Scores

মুশফিকের দেওয়া ‘ক্যারেক্টার শো’ এর মন্ত্রে বিভোর শুক্কুর

নাসির হোসেন হারিয়ে যাওয়ার পর একজন ফিনিশারের জন্য কত আক্ষেপ টাইগারদের। ফিনিশারের ভূমিকা নেওয়ার জন্য কতজনকে কত সুযোগও দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কেউই বাংলাদেশ দলের সেই কাঙ্ক্ষিত ফিনিশার হয়ে উঠতে পারেননি। ইরফান শুক্কুর কী পারবেন?

মুশফিকের দেওয়া 'ক্যারেক্টার শো' এর মন্ত্রে বিভোর শুক্কুর

ঘরোয়া ক্রিকেটের নিয়মিত মুখ শুক্কুর মূলত টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। লকডাউনে অনুশীলনে ফেরার সুযোগ পেয়ে মুশফিকুর রহিম, নাঈম হাসানদের সাথে যে কয়জন শুরু থেকেই ঘাম ঝরিয়েছেন, তাদেরই একজন তিনি। কঠোর পরিশ্রমের সুফলও পেয়েছেন। বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপে নাজমুল একাদশের হয়ে আলো ছড়াচ্ছেন।

Also Read - আইপিএলে বর্ণবাদের প্রতিবাদ না থাকায় হোল্ডারের অসন্তোষ


এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচ খেলে তিনটি ম্যাচেই ফিনিশারের আদর্শ ভূমিকা পালন করেছেন শুক্কুর। তার এই বদলে যাওয়ার পেছনে অবদান আছে নাজমুল একাদশের সিনিয়র সদস্য মুশফিকেরও। মূলত মুশফিকের শিখিয়ে দেওয়া ‘ক্যারেক্টার শো’ এর মন্ত্র জপেই প্রতিভাবানদের ভিড়ে শুক্কুরের বাজিমাত।

শুক্কুর বলেন, ‘দলে মুশফিক ভাই আছে; সৌম্য আছে, ও আমার সমবয়সীও। ওরা তো জাতীয় দলে অনেক বছর ধরে খেলছে। তাদের সাথে ড্রেসিংরুম ভাগাভাগি করতে পেরে অনেক বেশি ভালো লাগছে।’

‘। আমি উনার কথাগুলো শুনতে চেষ্টা করছি। উনি কথা কম বললেও কিন্তু সে খুবই অনুপ্রেরণাদায়ী কথা বলে। উনি বলছে ক্যারেক্টার আর মাঠের ভেতরের এপ্রোচ যাতে এক রাখি। ওটাই আমি চালিয়ে যেতে চাচ্ছি।’

মুশফিক-শুক্কুরদের নাজমুল একাদশ ফাইনালে এক পা দিয়েই রেখেছে। ফাইনালের আগে লিগ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ তামিম একাদশের মুখোমুখি হবে দলটি, মিরপুরে যে ম্যাচ শুরু দুপুর দেড়টায়।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

Related Articles

পরিশ্রম আর পারফরম্যান্সকে পুঁজি করছেন শুক্কুর

তামিমের অধীনে খেলতে মুখিয়ে আছেন আত্মবিশ্বাসী শুক্কুর

নিজেকে সংযত রেখেই উন্মাদনা উপভোগ করছেন শুক্কুর

অর্ধশতক হাঁকিয়ে শীর্ষ রান সংগ্রাহকের পথে ইরফান

‘ট্র্যাকে ফিরে’ শুক্কুরের মনোযোগ দলের চাহিদা পূরণে