মোসাদ্দেকের ঝড়ো ব্যাটিং সত্ত্বেও মারাঠার সংগ্রহ ‘৮৭’

নিজের প্রথম ম্যাচে পেয়েছিলেন রোমাঞ্চকর জয়। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন দলের হয়ে দ্বিতীয় ম্যাচেও রাখলেন অবদান। আবুধাবি টি-টেন লিগে মারাঠা অ্যারাবিয়ান্সের হয়ে সময়টা ভালোই যাচ্ছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের।

মোসাদ্দেকের ঝড়ো ব্যাটিং সত্ত্বেও মারাঠার সংগ্রহ ‘৮৭’

Advertisment

প্রথম ম্যাচে নর্দার্ন ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে ইনিংসের শেষ দুই বলে চার হাঁকিয়ে এনে দিয়েছিলেন দারুণ এক জয়। দ্বিতীয় ম্যাচে মোসাদ্দেকের দল আগে ব্যাটিংয়ে নামে। দিল্লী বুলসের বিপক্ষে ম্যাচে দলীয় ০ রানে প্রথম, ১১ রানে দ্বিতীয় এবং ২৬ রানে তৃতীয় উইকেট হারিয়ে ফেলে মারাঠা।

দল চাপে পড়ে গেলে অধিনায়ক মোসাদ্দেকই নামেন দলের হাল ধরতে। চাপের মুখে তার সঙ্গী ছিলেন জাভেদ আহমাদি। মোসাদ্দেক বলের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়াচ্ছিলেন রানের গতি। তবে শুরুতে জাভেদের ধীরগতির ব্যাটিং বাড়িয়ে তোলে দলের চাপ।

তবে চাপের মুখেই মোসাদ্দেক দেখিয়েছেন স্বল্প পরিসরে বাউন্ডারি ফুলঝুরি। টি-টেন ক্রিকেটের মেজাজ অক্ষুণ্ণ রেখে চেষ্টা করে গেছেন দলের পুঁজি বাড়াতে। তবে সতীর্থদের সঙ্গ না পাওয়ায় আক্ষেপ জাগতেই পারে। শেষপর্যন্ত মোসাদ্দেকই দলের সর্বোচ্চ সংগ্রাহক।

২২ বলের মোকাবেলায় ৩৬ রান করে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক, হাঁকান ৫টি চার ও ১টি ছক্কা। জাভেদ ১৯ বলে ২৪, লরি ইভান্স ৬ বলে ১১ করেন এবং ইশান মালহোত্রা ৫ বলে ৬ রান করে অপরাজিত থাকেন। নির্ধারিত ১০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে দলের সংগ্রহ ৮৭ রান। টি-টেনের পরিসংখ্যান বিচারে এই সংগ্রহ খুব একটা বড় নয়।

মোসাদ্দেকের দলে আছেন আরেক বাংলাদেশি সোহাগ গাজী। দলের প্রথম ম্যাচে সুযোগ পেলেও বোলিং-ব্যাটিং করা হয়নি। এই ম্যাচেও আছেন একাদশে।