মোহামেডানে খেলার অনুমতি পেলেন সাকিব

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে খেলার অনুমতি পেয়েছেন তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এবারের আসরে দলটির অধিনায়ক হিসেবেও দেখা যেতে পারে তাকে। 

স্ট্রাইক রেট কম হলেও ব্যাটিং নিয়ে খুশি সাকিব

Advertisment

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ না খেলে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগকে (আইপিএল) বেছে নেওয়াকে কেন্দ্র করে কয়দিন আগে সাকিবকে নিয়ে কম সমালোচনা হয়নি৷ সেই সাকিবই এবার লাহোর কালান্দার্সের হয়ে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) না খেলে বেছে নিয়েছেন ডিপিএলকে।

তবে বিপত্তি বাঁধে সাকিবের কোনো দল না থাকায়। গত বছরের মার্চে করোনা মহামারীর কারণে প্রথম দফায় স্থগিত হয় প্রিমিয়ার লিগ। এরপর কেটে গেছে দীর্ঘ সময়। মূলত ওয়ানডে ফরম্যাটে ডিপিএল অনুষ্ঠিত হলেও এবারের ফরম্যাট টি-টোয়েন্টি। তবে বদলায়নি স্কোয়াড। ২০২০ সালের আসরের জন্য যে স্কোয়াড গঠন করা হয়েছিল, অংশগ্রহণকারী ১২টি দল খেলবে সেই স্কোয়াড নিয়েই।

তবে তখনকার কোনো স্কোয়াডে ছিলেন না সাকিব। নিষেধাজ্ঞায় থাকার কারণে সাকিব তখন ছিলেন মাঠের বাইরে। পুরনো স্কোয়াড নিয়ে যখন তাই খেলা মাঠে গড়াচ্ছে; তখন মাশরাফি বিন মুর্তজা, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিমরা থাকলেও ছিল না সাকিবের নাম।

সাকিব তাই নিজ থেকেই মোহামেডানের হয়ে খেলার আগ্রহ প্রকাশ করেন। স্বভাবতই ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি সানন্দে রাজি হয়ে আবেদন করে ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিসের (সিসিডিএম) কাছে। সিসিডিএম সেই আবেদন গ্রহণ করে সাকিবকে মোহামেডানের হয়ে খেলার অনুমতি দিয়েছে। যদিও ব্রাদার্স ইউনিয়নসহ কিছু দল সাকিবকে লটারির মাধ্যমে দল নির্ধারণের ইচ্ছা পোষণ জানিয়েছিল।

সিসিডিএমের সদস্য সচিব আলী হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সাকিব ফ্রি খেলোয়াড় ছিল। আইনগতভাবে ফ্রি খেলোয়াড়কে দলে নিতে কোনো বাধা নেই। আমরা তার চিঠি যাচাই করে খেলার অনুমতি দিয়েছে। সাকিব মোহামেডানের হয়ে খেলতে পারবে।’

স্থগিত হওয়া আসরে মোহামেডানের অধিনায়ক ছিলেন কিংবদন্তি স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। জাতীয় দলের নির্বাচক প্যানেলে যোগ দিয়ে তিনি এখন ‘সাবেক খেলোয়াড়’। তাই সাকিবেরই মোহামেডানের নেতৃত্ব পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।