কিন্তু সে ১৫০টি (১৫৪ টেস্ট) টেস্ট খেলে ফেলেছে। টেস্টে তার রান ১২ হাজারের ওপরে। কিন্তু মুশফিকের তো আরও বেশি খেলার কথা ছিল।’

তবে এত আক্ষেপের পরেও তৃপ্তি পান যখন ছেলে মাঠে লাল-সবুজ পতাকাকে প্রতিনিধিত্ব করে। যেখানে বাংলাদেশের তুলনায় ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ানরা টেস্ট ক্রিকেটকে প্রাধান্য দেয় বেশি সেখানে বাংলাদেশি হিসেবে ম্যাচ খেলার সংখ্যাটা কম হওয়াটাই স্বাভাবিক। তাই বাবা মাহবুব হামীদ চান দেশের হয়ে আরও অনেক অর্জন বয়ে আনুক সন্তান মুশফিক।

‘আসলে বাংলাদেশের খেলাই এত কম যে চাইলেও বেশি কিছু করা সম্ভব না। তবুও যতটুকু অর্জন ওর, আমরা অনেক খুশি। আল্লাহ ওকে ভালো রাখুক, সুস্থ রাখুক যেনো আরও বেশি দিন বাংলাদেশের হয়ে খেলতে পারে।’

আরও পড়ুনঃ যে কারণে মুশফিকের মাথায় একই ক্যাপ

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

সমালোচনাকারীদের জবাব দিতে ব্যর্থ সৌম্য

লিখন-রিশাদকে দলে না নেওয়ায় বরখাস্ত দুই কোচ!

ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি দলে একাধিক চমক

বিপিএল: প্লেয়ার্স ড্রাফটের দিনক্ষণ চূড়ান্ত

ফিল্ডিংয়ের ‘বেসিক’ জানেন না জাতীয় দলের অনেকেই!