Scores

মুশফিক ক্রাইস্টচার্চে ফিরবেন: খালেদ মাসুদ

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুটি টেস্ট থেকে ছিটকে যান মুশফিকুর রহিম। তবে ক্রাইস্টচার্চে সিরিজের শেষ ম্যাচে দেখা যেতে পারে বাংলাদেশের এই নির্ভরযোগ্য ক্রিকেটারকে। টিম ম্যানেজার খালেদ মাসুদ পাইলট শুনিয়েছেন এই সম্ভাবনার কথা।

 

মুশফিক-পাইলট

Also Read - “কন্ডিশনের সাথে খাপ খাওয়ানোর সময় ছিল না”

তৃতীয় ওয়ানডের আগে পাঁজরে ব্যথা পেয়েছিলেন মুশফিক। এরপরও ঠিক হয়ে তৃতীয় ওয়ানডে খেলেছেন। কিন্তু শেষ ওয়ানডেতে গিয়ে আঙ্গুলে ব্যথা পেয়ে যান। এ জন্য প্রথম এবং দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে পারেননি। এখন মুশফিক অনুশীলন করে যাচ্ছেন।

এদিকে দ্বিতীয় টেস্টেই মুশফিককে খেলানোর চিন্তা করেছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। নেট সেশনেও অংশ নেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান, কিন্তু সেখানেই বাধে বিপত্তি। অনুশীলনে ব্যাটিং করলেও ব্যথা অনুভব করায় টিম ম্যানেজমেন্ট তাকে নামিয়ে ঝুঁকি নিতে চায়নি।

সাকিব আল হাসানের সঙ্গে মুশফিকের অনুপস্থিতি ব্যাটিং অর্ডারে বড় ধরনের শূন্যতা তৈরি করেছিল। বিশেষ করে মিডল অর্ডারে এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের অভাব টের পাওয়া গেছে ভালোভাবে। হ্যামিল্টনে ইনিংস ও ৫২ রানে হারের পর ওয়েলিংটনেও ভাগ্য বদলায়নি। মাত্র আড়াই দিনে ইনিংস ও ১২ রানে হেরে সিরিজও খুঁইয়েছে তারা।

মুশফিক ফিরলে দলে শক্তি বাড়বে এটা নিশ্চিত। ক্রাইস্টচার্চে তিনি ফিরবেন এমনটাই বিশ্বাস খালেদ মাসুদের।

টিম ম্যানেজার খালেদ মাসুদ বলেন, ‘এই মুহূর্তে মুশফিকের অবস্থা খুব ভালো। শনিবার শুরু হওয়া শেষ টেস্টে সে খেলতে পারবে আশা করি। নেটে সাবলীল ব্যাটিং করেছে সে। কোনও বলেই তাকে ছন্দহীন মনে হয়নি। সব মিলিয়ে শেষ টেস্টে তার ফেরার ব্যাপারে পুরো টিম ম্যানেজমেন্ট আত্মবিশ্বাসী।’

টিম ম্যানেজার আরও বলেন, ‘এই মুহূর্তে নতুন করে কোনও কিছু (চোট) না হলে মুশফিকের না খেলার কোনও কারণ দেখি না। তার বর্তমান অবস্থা দেখে আমরা দারুণ খুশি।’

খালেদ মাসুদ বলেন, ‘মুশফিক দ্বিতীয় টেস্টেই খেলতে প্রস্তুত ছিল। কিন্তু নেটে ব্যাটিং অনুশীলনের সময় লিগামেন্টে ব্যথা অনুভব করে। যে কারণে আমরা ঝুঁকি নেইনি।’

 

Related Articles

বিশ্বকাপে টাইগারদের অভিভাবক সুজন

টাইগারদের ঢাকায় পা রাখার সময়

টাইগারদের নিউজিল্যান্ড থেকে দেশে ফেরার দিনক্ষণ চূড়ান্ত

খালেদ মাসুদ পাইলটের মুখে সেই ভয়াবহ ঘটনার বর্ণনা

পাইলটই হচ্ছেন নিউজিল্যান্ড সফরের ম্যানেজার